যাচ্ছে তাই!

পনেরো কোটী মানুষের দেশে এগারোটা সাকিব আল হাসান খুঁজে পাওয়া যায় না!
পনেরো কোটি মানুষের দেশে একটা ভাল মানুষের দল খুঁজে পাওয়া যায় না।
পনেরো কোটি মানুষের দেশে একটা উসাইন বোল্ট পাওয়া দায়!
পনেরো কোটি মানুষের দেশে একটা মাহাতির পাওয়া যায় না?
বারে বারে ফিরে আসে শকুনীর দল!
বিদ্যুতের খুটি ব্যবসায়ীরা হাসে দাত কেলিয়ে!
লুট-পাটের প্রমাণ বিদেশের মাটিতে তবুও ন্যাড়া যায় বেল তলাতে।
কনসাটে বিদ্যুতের দাবীতে হতচ্ছাড়া জনতা রাস্তায় দিলি জীবন,
কিন্ত এখন সব ভুলেই শিয়ালের হাতে দিলি মুরগীর যৌবন!
উরুক্ক মাছের হাতে মাংস পড়েছিল কাটা,
সিটি নির্বাচনে তাদের হাতেই তুলে দিলি ঝাঁটা,

পনেরো কোটী মানুষের দেশে এগারোটা সাকিব আল হাসান খুঁজে পাওয়া যায় না!
পনেরো কোটি মানুষের দেশে একটা ভাল মানুষের দল খুঁজে পাওয়া যায় না।
পনেরো কোটি মানুষের দেশে একটা উসাইন বোল্ট পাওয়া দায়!
পনেরো কোটি মানুষের দেশে একটা মাহাতির পাওয়া যায় না?
বারে বারে ফিরে আসে শকুনীর দল!
বিদ্যুতের খুটি ব্যবসায়ীরা হাসে দাত কেলিয়ে!
লুট-পাটের প্রমাণ বিদেশের মাটিতে তবুও ন্যাড়া যায় বেল তলাতে।
কনসাটে বিদ্যুতের দাবীতে হতচ্ছাড়া জনতা রাস্তায় দিলি জীবন,
কিন্ত এখন সব ভুলেই শিয়ালের হাতে দিলি মুরগীর যৌবন!
উরুক্ক মাছের হাতে মাংস পড়েছিল কাটা,
সিটি নির্বাচনে তাদের হাতেই তুলে দিলি ঝাঁটা,
দেবে আবার পশ্চাদদেশে বাড়ি,
আবার হাঁকাবে হামার গাড়ি,
তোর পশ্চাদদেশ আজ অবারিত দ্বার
বারে বারে সেথা হাঁকাবে ছক্কার মার।
তারেক ভাই আর বাংলা ভাই দিবে ইসলামী সবক,
নারায়ণ দা আর রহমতের মা খাবে হুজুরের ধমক,
বোমায় উড়ে যাবে রাষ্ট্রদূতের গাড়ি,
আর দোররায় ঘায় পশ্চাদদেশ লাল হবে ষোড়শী নারীর!
হতচ্ছাড়া বাঙ্গালী! মায়ানমারের কাছে সমুদ্রসীমা জয়ে তোর কি আসে যায়!
কোনো কিছু বেশী দিন ভাল লাগে না!
গনতন্ত্র! হাসির মন্ত্র!
তৃতীয় বিশ্বে মুর্খে পন্ডিতে একঘাটে জল না খেলেও ভোট দেয় একটা করেই!
সেই হল গণতন্ত্র!
সমুদ্রসীমা জয়ের গুরুত্ব আমি বুঝলেও দিনমজুর রহমত মিয়া বুঝে না।
দুর্নীতির দায়ে অভিযুক্ত সাবেক মন্ত্রী এসেছে পিজিতে
চিকিৎসা নিতে, গায়ে ফিনফিনে পাঞ্জাবি
দেখে কয় আমার বউ,- জেলখানাতে এতো এস্তেরী করা ধবধবে
পাঞ্জাবি এরা কই পায়?
আমি বলি, এনারা কামেল আদমি! তুমি যাও- আমি সালাম দিয়া আহি!
বঊ কয়-‘ সালাম দিবা ক্যান? হেই মারছে পাচশো কোটি ট্যাহা!
তুমিতো পাঁচ ট্যাহাও মারো নাই!”
আমি কই, ‘আমার পশ্চাদদেশ অবারিত দ্বার, মারবেই তো!
নেতা গম্ভীরভাবে সালাম নিলেন
লজ্জা পাইলেন বউ।

৩ thoughts on “যাচ্ছে তাই!

  1. আমরা একশবার ভুল করে একবার
    আমরা একশবার ভুল করে একবার শিখি.…তবে এভাবে দুই মেরুর মাঝে না ঘুরে আমাদের কিছু ব্যাতিক্রম ভাবা উচিৎ…না হলে পূর্নাঙ্গ পরিবর্তন সম্ভব নয়.…

  2. নেতা গম্ভীরভাবে সালাম

    নেতা গম্ভীরভাবে সালাম নিলেন
    লজ্জা পাইলেন বউ।


    চমৎকার আইরনি… 😉
    ভালই লাগল… লিখতে থাকুন!!

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *