আমি পাখি হব

দশ তলার উপর থেকে নগরী এত সুন্দর দেখায় জানা ছিল না।আবেগী কেউ এই দৃশ্য দেখলে সৌন্দর্য্যে মরে যেতে চাইত।আচ্ছা,আমি কি আবেগী?
উপর থেকে সব কিছু পিপিলিকার মত লাগছে।পিপিলিকার মত গাড়িগলো ছুটে চলছে।দূরে থাকার এই এক সমস্যা।সবকিছু পিপিলিকার মত মনে হয়।তুচ্ছ মনে হয়।দূরের মানুষ এ জন্যই মনে হয় তুচ্ছ।কিন্তু আমার হতাশাটুকু একটু বেশী।আমার দীর্ঘশ্বাস তাই কিছুটা গভীর।কারন তুমি আমার কাছের মানুষ ছিলে।তুমি হয়্তো আমার খুব বেশীই কাছে ছিলে তাই তোমাকে কখনো স্পষ্ট দেখতে পাই নি।

দশ তলার উপর থেকে নগরী এত সুন্দর দেখায় জানা ছিল না।আবেগী কেউ এই দৃশ্য দেখলে সৌন্দর্য্যে মরে যেতে চাইত।আচ্ছা,আমি কি আবেগী?
উপর থেকে সব কিছু পিপিলিকার মত লাগছে।পিপিলিকার মত গাড়িগলো ছুটে চলছে।দূরে থাকার এই এক সমস্যা।সবকিছু পিপিলিকার মত মনে হয়।তুচ্ছ মনে হয়।দূরের মানুষ এ জন্যই মনে হয় তুচ্ছ।কিন্তু আমার হতাশাটুকু একটু বেশী।আমার দীর্ঘশ্বাস তাই কিছুটা গভীর।কারন তুমি আমার কাছের মানুষ ছিলে।তুমি হয়্তো আমার খুব বেশীই কাছে ছিলে তাই তোমাকে কখনো স্পষ্ট দেখতে পাই নি।
তোমার উচিত ছিল অন্তত ২৫ সে মি দূরুত্ব বজায় রাখা।এতো বেশী কাছে এসেছিলে কেন?ধুর!তোমাকে দোষারোপ করছি কেন?তুমি তো কখনো কাছে আসতে চাও নি।কাছে আসো ও নি।আমি ই তোমার কাছে চলে এসেছিলাম।আমি এত গাধা কেন?আমার উচিত প্রতিবেলা ঘাস খাওয়া।আর কখনো সুযোগ পেলে ঘাস খাব।সুযোগ পাব কিনা জানি না।কারন আমি পাখি হতে চাই।পাখিরা ঘাস খায় না।পাখিরা উড়ে বেড়ায়।ডানা মেলে উড়ে বেড়ায়।আমিও উড়বো।দু’হাত মেলে উড়বো।সিগারেট টা শেষ হলেই উড়বো

তুমি বলেছিলে আমার হাসি খুব বিচ্ছিরি।আমার উচিত সব সময় মুখ গোমরা করে থাকা।কিন্তু এতটুকু অন্তত জেনে রেখো আমার শেষ বিচ্ছিরি হাসির কল্পনাতেও শুধু তুমি ই থাকবে।আমার বিচ্ছিরি হাসি কে ক্ষমা করে দিও।তবে আমাকে ক্ষমা কর না।কারন আমি তোমাকে ভালবেসেছিলাম।ভালবাসা অলিখিত অপরাধ,পাপ।ভালবাসার শাস্তি মৃত্যুদন্ড।

হাতের সিগারেট এর শেষ টান দিব।আমার হাত কাপছে।চোখের গোড়ায় অশ্রু জমা হচ্ছে।ঠোটের কোনায় হাসি।তাচ্ছিল্লের হাসি।জীবনের প্রতি তাচ্ছিল্ল।
জীবনের শেষ ইচ্ছেটা যদি পূর্ন হত?আমার মৃতদেহ যদি তোমার গাড়ির সামনে পড়তো?তুমি গাড়ী থেকে নেমে আমার মাথাটা কোলে নিতে?…তোমার চোখের পানি টুপ টুপ করে আমার মুখে পড়তো?সেই সাথে শুরু হত বৃষ্টি।তুমি চিৎকার করে কাদছো।বৃষ্টির পানি আর তোমার চোখের পানি আলাদা করতে পারছি।বৃষ্টিতে ধুয়ে যাচ্ছে রক্ত।বিশ্বাস কর,আমি বেচে থাকার শেষ চেষ্টা টুকু করতাম।
কিন্তু না।এই রকম হবে না।আমার অর্ধ মৃত লাশ পড়বে ভাড়া খাটা ট্যাক্সীর সামনে।ট্যাক্সী চালকের ব্যাস্ততায় গাড়ীর চাকা পিষে ফেলবে আমার হৃদপিন্ড।ট্যাক্সী চালককে বাসায় ফিরতে হবে।তার প্রিয় মানুষ টা তার জন্য খাবার সাজিয়ে বসে আছে।জীবন যুদ্ধে পরাজিত একজন মানুষের লাশের প্রতি তার ভ্রুক্ষেপ না থাকাই স্বাভাবিক।

৮ thoughts on “আমি পাখি হব

  1. জীবন যুদ্ধে পরাজিত একজন

    জীবন যুদ্ধে পরাজিত একজন মানুষের লাশের প্রতি তার ভ্রুক্ষেপ না থাকাই স্বাভাবিক।

    এই লাইন টা :salute: -যোগ্য!!
    তবে সুন্দর একটা গল্প হতে পারত!! জাস্ট ফেসবুকীয় স্ট্যাটাস টাইপ লিখনিতে থিমটি নষ্ট হল… সময় নিয়ে লিখতে থাকুন!! ভাল কিছু হবে… :অপেক্ষায়আছি: :অপেক্ষায়আছি: :অপেক্ষায়আছি:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *