মধ্যবিত্ত

এই মধ্যবিত্ত জীবনটা বেশ ভালই লাগে। অনেক ইচ্ছা,অনেক আশা,অনেক চাওয়া আর অল্প কিছু পাওয়া তারপরেও সেই অল্প পাওয়াতেই অনেক আনন্দ।
যখন দেখি পাশের কেউ বেশ মূল্যবান কিছু খাচ্ছে তখন মনে হয় একদিন আমিও খাবো। আবার কেউ ভালো কোন মোবাইল সেট চালাইলে আমার মনে হয় একদিন আমিও আই-ফোন চালাবো। প্রতি সপ্তাহে মা যখন হাত খরচের টাকা দেই,তখন যদি দেখি ২০-৩০ টাকা বেশি দিছে, এক অপরিমেয় আনন্দের অনুভূতি হয়। সেই আনন্দের সাথে আমরা ছাড়া আর কেউ পরিচিত হবেও না।মাঝে মাঝে বাস ভাড়া দেওয়া লাগবে না শুনলে এইরকম আনন্দ হয়।

এই মধ্যবিত্ত জীবনটা বেশ ভালই লাগে। অনেক ইচ্ছা,অনেক আশা,অনেক চাওয়া আর অল্প কিছু পাওয়া তারপরেও সেই অল্প পাওয়াতেই অনেক আনন্দ।
যখন দেখি পাশের কেউ বেশ মূল্যবান কিছু খাচ্ছে তখন মনে হয় একদিন আমিও খাবো। আবার কেউ ভালো কোন মোবাইল সেট চালাইলে আমার মনে হয় একদিন আমিও আই-ফোন চালাবো। প্রতি সপ্তাহে মা যখন হাত খরচের টাকা দেই,তখন যদি দেখি ২০-৩০ টাকা বেশি দিছে, এক অপরিমেয় আনন্দের অনুভূতি হয়। সেই আনন্দের সাথে আমরা ছাড়া আর কেউ পরিচিত হবেও না।মাঝে মাঝে বাস ভাড়া দেওয়া লাগবে না শুনলে এইরকম আনন্দ হয়।
আসলেই মধ্যবিত্ত জীবনটাই সবচেয়ে সেরা। বড়লোক হয়ে জীবনের আসল আনন্দ টের পাওয়া যায় না আর দরিদ্ররা তো জীবন কি বুঝতে বুঝতেই তাদের জীবন ক্রান্তিলগ্নে এসে পরে,তারা আর জীবনের আনন্দটা বুঝতে পারে না। মধ্যবিত্তের হয়ে স্বপ্ন দেখাটাও অন্যরকম এক আনন্দ।

১৪ thoughts on “মধ্যবিত্ত

  1. আনন্দগুলো আনন্দ নয়। কোন কোন
    আনন্দগুলো আনন্দ নয়। কোন কোন সময় কষ্টগুলোই আনন্দের মনে হয়।

  2. আসলেই এই মধ্যবিত্তই যথার্থ
    আসলেই এই মধ্যবিত্তই যথার্থ দর্শক
    আর সে জন্যেই দর্শনের সব হাহাকার ও আসে মধ্যবিত্ত থেকে!!
    আমরা দুই কুলই দেখি পরম মমতা আর লালসাভরে…
    আর তাই ক্রমাগত হাহাকার করি!!
    ভালই লিখেছেন… আরও শক্তিশালী হতে পারত…

  3. মধ্যবিত্তের আগের সেই সংজ্ঞা
    মধ্যবিত্তের আগের সেই সংজ্ঞা পাল্টে গেছে। এখন মধ্যবিত্ত মানেই আত্মকেদ্রিক স্বার্থপর।

    1. মানলাম না আতিক ভাই।
      মানলাম না আতিক ভাই। মধ্যবিত্তরা সবচেয়ে প্যাঁচের মাঝে পড়ে আর সবচেয়ে অভিজ্ঞ জীবন যাপন করে।

      দুনিয়ায় সবচেয়ে খারাপ হচ্ছে মধ্যবিত্ত পরিবার, না পারে রিকশায় উঠতে না পারে রিকশা চালাতে….– An Antilogic Person

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *