ডঃ জাকির নায়েক ১ (মৌলবাদি, সন্ত্রাস)

সম্প্রতি ‘Universal Brotherhood’ নামক একটি কনফারেন্সে ডঃ জাকির, তার বক্তিতার অন্তরালে জামাত-শিবিরকে পরোক্ষভাবে সাপোর্ট করলেন বলে আমার বিশ্বাস৷৷ যেমনটা করেছিলেন লাদেনের ক্ষেত্রে, ‘যদি একটি অমুসলিম রাষ্ট্রে ইসলামের প্রকাশ্য শত্রু ধ্বংসের জন্য লাদেন টুইন-টাওয়ার ধ্বংস করে থাকেন তাহলে আমি লাদেনের পক্ষে৷৷’ আমেরিকা ডঃ জাকির কে নিষিদ্ধ ঘোষণা করে৷৷

“অনুষ্ঠানের প্রশ্নোত্তর পর্বে ডঃ জাকির কে প্রশ্ন করা হয়, ‘অধিকাংশ মুসলিম মৌলবাদি এবং সন্ত্রাস হয় কেন??’

সম্প্রতি ‘Universal Brotherhood’ নামক একটি কনফারেন্সে ডঃ জাকির, তার বক্তিতার অন্তরালে জামাত-শিবিরকে পরোক্ষভাবে সাপোর্ট করলেন বলে আমার বিশ্বাস৷৷ যেমনটা করেছিলেন লাদেনের ক্ষেত্রে, ‘যদি একটি অমুসলিম রাষ্ট্রে ইসলামের প্রকাশ্য শত্রু ধ্বংসের জন্য লাদেন টুইন-টাওয়ার ধ্বংস করে থাকেন তাহলে আমি লাদেনের পক্ষে৷৷’ আমেরিকা ডঃ জাকির কে নিষিদ্ধ ঘোষণা করে৷৷

“অনুষ্ঠানের প্রশ্নোত্তর পর্বে ডঃ জাকির কে প্রশ্ন করা হয়, ‘অধিকাংশ মুসলিম মৌলবাদি এবং সন্ত্রাস হয় কেন??’
উত্তরের পক্ষে যুক্তির বন্যা বয়ে দেন জাকির, তিনি অক্সফোর্ড (লেটেস্ট ভার্সন) ডিকশনারি উল্লেখ করে মৌলবাদির অর্থ বলেন, ‘কোন কিছুর মূলনীতি সঠিক ভাবে অর্জন ও পালনই হচ্ছে মৌলবাদি, বিশেষ করে মুসলিম৷৷’ ডক্টর হওয়ার জন্য একজন ব্যক্তিকে ডাক্তারির মূল নিয়ম আয়ত্ত করে তাকে মৌলবাদি হতে হবে, তা না হলে উনি ডাক্তার হতে পারবেন না৷৷ একই ভাবে একজন ইঞ্জিনিয়ার, উকিলকে তাদের স্বস্ব শিক্ষার মূল রীতি যেনে একজন মৌলবাদি হতে হবে, না হলে তারা ব্যর্থ হবেন৷৷ তেমনি একজন মুসলিমকে খাঁটি মুসলিম হওয়ার জন্য ইসলামের মূল রীতি জেনে ও পালন করে মৌলবাদি হতে হবে৷৷ সেক্ষেত্রে আমিও একজন মৌলবাদি, কারন আমি ইসলামের সকল রীতি-নীতি মেনে চলার চেষ্টা করি৷৷ (বিঃদ্রঃ ওনার নামের আগে মোঃ ব্যবহার করেন না)
একজন মুসলিমকে ভালো মুসলিম হওয়ার জন্য তাকে মৌলবাদি হতে হবে!! একজন খ্রীষ্ট্রানকে ভালো খ্রীষ্ট্রান হওয়ার জন্য তাকে মৌলবাদি হতে হবে, একজন হিন্দুকেও ভাল হিন্দু হওয়ার জন্য মৌলবাদি হতে হবে!!

সন্ত্রাস বলতে বুঝেন, সমাজে আতংক সৃষ্টি করা, যারা এটি করে তারাই সন্ত্রাসী৷৷ কোন ব্যক্তিকে দেখে যদি অন্য কোন ব্যক্তি আতংকিত হয় তবে, দ্বিতীয় ব্যক্তির জন্য প্রথম ব্যক্তিটি সন্ত্রাসী৷৷ যেমন একজন ডাকাতের কাছে পুলিশ সন্ত্রাসী!! এক্ষেত্রে কোন মৌলবাদি মুসলিমকে দেখে সমাজ বা দেশের কোন অন্যায়কারি আতংকিত হলে আমি (জাকির) তাদের পক্ষে৷৷“ তথ্যঃ peach tv বাংলা

ডঃ জাকিরের ভাষ্যমতে মৌলবাদি হতেই হবে যদি কেউ সত্যিকার মুসলিম হতে চায়৷৷ মৌলবাদি হয়ে অপরাধিকে শাস্তি দেয়ার জন্য বা তাদের মাঝে আতংক সৃষ্টি করার জন্য প্রত্যেক মুসলিমকে সন্ত্রাসী হতে হবে৷৷ তাহলে জামারত-শিবির লাইনেই আছে৷৷ মৌলবাদি সন্ত্রাসী,ন্যায় বিচারকারী!! বাঙ্গালীরা অন্যায়কারী, তাদের বিচার ওরাই করবে!! আর সরকার, প্রশাসন বসে বসে বা* ফালাবে৷৷ জাকিরের কথা থেকে এটা স্পষ্ট, আতংক সৃষ্টি করার জন্য মসজিদে যে সমস্ত ককটেল, বোমা তৈরি করা হয় তা জায়েজ, শত নারীকে আতংকিত করার জন্য এক বা একাধিক নারীকে ধর্ষণ করাও জায়েজ, মৌলবাদি সন্ত্রাসীদের পেটে দানা দেয়ার জন্য পরের সম্পত্তি লুট করাও জায়েজ৷৷ তাহলে তো ইসলামের রক্ষা কর্তা, মুসলিমদের রক্ষা কর্তা ইসলামী মৌলবাদি সন্ত্রাসীরাই, তো আল্লাহ কি কাজে লাগে, ওনি কি জাগ্রত??

২১ thoughts on “ডঃ জাকির নায়েক ১ (মৌলবাদি, সন্ত্রাস)

  1. একজন মুসলিমকে ভালো মুসলিম

    একজন মুসলিমকে ভালো মুসলিম হওয়ার জন্য তাকে মৌলবাদি হতে হবে!! একজন খ্রীষ্ট্রানকে ভালো খ্রীষ্ট্রান হওয়ার জন্য তাকে মৌলবাদি হতে হবে, একজন হিন্দুকেও ভাল হিন্দু হওয়ার জন্য মৌলবাদি হতে হবে!!

    তবে একে অপরকে ধ্বংস করা ছাড়া তো আর কোন উপায় নেই। মুসলিম চাইবে ইসলামি আইন কায়েন করতে , হিন্দু চাইবে হিঁদুয়ানি আইন কায়েম করতে……… এভাবে ধ্বংস চলতেই থাকবে।
    আর এ স্বীকার্য যে জামাত শিবির যা করছে বা করতে চাইছে তা ইসলাম ধর্ম খুব ভাবে প্রতিষ্ঠিত করার জন্যই করছে। মোডারেট মুসলিমরা যা বলে তাতো ধর্মে নাই। :মাথাঠুকি: :মাথাঠুকি: :মাথাঠুকি: :মাথাঠুকি: :মাথাঠুকি:
    তা কথা ঠিকই বলেছে ইসলাম ধর্ম প্রতিষ

  2. এক্ষেত্রে কোন মৌলবাদি

    এক্ষেত্রে কোন মৌলবাদি মুসলিমকে দেখে সমাজ বা দেশের কোন অন্যায়কারি আতংকিত হলে আমি (জাকির) তাদের পক্ষে৷

    এই উক্তির মাধ্যমে জাকির নায়েক তার অবস্থান সুস্পষ্ট করেছেন । মৌলবাদ তথা জঙ্গিবাদকে উস্কানি দিয়েছেন কিছু যুক্তির অন্তরালে ।

  3. তাইলে তো উনার কথা শুনে এ দেশে
    তাইলে তো উনার কথা শুনে এ দেশে হেফাজতে ইসলামরা তৈরি হবেই । তবে তার থেকে বড় কথা হল আমাদের দেশের হেফাজতে ইসলাম বা জামায়েতে ইসলাম ওর যুক্তি শুনে কিছু করতে বা ভাবতে পারে, কিন্তু দেশের জনগণ ওসবের ধার ধারে না। তারা মুসলিম, তারা জামায়েত ইসলাম পছন্দ করে, হেফাজতে ইসলাম পছন্দ করে।এতে দেশের কি আসে গেল তাতে তাদের কোন মাথা ব্যথা নাই ।তার ওই জিনিস ভাবার মাথাও নাই।এরা এখন ধান এর ভাত খায় আর ধানের শিশে ভোট দেয়।এদের দেশপ্রেম নেই , যা আছে তা হোল সাম্প্রদায়িকতার একটা বিক্রিত বিদ্বেষ।

    ………………………………………………………………………………………………………

  4. এই লোকটা সাম্প্রদায়িকতা –
    এই লোকটা সাম্প্রদায়িকতা – মৌলবাদের বিষবৃক্ষের গোঁড়ায় কৌশলে জল দিয়ে যাছে । হাজার হাজার ধর্মপ্রাণ মানুষ কে এই হারামি বিভ্রান্ত করছে কথার মারপ্যাঁচ দিয়ে । শুধু আমেরিকায় নয় প্রত্যেক দেশে ওকে নিষিদ্ধ করা উচিৎ । :অসুস্থ: :শয়তান: ( এগুলো হারামি জাকির নায়েকের জন্য )

  5. একটা কথা কি- গোড়ামী জিনিসটাই
    একটা কথা কি- গোড়ামী জিনিসটাই আমার পছন্দ নয়। সেটা ধর্মের পক্ষেই হোক আর বিপক্ষে।
    এখন প্রশ্ন হলো- মৌলবাদি আর গোড়ামী কি এক জিনিস?
    কী জানি? হবে হয়তো…! অনেক সময় অভিধানের অর্থ আর বাস্তব অর্থ ভিন্ন হয়ে যায়। নইলে রাজাকার-এর আভিধানিক অর্থ কি আর আমরা বাংলাদেশিরা সেটাকে কোন অর্থে বুঝি!

    আমার অভিমত হলো- ধর্ম কখনও অন্য ধর্মের কারো প্রতি চড়াও হতে বা নিজ ধর্ম জোর করে চাপিয়ে দিতে উৎসাহি করে না। কেউ যদি এটা করে তবে তা ঐ “ধার্মিক”-এর দোষ। ধর্মের নয়।
    যেমনি ভাবে কোন ছুরি দিয়ে ভাল কাজ করা হবে না কাউকে হত্যা করা হবে সেটা ছুরির দোষ/গুণ না!
    কাজেই ধর্ম বা মৌলবাদীতাকে গালাগাল দেওয়া যুক্তি সংগত নয়। দেখতে হবে মৌলবাদীতার কথা বলে কেউ স্বেচ্ছাচারিতা করছে কিনা।
    [বিঃদ্রঃ মৌলবাদী মুসলমান হতে হলে যে নামের আগে “মোঃ” লিখতে হবে এমন কোন কথা আমার জানামতে ইসলাম ধর্মের কোথাও বলা নেই!]

    গোড়ামী করাটা আমার অধিকার। আমি নাস্তিক এবং নাস্তিকতার ব্যাপারে আমি গোড়া! এটা মোটেও দোষের হওয়ার কথা না যদি আমি নিজে নাস্তিক বলে আরেকজন আস্তিককে স্রষ্ঠায় বিশ্বাস করার “অপরাধে” মাথায় বাড়ি না দেই।
    ঠিক তেমনি আমি কোন একটা ধর্মে বিশ্বাস করি। সে ধর্মে আমি গোড়া! এটাও মোটেই দোষের কিছু হওয়ার কথা না যদি আমি ঐ ধর্ম পালন না করার দায়ে কারো মাথায় বাড়ি না দেই।
    কিন্তু কথা হচ্ছে কেউ যদি আমাকে আমার স্বাধীনতায় বাধা দেয়? তখন আমি কী করবো?

    বাস্তবিক ধর্ম প্রচারকরা [সে মুহাম্মদ (সঃ) হোক আর গৌতম বুদ্ধ] বা ধর্মগ্রন্থগুলো কাউকে সন্ত্রাসী হতে বলেনি।
    আমরা নিজ স্বার্থে সন্ত্রাসী হই আর ঢাল হিসেবে ব্যাবহার করি ধর্মকে।
    কাজেই ব্যক্তি দিয়ে নয়, আদর্শ দিয়ে একটা ধর্মকে মূল্যায়ন করা উচিৎ…
    আর সর্বপরি আমাদের আরো বেশি বাক স্বাধীনতায় বিশ্বাসী হওয়া দরকার। কেননা- একজন কেউ কী বলল তার ওপর ভিত্তি করে সমাজ চলে না। সমাজ তার নিজের মত করে চলে। সেটাতে কার সমর্থন থাকলো কার থাকলো না তাতে কিছুই এসে যায় না…

    1. সম্পূর্ণভাবে প্রত্যাখ্যান
      সম্পূর্ণভাবে প্রত্যাখ্যান করলাম… :মানেকি: :মানেকি: :মানেকি:
      কারনঃ
      ১) যখন একজন ভণ্ড তালগাছের ভুত নামাবে তখন তার কট্টর বিরোধিতাকারীকে আপনি গোঁড়া বলতে পারেন না…
      ২) ধর্মগুলো শান্তির নামে দুনিয়াতে এসেই সর্বগ্রাসি ধ্বংসযজ্ঞ আর অকল্যাণ করের গেছে যুগেযুগে… এতে কোন দ্বিমতের সুযোগ নেয় এখন সুশীল সেজে আমায়ও গোঁড়া বলতে পারেন! 🙁
      ৩) “আমি নিজে নাস্তিক বলে আরেকজন আস্তিককে স্রষ্ঠায় বিশ্বাস করার “অপরাধে” মাথায় বাড়ি না দেই”— এমন কোন নজীর নায় বরং বিপরীত নজির অহরহ রাজীবের ন্যায়…
      ৪) আর কারো গঠনমূলক সমালোচনায় যদি কেউ কোপায় মারতে উদ্ধত হয় তবে তার অন্তসারশুন্যতাই প্রমাণিত হয়…
      ৫) ‘ধর্মীয় মৌলবাদ একটি নিরাময় যোগ্য ব্যাধি’— এইটা এরিমধ্যেই গবেষণা থেকে অক্সফোর্ডের গবেষকেরা বের করেছেন। তাই এই ব্যাধিকে আর স্বাস্থ্য বলে খাওয়ানোর কোন মানে হয় না। যখনই আমি দেখি একজনের কলমের বিরুদ্ধে অন্যজন চাপাতি ধরে তখনই প্রমান হয়ে যায় শেষের জন্যে মানসিক ব্যাধিতে আক্রান্ত আর যে মানবকূল এমন সহিংস আচারনেও উল্লাস প্রকাশ করে তাদের কোন ওজুহাতেই সুস্থ মানুষ বলার সুযোগ নাই…

      ধন্যবাদ… শিক্ষা ও যুক্তি দায়িত্ববোধ নিয়ে আসে বলেই আমার বিশ্বাস…

      1. তারিক ভাই! আপনার সমস্যাটা কি
        তারিক ভাই! আপনার সমস্যাটা কি একটু বলেন তো?
        আমার মন্তব্য প্রত্যাখ্যান করলেন- অথচ বললেন মোটামুটি সেই কথাগুলোই যা আমিও বলেছি!
        রাজিবের যে উদাহরণটা দিলেন- সেখানে আমি দ্বিমত করেছি কখন?
        গোঁড়ামী আর মৌলবাদিতার তফাৎটাও আমি শুরুতেই আলোচনা করেছি… এটা নিয়েও আর আলোচনা বা দ্বিমতের কারণ দেখি না!
        তবে ২নং পয়েন্ট মেনে নিতে পারলাম না। “ধর্মগুলো শান্তির নামে দুনিয়াতে এসেই সর্বগ্রাসি ধ্বংসযজ্ঞ আর অকল্যাণ করে গেছে”
        তাই যদি হতো তাহলে কোন ধর্মই গোড়াপত্তন করতে পারতো না। হিটলারের মত মুখ থুবরে পরতোই কোন না কোন দিন!
        বরং ধর্মগুলোর আবির্ভাব তখনই হয়েছে যখন সমাজে বিশৃঙ্খলা চরমে উঠেছে। আপনি ইসলাম ধর্ম প্রতিষ্ঠার ঠিক পূর্ব মুহূর্তের আরব সমাজ-এর প্রেক্ষাপট দিয়ে পারলে আমার যুক্তি খন্ডন করেন এবং আপনার কথার স্বপক্ষে যুক্তি দেন।

        সর্বপরি- আপনার একটা কথায় একমতঃ “কারো গঠনমূলক সমালোচনায় যদি কেউ কোপায় মারতে উদ্ধত হয় তবে তার অন্তসারশুন্যতাই প্রমাণিত হয়…”
        আপনি নিজের জন্য কথাটা মানেন তো?
        :অপেক্ষায়আছি:

    2. @ সফিক এহসান
      ১। মৌলবাদীতার

      @ সফিক এহসান
      ১। মৌলবাদীতার কথা বলে তাকে গালাগাল দেওয়া যায় যিনি সন্ত্রাসী কারজকরমের পৃষ্ঠপোষকতা করেছেন।তবে যুক্তির আরালে করেছেন বলে মাথামোটা আর অন্ধ ভক্তরা নাও বুঝতে পারে ।
      ২। অনেক ধর্ম প্রচারক সন্ত্রাসী হতেও বলেছেন তার নিজের প্রবর্তিত ধর্ম টিকানোর ও ক্ষমতার জন্য। অনেক উদাহরন আছে।একটা দিলাম — পিথাগোরাস।(কি হইছিল না জানলে পইড়া নিয়েন)।আরও উদাহরন চোখের সামনেই আছে না জানলে অযথাই প্যাঁচাল পাইরা কি লাভ?

      …………………………………………………………

      1. আমি জাকির নায়েকের পক্ষে সাফাই
        আমি জাকির নায়েকের পক্ষে সাফাই গাওয়ার চেষ্টা করিনি… কারণ, এব্যাপারে আমার স্টাডি কম।

        পিথাগোরাস ধর্ম প্রচারক ছিলো!!! :খাইছে:
        জানতাম না। ওনার প্রচারিত ধর্মের নাম কী?

        আমি যাদের উদাহরণ দিয়েছি তাদের ব্যাপারে কিছু বলুন।
        বাকিদের কথা বাদই দিলাম। আমি জন্মগত ভাবে একটা মুসলিম পরিবারের সন্তান হিসেবে জেনে এসেছি- ইসলাম হচ্ছে শান্তি ও মানবতার ধর্ম।
        ইসলামের কোন জায়গায় সন্ত্রাসকে প্রশ্রয় দেয়া হয়েছে একটু জানাবেন?
        (দয়া করে ব্যক্তি বা জামাত বা তদানুরূপ কোন সংগঠন দিয়ে উদাহরণ দিবেন না। ইসলাম মানে কোরআন ও রাসুল (সঃ) এর জীবনী বুঝাচ্ছি…)

  6. @ড.জোকার নায়েক,
    মৌলবাদী

    @ড.জোকার নায়েক,
    মৌলবাদী মুসলিম নয় মৌলবাদী মানবতাবাদী হন আগে আর আপনার এসব জোকস বারবার শুনতে চাই না॥

    1. ঐ ভদ্রলোক ডঃ জোকার নালায়েক কি
      ঐ ভদ্রলোক ডঃ জোকার নালায়েক কি ডিকশনারি খুঁজে বলবে,
      Philistine অর্থ নিষিদ্ধ নগরী বা, দক্ষিণ-পশ্চিম প্যালেষ্টাইনের বহিরাগত প্রাচীন অধিবাসী
      অথবা, The Bible paints them as the Kingdom of Israel’s most dangerous enemy.

  7. ইনার কিছু কথা খুব যৌক্তিক হ​য়
    ইনার কিছু কথা খুব যৌক্তিক হ​য় এবং সঠিক হ​য়। আবার কিছু কথা যুক্তি দিয়েই খুব অযৌক্তিক হ​য়।তার প্রমান।

    1. @ রাইন ।আপনার কথা শুনে বুঝতে
      @ রাইন ।আপনার কথা শুনে বুঝতে পারছি না আপনি কি জাকির নায়েক এর গুনগান গাইতে এসেছেন?

      যাই হোক মাথা মোটা না হোলে সবারই বোঝা উচিত অযৌক্তিক কিছু পাবলিকরে খাওয়াইতে হইলে কিছু কথা যৌক্তিক বলতেই হয়।কিন্তু আপনার দেখার বিষয় সে আসলে যুক্তির আরালে কি পায়তারা করছে ।

      ………………………………………………………………………

      1. আরে আমি তো সেটাই বললাম। ধরেন
        আরে আমি তো সেটাই বললাম। ধরেন কিছু একটা বললো যেটা আদৌ এইসব নহে না বা বিতর্কিত না, তাহলে বলতে হবে সেটা ঠিক। আমি বলছি যে জাকির নায়েক বিতর্কিত বিষ​য় নিয়ে আরো উল্টাপাল্টা কথা বলে। অর্থাৎ বিরাট যুক্তি দিয়ে অযৌক্তিক কথা বলা। যুক্তি দিয়ে তো ১=২ প্রমান করাও ব্যাপার না।

        1. জী , আপনি বলছেন ঠিক।আমি বুঝতে
          জী , আপনি বলছেন ঠিক।আমি বুঝতে ভুল করছি।তার কারন অবশ্য আপনার লেখার ধরন।আমি আবার সহজ করে না বললে বুঝি না। :আমারকুনোদোষনাই: :আমারকুনোদোষনাই: :আমারকুনোদোষনাই: :আমারকুনোদোষনাই: :আমারকুনোদোষনাই: :আমারকুনোদোষনাই:

  8. জোকার নালায়েক খ্যাত জাকির
    জোকার নালায়েক খ্যাত জাকির নায়েক যা করছেন তা হল এক কথায় এলুপাথ্যি চিকিৎসার যুগে ঝাড়ফুঁকের ডিজিটাল ক্যানভাসি… তার যুক্তির মুলেই রয়েছে ধর্মীয় বিদ্বেষ আর মৌলবাদী মানসিক অসুস্থতা!! মজার ব্যাপার হল আজকাল রাস্তায় কানের জন্যে দাতের জন্যে ফেরী করতে দেখলে কোন ফুটপাতের ক্যানভাসার’কে তখনিই ঐ জোকার’টার কথা মনে পরে। আর ভাবী এদেরও যদি কেউ একটু পৃষ্ঠপোষকতা করত তবে কতই না বিক্রি-পাট্টা হত!!
    লিখককে ধন্যবাদ… :ধইন্যাপাতা: :ধইন্যাপাতা: :ধইন্যাপাতা: :ধইন্যাপাতা:

  9. খারাপ কিছু করার আগে ভালোর
    খারাপ কিছু করার আগে ভালোর একটু ছোঁয়া তো দিতেই হয়৷৷ ভালো বক্তব্য দিতে পারেন মানছি, হয়তো ধর্মান্ধদের এটাই দূর্বলতা…. নিজের থেকে ধর্মের ‘ধ’ জানার চেষ্টা করে না, পরের কথায় ফাল পারে৷৷

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *