চাই এক বর্গমাইল ‘তুই’

প্রতিবার দুটি পথের বাকা লেন ধরে হাটছিস,
বড্ড একগুয়ে তো তুই!
কাজলে ঢেকে দৃষ্টির উপর থেকে ঐ কালো পর্দা সরিয়ে নে,
আড়চোখেই হোক, তাও একবার মন ফিরিয়ে
তোর জন্য প্রবল ঘৃনার আগুনে জ্বলা লাল চোখ ভাবছিস?
আড়ষ্ট দৃষ্টে দেখ, এ রক্তচক্ষু আমার ক্ষোভের না …



প্রতিবার দুটি পথের বাকা লেন ধরে হাটছিস,
বড্ড একগুয়ে তো তুই!
কাজলে ঢেকে দৃষ্টির উপর থেকে ঐ কালো পর্দা সরিয়ে নে,
আড়চোখেই হোক, তাও একবার মন ফিরিয়ে
তোর জন্য প্রবল ঘৃনার আগুনে জ্বলা লাল চোখ ভাবছিস?
আড়ষ্ট দৃষ্টে দেখ, এ রক্তচক্ষু আমার ক্ষোভের না …

“দিনভর তোকে বুকে আগলে রাখতে চেয়েছি,
ঝিঝির কোরাসে কোমল চিবুকে শুধুমাত্রই আমার স্পর্শ,
স্পর্শ গন্তব্য খুঁজতে গিয়েও ফিরে আসে প্রবল বাঁধায়,
থেমে যায় শক্ত মুঠির বন্ধনে।
দুটি পথকে এক করে দুজনার এক পথে পা বাড়াবো।
আচ্ছা, তখনও কি তোর হাতে চায়ের পেয়ালা থাকবে?
একাকীত্বের চা যেন একটু বেশিই ভালোবাসিস!”

রাতভোর এই স্বপ্ন সমুদ্রে ভেসে ভেসে,
কত তারার সাথে যে গল্প করেছি তোকে নিয়ে,
একরোখা হাসির জেদে বাকাই রয়ে যায় চিবুকটা,
তবুও ভাঙ্গা পেন্সিলে অসংখ্যবার তোর স্কেচ এঁকেই তো চোখে রক্ত নামিয়েছি!
ভালো দেখছিওনা আর, কেমন যেন আবছা কালো ছায়া …
আর তুই ভাবিস এসবই আমার অভিশাপ!
আমি ঘৃনা চাইনা, মৃত্যু চাইনা,
চাই শুধুই আমৃত্যু তোর শিরা কাঁপিয়ে যাওয়া স্পর্শের অনুভূতি
আর এক বর্গমাইল ‘তুই’
মনটা আমার একদমই বুঝিস না …!

১৭-০৪-২০১৩

© সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত

১৩ thoughts on “চাই এক বর্গমাইল ‘তুই’

    1. আমার এক বর্গমাইল তুই লাগবোনা,
      আমার এক বর্গমাইল তুই লাগবোনা, কয়েক ইঞ্চি জমি চাই, সেখানে স্বপ্নের চাষাবাদ করবো ।

  1. ইষ্টিশন এ বেশ বড় মাপ এর কবি
    ইষ্টিশন এ বেশ বড় মাপ এর কবি পেলাম । ভাই চালিয়ে যান । অনেক ভাল লেখেন আপনি । আপনার কবিতার ফ্যান হয়ে গেলাম । 😀

    1. লজ্জা দিবেন না ভাই। কবি না
      লজ্জা দিবেন না ভাই। কবি না আমি, রেগুলার কিছু লিখিও না। মাঝে মাঝে মনের আবোল-তাবোল কথাগুলাই লিখে ফেলি। কেমন হয় তার কোনো ধারনা নেই। হাহা …অনেক ধন্যবাদ
      :ফুল:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *