ভ্রান্তি

তোমার হাত আর ধরবোনা।
রাখবোনা, জোছনাময়ী চাঁদের অনুরোধ।
তোমার কান্না শেষে চোখ মুছে দেবোনা
রাখবোনা, বালিশের অনুরোধ।
যে আমাকে দেখছো, সে আমি-
তোমার আমি নই, ভ্রান্তিতে পড়োনা…
জলের ছায়ায় জল দেখেছো কখনো?
তোমার ছায়ায় তাই,আমাকে আর খোঁজোনা।



তোমার হাত আর ধরবোনা।
রাখবোনা, জোছনাময়ী চাঁদের অনুরোধ।
তোমার কান্না শেষে চোখ মুছে দেবোনা
রাখবোনা, বালিশের অনুরোধ।
যে আমাকে দেখছো, সে আমি-
তোমার আমি নই, ভ্রান্তিতে পড়োনা…
জলের ছায়ায় জল দেখেছো কখনো?
তোমার ছায়ায় তাই,আমাকে আর খোঁজোনা।

তোমার চোখে দৃষ্টি ছুইয়ে দেবোনা।
রাখবোনা, তারাদের অনুরোধ।
তোমার কোঁকড়া চুলে আর হাত বুলাবোনা।
রাখবোনা, পিঙ্গল-কেশীর অনুরোধ।
যে আমাকে দেখছো, সে আমি-
ধূসর আকাশের ছবি,ভ্রান্তিতে পড়োনা…
ধূসর আকাশে, নীল দেখেছো কখনো?
আমার চোখের আকাশে তাই, নীল আর খোঁজোনা।

তোমার সামনে আর দাড়াবোনা।
রাখবোনা, ধবল বকের অনুরোধ।
পেছন থেকে ডাকলেও আর শুনবোনা
পারবোনা রাখতে, হাতছানির অনুরোধ।
যে আমাকে দেখছো, সে আমি-
খসে যাওয়া তারার গতি,ভ্রান্তিতে পড়োনা…
খসে যাওয়া তারার কাছে, কিছু পেয়েছো কখনো?
আমার গতিপথে তাই, মায়া হয়ে দাড়িয়োনা।

৮ thoughts on “ভ্রান্তি

  1. তুমি আমি প্রেমের কবিতার
    তুমি আমি প্রেমের কবিতার চেষ্টা তবে,
    কাব্যের দিকে নজর দিলে ভাল হবে ছন্দের দিকে না দিয়ে!!
    সিম্পল প্রেমের কবিতা হয়ে উঠতে উঠতেও হল না…
    দুঃখিত একটু কড়া কথা বলার জন্যে!!
    তবে লিখতে থাকলে ভাল কিছু পেতে পারি…

  2. উপরে সবাই অনেক কিছু বলে
    উপরে সবাই অনেক কিছু বলে দিয়েছেন। আমি একটা যোগ করি। কিছু বানান ভুল আছে। কেন জানিনা, কবিদের বানান ভুল ঠিক মেনে নিতে কষ্ট হয়। শুভকামনা অমিত। :ফুল:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *