ভীষণ হ য ব র ল

[ক]
মেঘ এসে জল ঢেলে
চলে যায় দূরে।
চাতক মনে রাখে
ধুসর মেঘেরে।

[খ]
এক দেশে ছিল এক বামনের বাস
পূর্ণিমা রাতে সে দেখল আকাশ।
মুগ্ধ বামন ভাবে “আরে ওটা কি?”
রুপালি রুপের সেই চাঁদটা নাকি!



[ক]
মেঘ এসে জল ঢেলে
চলে যায় দূরে।
চাতক মনে রাখে
ধুসর মেঘেরে।

[খ]
এক দেশে ছিল এক বামনের বাস
পূর্ণিমা রাতে সে দেখল আকাশ।
মুগ্ধ বামন ভাবে “আরে ওটা কি?”
রুপালি রুপের সেই চাঁদটা নাকি!
বামনের হল সাধ চাঁদ ধরবার
এই ভেবে উপরে সে তাকাল আবার।
দুহাত বাড়িয়ে দিয়ে বামন ভাবে
রুপালি চাঁদটা সে এখনি পাবে।
ন্যায়নীতি বামনের জানা ছিল কম
জানতোনা সে এক আছে যে নিয়ম।
দুহাত বাড়িয়ে সে জানলো এবার
বামনের চাঁদে নেই কোন অধিকার।

[গ]
জ্বর তপ্ত দেহে
আমার মা অপার স্নেহে
যখন রাখল হাত
বাইরে তখন ভোর, কেটে গেছে রাত।

[ঘ]
বলেছিলে আসবে চারটায়
লেকের পশ্চিম ধারটায়।

[ঙ]
ওরা দুজন
রাগী ভীষণ
নেইতো হুশ।
আমি তুমি
আম জনতা
ম্যাঙ্গো জুস।

[চ]
এক বছর ছয় মাস আঠারো
ঘুরে ফিরে দেখা হল আবারো
রিকশায় বসা তুমি তাকালে
খানিকটা ঠোঁট কি বাঁকালে!

[ছ]
দুটি মানুষ
দুটি শহর
অপেক্ষাতে
অষ্টপ্রহর।

৭ thoughts on “ভীষণ হ য ব র ল

  1. আমার কাছে গড় লেগেছে…
    লিখতে

    আমার কাছে গড় লেগেছে…
    লিখতে থাকুন!! :অপেক্ষায়আছি: :অপেক্ষায়আছি: :অপেক্ষায়আছি: চমৎকার কিছুর আশায় থাকলাম!!

  2. [ছ]
    দুটি মানুষ
    দুটি

    [ছ]
    দুটি মানুষ
    দুটি শহর
    অপেক্ষাতে
    অষ্টপ্রহর।

    এই টা বেস্ট বলেছেন । ভালই লাগল । 🙂

Leave a Reply to মাজেদুল হাসান Cancel reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *