Sad Movie (2005) বিঃদ্রঃ ইহা একটি রুচি পরিবর্তনকারী সিনামা। অবশ্যই আপনাদের না, আমার। কারণ এর আগেই দেখছিলাম “৮০ কি-২”

কোরিয়ান মুভি একসাথে মানে টানা দেখা যায় না। এত কষ্টের সিনামা দেখলে মনে হইবো সারা দুনিয়ায় মানুষ খালি কষ্টের মধ্যেই আছে। কেউ সুখি না। এই কারণে মাঝে বেশ কয়েকদিন গ্যাপ দিয়া দেখতে হয়। আমার ক্ষেত্রে আপাতত এই সমস্যাই হয়। অন্যদের ক্ষেত্রে অর্থনৈতিক ক্ষতি হওয়ার সম্ভাবনাও প্রকট। কারণ যারা “৮০ কি -২” দেইখ্যা নাকের পানি চোখের পানি এক কইরালছে তারা কোরিয়ান সিনামা দেখলে আমি নিজেই একটা টিস্যুর কোম্পানী খুইল্লা বইলে বেশ লাভজনক ব্যাবসা হইবো এই ব্যাপারে কোনই সন্দেহের অবকাশ নাই। টিস্যুর কোম্পানী খুললে নাম ও ঠিক কইরা ফালাইছিলাম। তবে এখন মনে নাই। সিনামা দেখার সময়ে মাথায় আইছিল এই আইডিয়া।


কোরিয়ান মুভি একসাথে মানে টানা দেখা যায় না। এত কষ্টের সিনামা দেখলে মনে হইবো সারা দুনিয়ায় মানুষ খালি কষ্টের মধ্যেই আছে। কেউ সুখি না। এই কারণে মাঝে বেশ কয়েকদিন গ্যাপ দিয়া দেখতে হয়। আমার ক্ষেত্রে আপাতত এই সমস্যাই হয়। অন্যদের ক্ষেত্রে অর্থনৈতিক ক্ষতি হওয়ার সম্ভাবনাও প্রকট। কারণ যারা “৮০ কি -২” দেইখ্যা নাকের পানি চোখের পানি এক কইরালছে তারা কোরিয়ান সিনামা দেখলে আমি নিজেই একটা টিস্যুর কোম্পানী খুইল্লা বইলে বেশ লাভজনক ব্যাবসা হইবো এই ব্যাপারে কোনই সন্দেহের অবকাশ নাই। টিস্যুর কোম্পানী খুললে নাম ও ঠিক কইরা ফালাইছিলাম। তবে এখন মনে নাই। সিনামা দেখার সময়ে মাথায় আইছিল এই আইডিয়া।

এইতো কিছুদিন আগে “৮০ কি -২” নিয়া মাতামাতি কইরা পুলাপাইন কান ঝালাপালা কইরা দিছিল। এরা কেন কোরিয়ান সিনামা দেখেনা এই ব্যাপারটা এখনো মাথায় ঢুকে না আমার। তাইলে ফালতু কাহিনী নিয়া সিনামা দেইখা গালাগালি করতো। “তুমি শুন্তাছ, আমি কান্তাছি” টাইপের গানের ঠ্যালায় যেই সিনামা হিট খায় সেই সিনামায় কাহিনী আর কি থাকতে পারে?? যাউকগা “৮০ কি-২” এর প্রেমিক ও প্রেমিকা বৃন্দ আপনাদের বিশেষ অবগতির জন্যে জানাচ্ছি যে এই মুভি দেইখা ১ টা কইরা কমেন্ট করেন পিলিইইইইইইইইজ। এই মুভি দেখতে বইছিলাম শুধুই রুচি ঠিক করার জন্যে। সাধারণত বাজে কিছু মুখে গেলে আমরা কি করি?? পানি দিয়া কুলি কইরা অন্য কিছু একটা মুখে দিয়া রুচি ফিরাইয়া নিয়া আসি। “৮০ কি -২” দেখার পরে এইটা দেখতে বসা হইলো সেই একই কারণে।

কোরিয়ান সিনামাতে রোম্যান্টিকতা, বেশিরভাগ ক্ষেত্রে এই ব্যাপারটাই চোখে পরে। তারপরেও ৪ টা গল্পও দিয়ে সাজানো সিনেমাটি যথেষ্ট ভাল লাগবে সবার। প্রতিটা গল্পই শুরু হয় আলাদা আলাদা ভাবে, কিন্তু এক জায়গায় এসে মিলে। এই ধরণের আইডিয়া গুলো বেশ ভালো। দর্শক বোর ফিল করার আগেই অন্য গল্পের শুরু হয়ে যায়। সাথে কোরিয়ান আইডিয়া (কেউ পূর্বে কোরিয়ান সিনামা না দেখে থাকলে কোরিয়ান সিনামার আইডিয়া সম্পর্কে ধারণা করা সম্ভব হবে না মনে হয়।) গুলো তো আছেই। কখন যে সময় চলে যায় বোঝাই যায় না। সাধারণত রোম্যান্টিক সিনামা বর্জন করি। কিন্তু কোরিয়ান বাদে বাকি সব বর্জন করতে হবে মনেহয়।

এই সিনেমা শুধুই যে রোম্যান্টিক দিক দিয়েই এগিয়েছে তা নয়। সাথে আরেকটা বেশ আকর্ষণীয় গল্প যুক্ত। ছোট বাচ্চাদের সাথে বাবা মায়ের সম্পর্ককে ঘিরে যেই গল্পটি ছিল সেটাই বেশি আকর্ষণীয় ছিল আমার কাছে। এর সাথে সাথে বাকী গল্প গুলোও কম যায় না কোন অংশেই।

ছোট বাচ্চাটা যথেষ্ট পরিমাণ কিউট। শুধু দেখতেই না, অভিনয়ও অসাধারণ হইছে। কখনো বড় মানুষের মতন, কখনো শিশুসুলভ আচরণ, পুরা সময়েই মুগ্ধ হবে সবাই। সাথে পুতুল সাইজা থাকা মাইয়ার অভিনয় যথেষ্ট ভালো ছিল। এই ধরণের সিনেমাতে কোন মূল চরিত্র থাকে না সাধারণত। প্রায় সব গুলো চরিত্রকে ঘিরেই সিনামার মূল শক্ত ভিত গড়ে তুলতে হয়। সে ক্ষেত্রে সবাইকেই নিজের চরিত্র সুন্দর উপস্থাপন করতে হয় যা সিনেমাটি তে যথেষ্ট ভালো ভাবেই ফুটে উঠেছে।

অসাধারণ ব্যাকগ্রাউন্ড মিউজিক। মুভি দেখার সময় মনে হচ্ছিল ব্যাকগ্রাউন্ড মিউজিকের ট্র্যাক নামাইয়া শুনি। দেখি পাইলে নামাইয়া শুনুম বেশ কয়েক দিন যাবত মাথায় ঘুরতাছে মিউজিক গুলা। সাথে সিনেমাটোগ্রাফি বেশ পছন্দ হইছে আমার। ক্যামেরার বিশেষ কিছু জায়গা অসম্ভব পছন্দ হইছে। সিনেমার শেষ পর্যন্ত সাসপেন্স ক্রিয়েট করবে। এক সময়ে আইসা আমি অন্য কাহিনী ভাবতেছিলাম। আপনারাও তাই ভাববেন আশা করি।

যাহারা লুল মানব এবং মানবী (ল্যুম্যান্টিক ছাড়া আর কিছুই ভাল্লাগে না) তাদের জন্যে মাস্ট ওয়াচ মুভি। এছাড়াও আমার মতন সাধারণ মানুষেরাও দেখতে পারেন। তবে বসার আগে ওইযে প্রথমে যা যা বলছিলাম মনে রাইখেন।

Movie: Sad Movie (2005)
Director: Jong-kwan Kwon
Story: Jong-kwan Kwon
Gener: Family|Romance|Drama|Comedy
Screenplay: Jong-kwan Kwon
Stars: Woo-sung Jung, Su-jeong Lim, Tae-hyun Cha

ডাউনলোড করবেন?? তাইলে http://kickass.to/saedeu-mubi-sad-movie-2005-jong-kwan-kwon-t5644343.html এইখানে দেখেন।

৮ thoughts on “Sad Movie (2005) বিঃদ্রঃ ইহা একটি রুচি পরিবর্তনকারী সিনামা। অবশ্যই আপনাদের না, আমার। কারণ এর আগেই দেখছিলাম “৮০ কি-২”

  1. ভাইরে যেমন লিখছেন না দেইখা
    ভাইরে যেমন লিখছেন না দেইখা উপাইতো পাইতেছি না তবে কবে দেখবো সেইটা কিন্তু বলতে পারবো না

  2. “তুমি শুন্তাছ, আমি কান্তাছি”

    “তুমি শুন্তাছ, আমি কান্তাছি” টাইপের গানের ঠ্যালায় যেই সিনামা হিট খায় সেই সিনামায় কাহিনী আর কি থাকতে পারে?

    :হাহাপগে: :হাহাপগে: :হাহাপগে: :হাহাপগে: :হাহাপগে:

    দেখছি আগে । 🙂

    1. : আমি এই সিনামাও দেখছি
      :মাথাঠুকি: : :মাথাঠুকি: :মাথাঠুকি: আমি এই সিনামাও দেখছি :মাথাঠুকি: :মাথাঠুকি: :মাথাঠুকি:

  3. দেখার আগেই চোখের জলে নাকের
    দেখার আগেই চোখের জলে নাকের জলে এক (না মশাই সর্দি লাগছে। আমারে লুল ভাইব্বেন না)। 😀
    দেখতে হবে। কোরিয়ান মুভির একটা বিরাট ফ্যান ক্লাব গড়ে উঠেছে আশেপাশের মাইনষের মধ্যে। আমি ভাবছিলাম তামিল মুভিরও তো এইরাম বিরাআআআট ফ্যান ক্লাব আছে, সেইরাম কিছু কিনা। এখন মনে হচ্ছে ভিন্ন ব্যাপার স্যাপার। :ভেংচি:

    1. আতিক ভাই আপনে যদি না দেইখা
      আতিক ভাই আপনে যদি না দেইখা থাকেন আগে আমার মতন, তাইলে শুরু করেন

      ১) A Moment To Remember দিয়া। তারপরে ২) এ মিলিওনিয়ার’স ফার্স্ট লাভ তারপরে এইগুলি যা খুশি দেখেন।

      আর কমেডি রোমান্স দেখলে “সেক্স ইজ জিরো” পার্ট ১ আর ২ দুইডাই দেখেন :নৃত্য: হাসতে হাসতে টয়লেট না পাইলে আমি সময় ফিরত দিমুনে 😀

      1. ওকে শুরু করুম। ঢাকায় আইসা
        ওকে শুরু করুম। ঢাকায় আইসা পোলাপাইনরে ফুনাইতে হবে মুভি নেওয়ার জন্য। :শিস:

Leave a Reply to ডাঃ আতিক Cancel reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *