লাইক কমেন্ট কমে যাওয়ার ভয়েই কি ইমরানের বিরুদ্ধে কথা বলেন না আপনারা?

ফেসবুকে যারা ৭১ এর চেতনা প্রতিষ্ঠা করার কাজে নিয়োজিত আছেন এবং নিজেকে বঙ্গবন্ধু’র সৈনিক বলে দাবী করছেন তাদের প্রতি কিছু বলার প্রয়োজনবোধ করছি। বাঁশ তো সবাইকেই দেই। তাই আনিস রায়হান আমাকে বলেছিল যে, আমি নাকি শুয়োর। সবকিছুতেই মুখ লাগাতে চাই। হুম, টাইটেল টা খারাপ না। তবে যা কিছু আমার চোখে খারাপ লাগে, সেটা নিয়েই আমি বলতে চাই। আজীবন বলেছি, বলছি, বলবো।


ফেসবুকে যারা ৭১ এর চেতনা প্রতিষ্ঠা করার কাজে নিয়োজিত আছেন এবং নিজেকে বঙ্গবন্ধু’র সৈনিক বলে দাবী করছেন তাদের প্রতি কিছু বলার প্রয়োজনবোধ করছি। বাঁশ তো সবাইকেই দেই। তাই আনিস রায়হান আমাকে বলেছিল যে, আমি নাকি শুয়োর। সবকিছুতেই মুখ লাগাতে চাই। হুম, টাইটেল টা খারাপ না। তবে যা কিছু আমার চোখে খারাপ লাগে, সেটা নিয়েই আমি বলতে চাই। আজীবন বলেছি, বলছি, বলবো।

আমার অনেক ফেসবুক ফ্রেন্ড আছে, যারা অনেক জনপ্রিয়। তাদের সাথে আমার ধ্যান ধারণার অনেক মিল। তাদের সাথে মিল আমাদের লক্ষ্যের, আমাদের উদ্দেশ্যের। মিল অনেক কিছুতেই। আমার সেই জনপ্রিয় বন্ধুরা যদি একটা স্ট্যাটাস দেয়, “Hello” … সেখানে ও লাইক পড়ে কয়েক মিনিটে শতাধিক। মেয়ে বন্ধুদের বেলায় আরো বেশী। তারা মুক্তিযুদ্ধের #ইতিহাস নিয়ে পোষ্ট দিলে লাইকের সংখ্যা আরো বেশী। আম্লীগের সমালোচনা করলে গড় লাইক পড়ে। তারা বিভিন্ন আলাপ-চারিতায় ইমরানের বিরুদ্ধে যে তাদের অবস্থান, সেটা প্রকাশ করে। কিন্তু মজার বিষয় হলো, তারা কখনো ইমরানের বিরুদ্ধে কোন পোষ্ট করে না। ঠিক সয়ে যাওয়ার মানসিকতা। কিন্তু আমার প্রশ্ন এই সয়ে যাওয়া আর কতো দিন? ইমরান কে? এই মঞ্চ প্রতিষ্ঠা বা প্রথমদিনের আন্দোলনের জনক কি ইমরান ছিল? কারা শ্লোগান ধরেছিল? কারা রাস্তা আটকে বেরিক্যাড দিয়েছিল? জনতা কি তা জানে না? শুধুমাত্র মিডিয়ার সাথে কথা বলার জন্যই ইমরান কে বলা হয়েছিল। এই আন্দোলনের জন্ম যারা দিয়েছেন, তারা আজ কেউ নেই ইমরানের পাশে। কিন্তু কেন? এসব বিষয়ের উত্তর আমার বন্ধুরা জানে। কিন্তু সবাই চুপ।

ধর্মভিত্তিক রাজনীতি নিষিদ্ধের দাবী তুলেছিল মঞ্চ। যদি ও মাঝখানে সেটা স্তিমিত হয়েছিল। আবার ময়মনসিংহে তারা যখন মহা সমাবেশ করতে চাইলো, তখন ও সি পুরনো দাবী তুললো। আমরা সেই সমাবেশ হতে দেইনি। যাই হোক, জয় বঙ্গবন্ধু বলতে তাদের লজ্জা। তারাই আবার ৭২ এর সংবিধানে ফিরতে চায়। হাস্যকর। বাস্তবতার প্রেক্ষিতে যেখানে শেখ হাসিনা ৭২ এর সংবিধানে অবিকলভাবে ফিরে যেতে পারেনি, সেখানে ইমরান বলছে ধর্মভিত্তিক রাজনৈতিক দল আইন করে নিষিদ্ধ করতে। তার কি বয়স হয়নি যে, এই মুহুর্তে এমন করা সম্ভব না। তারপর ও কেন সে এমন করলো? আর কেনই বা সে আওয়ামী বিরোধী অবস্থান নিয়েছে? আমার জ্ঞানী বন্ধুদের কাছে আমি শুধু জিজ্ঞাসা করতে চাই, আপনারা কেন এসব নিয়ে ফেসবুকে স্ট্যাটাস দিচ্ছেন না? আর কেনই বা প্রশ্ন তুলছেন না মঞ্চ নিয়ে যে ব্যবসা হয়েছে সেই বিষয়ে। হেফাজতের কার্যকারিতা শুরু করলো কবে থেকে হেফাজত? খাসীরা কেন মঞ্চে ছিল? এসব কি আপনাদের মনে প্রশ্ন আসে না?

ইমরান কে সেভ করার জন্য আপনারা ডাক্তার আইজু কে ও ছাগু বলে গালি দিচ্ছেন। আমাকে তো কতো কিছুই বললো ঐ চেতনা ব্যবসায়ী রা। এমন কি ময়মনসিংহের লোক দিয়েই নাকি আমার চিকিৎসা করাবে এমন হুমকী ও দিল। ইমরান দিল ব্লক, অন্যান্য শাহবাগী নেতারা করলো আনফ্রেন্ড। কেউ বললো ছাগু। কেউ বা ছুপা ছাগু। অনেক ফ্রেন্ড করলো আনফ্রেন্ড।

আমার এসবে কিছু যায় না, আসে ও না। আমার কাছে যা সত্য সেটা আমি প্রকাশ করবো। আমার মনে সংশয় থাকলে তা আমি জানতে চাইবো। কিন্তু আপনারা? ভেতরে ভেতরে আপনারা ও আমার মতোই। কিন্তু বলছেন না। প্রকাশ্যে বলতে কীসের ভয়? অনেক অনুসন্ধানে অবশেষে জানতে পারলাম যে, কোন এক পীরের হুকুম নেই সরাসরি ইমরানের বিরুদ্ধে অবস্থান নেয়ার। তাতে বিপদ হবে। ছাগু ট্যাগ লাওবে। ফলোয়ারের সংখ্যা কমবে। কমবে লাইক কমেন্টের সংখ্যা। সম্ভাবনাময় ফেসবুক সেলিব্রিটি হতে সেটা অবশ্য অনেক বড় একটা বাঁধা।

৩৯ thoughts on “লাইক কমেন্ট কমে যাওয়ার ভয়েই কি ইমরানের বিরুদ্ধে কথা বলেন না আপনারা?

  1. ভাই হুদা কাম এ এত পোস্ট
    ভাই হুদা কাম এ এত পোস্ট দিতাছেন কিল্লায়? !!!!! ইষ্টিশন বিধি তো লঙ্ঘন করছেন তার পাশাপাশি আপনার ২ টা পোস্ট-ই ব্যক্তিগত আক্রমন ভিত্তিক । আপনার ইষ্টিশন এ টিকিট কাটাটা উদ্দেশ্যপ্রণোদিত মনে হচ্ছে । লেঞ্জা ইজ ভেরি ডিফিকাল্ট থিঙ্ক টু হাইড ।
    আর লাইক কমেন্ট এর আশা ব্লগার রা করে নাহ আমার মনে হইতাছে – আপনি এরকম পোস্ট এর মাধ্যমে সস্তা খ্যাতি অর্জন করতে চাচ্ছেন । !!!

  2. আবারো ইষ্টিশন মাস্টার এর
    আবারো ইষ্টিশন মাস্টার এর দৃষ্টি আকর্ষণ করছি । ফেসবুক থেকে কমেন্ট লক্ষ করুন । অশ্লীলতা এবং তার উদ্দেশ্য প্রণোদিত এমন ফ্রিকোয়েনট আক্রমন ভিত্তিক পোস্ট গুলা ইষ্টিশন এর সার্বিক ব্লগিং পরিবেশ কে বিনষ্ট করবে । ব্যাবহার কারী সম্পর্কে একটু হস্তক্ষেপ চাচ্ছি ইষ্টিশন মাস্টার এর

      1. হ- ড্যাশ মারিলেই হেইডা
        হ- ড্যাশ মারিলেই হেইডা আপ্নাগর কাছে শ্লীল হইয়া যায় !!পোস্ট এর লেখক নিজেই নিজের পোস্ট এ কমেন্ট মারে ফেবু থেইকা !! উদ্দেশ্য – সবাইরে জানানোর ইচ্ছা!! !!! আর আপনি এত কিছ বাদ রাইখা একটা কথা লইয়া এক এর অধিক ২ ডা কমেন্ট দেহি মারেন !!!! বেফুক বিনুদুন তো। । :শয়তান: :শয়তান:

        1. আফনে দুইডা কমেন্টাইলেন কেন?
          আফনে দুইডা কমেন্টাইলেন কেন? আমি তু আমনের কমেন্টের রিল্পাই দিছি। আমনে তো দেহা যায় খাসীউ বিনুদনের মূর্ত প্রতিক। আমনে একটা চুল।

          1. আর তুমি আমার বাট এর পেছনে
            আর তুমি আমার বাট এর পেছনে লাগছ কেন? আমি কিন্তু ___ না। খাসীদের কাছে যেতে পার।

          2. মুখ খোলাইতে বাধ্য করলেন ।
            মুখ খোলাইতে বাধ্য করলেন । আবাল **** [মডারেটেড] মত কথা কস কিল্লায় !!! আমি রিপ্লায় দিছি দিয়াশলায় এর কাঠি রে । আর তুই চদনার লাহান নিজের মনে কইরা ফাল পারতাছুস !!! আর হালায় আমি তোর পিছে লাগ্মু কেন !!! তোর পিছে কি রেডিসন এর ম*** সিল ঝুলতাছে !!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!

          3. মোশফেক ভাই, মাথা ঠাণ্ডা
            মোশফেক ভাই, মাথা ঠাণ্ডা রাখেন। অসভ্যরা যা খুশী করতে পারে, তাদের সাথে তাল মেলানো কাজের কথা নয়।

          4. আতিক ভাইয়ের সাথে সহমত।আপনি
            আতিক ভাইয়ের সাথে সহমত।আপনি ঠান্ডা মাথায় অনেক ভাল যুক্তি দিতে পারবেন।অন্তত আমার বিশ্বাস

          5. মোশফেক, ***[মডারেটেড]? এটা
            মোশফেক, ***[মডারেটেড]? এটা কেমন শব্দ? ছিঃ তোমার মা – বাবা কি এসব শেখায় তোমাকে প্র্যাক্টিক্যাল ক্লাসের মতো করে? ***[মডারেটেড]? হা হা হা … এসব কি তোদের ফ্যামিলিতে উচ্চারণ করা হয়?

  3. দুই দিনের বৈরাগী মনে হইতেছে।
    দুই দিনের বৈরাগী মনে হইতেছে। ইমরান এইচ সরকারকে সমালোচনা করে ইস্টিশনব্লগে অনেকবার পোস্ট আসছে। আর কমিউনিটি ব্লগের মানে বুঝেন? ব্লগে পোস্ট কি ব্লগের এডমিনরা দেয়? ফাউল ক্যাচাল করার জন্য ফেসবুক আছে। ওইখানে যান। ইস্টিশন মাস্টারের প্রতি দাবী, অহেতুক ক্যাচাল করার উদ্দেশ্য নিয়ে খোলা এই নিকটি ব্যান করা হোক।

    1. হা হা হা … ফেসবুকে যেয়ে দেখ
      হা হা হা … ফেসবুকে যেয়ে দেখ কয়দিনের বৈরাগী। বৈরাগী তো আপনি। কি ভাবেন নিজেরে? ক্যাচালের কি? যদি হেডায় জোর থাকে আমার পোষ্টের কোন পয়েন্ট ভুল সেটা বলেন। জানি হেডায় জোর থাকে না খাসীদের। আর শোনেন, ইমরান কে বইলেন ময়মনসিংহে সমাবেশ কেন করতে পারেনি। তাহলেই ইমরান আমার পরিচয় জানবে। সমাবেশ এর আগের দিন সমাবেশ বন্ধ হয়েছে। তবু ও সেটা রাতের বেলা। বাঁধন কে ও জিজ্ঞাসা করেন। সমস্যা নাই। কোন চেতনা ব্যবসায়ীদের জায়গা ময়মনসিংহে হয়নি। আর আপনার মতো অমুক কে আমি ঐটার সাথে বাইন্ধা রাখি।

      1. ইমরানের চামচামি আমি করিনা,
        ইমরানের চামচামি আমি করিনা, সেটা যারা আমার ফেসবুক লিস্টে আছে ভালো করেই জানে। আমি আপনার ব্লগিং এর উদ্দেশ্য নিয়ে প্রশ্ন তুলছি। আপনি এখানে নিক খুলছেনই ক্যাচাল করার জন্য।

        আর আপনার মতো অমুক কে আমি ঐটার সাথে বাইন্ধা রাখি।

        আপনার মতো গালিবাজ আম্বার কাছ থেকে এরচে বেশী কি আশা করা যায়।

  4. ভাই এটা ময়মনসিং বা ফেসবুক না,
    ভাই এটা ময়মনসিং বা ফেসবুক না, ইষ্টিশন ব্লগ। এসেই তো ক্যাচাল বাঁধাচ্ছেন! অবশ্য উদ্দেশ্য তেমনি মনে হচ্ছে।

  5. নিকটি ব্যানের আবেদন জানিয়ে
    নিকটি ব্যানের আবেদন জানিয়ে গেলাম। তার উদ্দেশ্য পরিষ্কার- ইস্টিশনের পরিবেশ নষ্ট করা।

  6. এত চিল্লাইতে হইলে ম​য়মনসিংহে
    এত চিল্লাইতে হইলে ম​য়মনসিংহে চিল্লান। না পারলে ঘাস খান। ইস্টিশন ফাও ক্যাচাল এর যায়গা না। এইসব ফাও ক্যাচাল এর জন্য এক কাজ করেন। ইমরান ভাই আর আপনি নিজেরা কুস্তি লড়ে সেটা সমাধান করেন। উদ্দ্যেশ্যপ্রনোদিত ভাবে নিক খুলে জ্বালাতন না করে একটু নিজের গুহামানব সাইজ এর মস্তিষ্কটুকুটাকে বিশ্রাম দেন।

    1. ……মডারেটেড।
      ————-

      ……মডারেটেড।

      ————————————

      সহব্লগারদের প্রতি অশ্লীল শব্দ প্রয়োগের জন্য আপনাকে সতর্ক করা হচ্ছে।

      —ইস্টিশন কর্তৃপক্ষ

      1. আমি নাস্তিক না। আমি আপনার
        আমি নাস্তিক না। আমি আপনার কথার প্রতিবাদ ভদ্র ভাষায় করেছি। আপনি যে কমেন্ট করেছেন তাতে ইভটিজিং মামলা করা যায় আপনার নামে জানেন?

        1. আপনার কমেন্টে কুস্তি লড়ে বলে
          আপনার কমেন্টে কুস্তি লড়ে বলে একোটা শব্দ আছে। কুস্তি লড়ার সময় হাফ নেংটা হতে হয়। এরপর মারামারি। ইসলাম এসব কে সমর্থন করে না। আপনি অনৈসলামিক কাজ করার কথা বলবেন আমাকে, আর আমি কিছু বললেই দোষ? আপনি একটা এ্যাডাম টিজার। আমাকে হাফ উলঙ্গ দেখতে চাচ্ছেন আমাকে দিয়ে কুস্তি করানোর নামে।

  7. ব্লগ দুনিয়ায় স্লো স্প্যামিং
    ব্লগ দুনিয়ায় স্লো স্প্যামিং বলে একটা কথা আছে। স্প্যামিং ও ব্যক্তিগত আক্রমনের মাধ্যমে ব্লগে অস্থিতিশীল পরিবেশ তৈরী করা এবং ব্যক্তিস্বার্থ সংশ্লিষ্ট যে কোন ধরনের এজেন্ডাভিত্তিক ব্লগিং এর বিষয়ে ইস্টিশন জিরো টলারেন্স দেখাবে। এ বিষয়ে আপনাকে সতর্ক করা হল। মডারেশস প্যানেলের পক্ষ থেকে আপনার উপর কড়া নজর রাখা হল।

    ইস্টিশনের সকল সম্মানিত যাত্রীর দৃষ্টি আকর্ষনপূর্বক জানানো হচ্ছে, ইস্টিশন ব্লগ সম্পূর্ন গালাগালিমুক্ত একটি কমিউনিটি ব্লগ। কোন যাত্রী কর্তৃক গালাগালি জাতীয় কর্মকান্ড ইস্টিশনের মডারেশন প্যানেল কর্তৃক দৃষ্টিগোচর হলে কোন ধরনের নোটিশ ছাড়াই ব্যান করা হবে।

    1. আমি যা বলেছি ভদ্র ভাষায়
      আমি যা বলেছি ভদ্র ভাষায় বলেছি। আমাকে এত বাজে ভাষায় আক্রমনের বিচার চাই। এটা সরাসরি ইভটিজিং।

      1. ইসলামে ধর্ম মতে ্মানুষ ই
        ইসলামে ধর্ম মতে ্মানুষ ই শয়তান নন। আপনি একজন ধর্মদ্রোহী’র মতো কথা বলছেন। আসলে ইষ্টিশনে এসব থাকবেই। স্বাভাবিক।

  8. ভাই,আন্নের ক্ষুভ কিয়ে হেডাই
    ভাই,আন্নের ক্ষুভ কিয়ে হেডাই তো বুঝবার পারলাম না…যাই হোক অনেক খাউজ্জাইসেন…আলা একডা ফাও সাজেসন লন.…খুবই দ্রুত গতিতে এবং স্বেচ্ছায় বাইর হইয়া যান…নাইলে ‘ছোট বাবার দোয়া’ দিয়া বাইর করা হবে.…তহন কিন্তু ফাঁক পাইতেন না…

    1. ছোট বাবা’র দোয়া? আপনাদের আছে
      ছোট বাবা’র দোয়া? আপনাদের আছে নাই। সব তো শুনলাম খাসী।
      এ্যাডমিন কে বলছি, “ছোট বাবা” বলা টা কি ইষ্টিশোনে জায়েজ? যদি হয়, তবে প্রসন কে খাসী বলা টা ও জায়েজ।

  9. এই ইমোখানি দেওয়ার সুযোগ কইরা
    :তুইরাজাকার:
    এই ইমোখানি দেওয়ার সুযোগ কইরা দিবার জন্য আপনারে :ধইন্যাপাতা: ভাইডি :বুখেআয়বাবুল:

  10. জামান পায়েল, আপনার সমস্যাটা
    জামান পায়েল, আপনার সমস্যাটা ঠিক কোন জায়গায় বলবেন? আপনার ফেসবুক প্রোফাইল ঘুরে এসেও দেখলাম এখানে ব্লগিং করার উদ্দেশ্যই হচ্ছে ক্যাচাল লাগানো। আপনার সাথে ফেসবুকে কার কি ক্যাচাল লাগছে সেটা নিয়ে আপনি ব্লগের পরিবেশ নোংরা করবেন কেন?
    আপনার প্রথম পোস্টের প্রচুর গালি ছিল। সেটা নিয়ে আপত্তি জানিয়েছি। আপনার এই পোস্ট নিয়ে আমার তেমন কোন আপত্তি নেই। ইমরান এইচ সরকার ফেরেশতা হয়ে যায় নাই যে তার সমালোচনা করা যাবে না। কিন্তু মন্তব্য অংশে এসে আপনি গালাগালি শুরু করলেন। আপনি যদি মনে করে বসেই থাকেন এখানে সবাই “খাসি”, আপনার সেই মনে করায় তা হয়ে যায় না। আপনার যদি এখানকার পরিবেশ ভালো না লাগে আপনাকে তো কেউ পায়ে ধরে ব্লগিং করতে বলছে না। আর আপনি যদি গালাগালি না দিয়ে ব্লগিং করতে না পারেন, তাহলে এমন অনেক ব্লগ আছে যেখানে গালাগালি দিলেও সমাদর করা হয়, সেখানে ব্লগিং করুন। আপনার ফেসবুক বন্ধু নাজীব আলমের মন্তব্যটা পড়েন এই পোস্টে
    এই মন্তব্যটা আপনাকে প্রভোক করার জন্য দেইনি, জাস্ট আপনাকে চিন্তা করার জন্য দিলাম।

  11. প্রথমত আপনি ইষ্টিশন বিধি
    প্রথমত আপনি ইষ্টিশন বিধি লঙ্ঘন করেছেন।আর আপনি কি মনে করেন?দুইটা গালি মারলেই সব ঠিক।আরে তাইলে তো আমার সামনেই আপনি দাড়াতে পারবেন না।এটা গালির জায়গা না।তাই চুপ থাকলাম

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *