মেয়েটির নাম বেশ্যা


মেয়েটির আসল নাম কেউ জানেনা-
কিংবা কেউ জানতেও চায়না।
কেউ ডাকে সখিনা, কেউ বা রানী-প্রীতি;
কেউ তো এসবেরও ধার ধারেনা।
তাচ্ছিল্য মিশিয়ে ডাকে-“বেশ্যা”।
হে সুধীজন!একটি গল্প বলতে এসেছি, কবিতা নয়।
একটি মেয়ের গল্প। না না ভুল হয়ে গেল-এক বেশ্যার গল্প।


মেয়েটির আসল নাম কেউ জানেনা-
কিংবা কেউ জানতেও চায়না।
কেউ ডাকে সখিনা, কেউ বা রানী-প্রীতি;
কেউ তো এসবেরও ধার ধারেনা।
তাচ্ছিল্য মিশিয়ে ডাকে-“বেশ্যা”।
হে সুধীজন!একটি গল্প বলতে এসেছি, কবিতা নয়।
একটি মেয়ের গল্প। না না ভুল হয়ে গেল-এক বেশ্যার গল্প।
যে বসন্তের হিসাব রাখেনা,
তার দিন আবর্তিত হয় ঘন্টা কিংবা রাত গুনে।
ঘোড়ায় চড়া রাজপুত্রের সাথে ঘর বাঁধার স্বপ্ন?-
সেতো অনেক আগেই খুন করেছে সুধী সমাজ,
তবে তার বুকে এখনও স্বপ্ন আছে।তবে,
‘স্বপ্নের’ আগে ‘দুঃ’ অনুসর্গ টা লাগিয়ে নিবেন প্লীজ।
কেউ করেনা মেয়েটির মনের আশ।
দেহের বাসনায় মত্ত থাকে দিনমজুর থেকে শিল্পপতি।
ঘটনাটা এমন-“সে এলো, চিড়ে-কুড়ে খেলো,চলে গেলো।
মেয়েটার চোখের জল, মেয়েটার অভিমানী মুখ
মেয়েটার নারীত্বের মর্যাদা দেবার লোক জেগে নেই।
মেয়েটির বেণী করা চুলে হাত দিয়ে
মুগ্ধতা কন্ঠে নিয়ে কেউ বলেনা-
“চুল তার কবেকার অন্ধকার বিদিশার নিশা”
সেই মেয়েটির জন্য কেউ যে অপেক্ষা করে নেই,
মেয়েটিও নেই কারো অপেক্ষায়। না না ভুল হয়ে গেল-
সুধীজনের কামুক দেহের অপেক্ষায় তার রাত কাটে।
মেয়েটির খিদে বড্ড বেশি, মাত্র দু’মুঠো ভাতের আশায়
সমাজের পতিতা সে, তার নাম আজ বেশ্যা।
আমি লজ্জিত, আমি এই সভ্য সমাজের সদস্য-
প্রেমিকার সামনে গিয়ে- শিমুল ফুল নিয়ে আধিখ্যেতা করি।
দূর থেকে আঙ্গুল দিয়ে দেখাই, ওই দেখ ‘বেশ্যা’ যায়।
দিনের বেলা ওকে দেখলে মুখ কুঁচকে ঘৃণা জানাই,
রাত হলে কড়া নাড়ি তারই দরজায়।
মানুষ হয়ে জন্মেছিলাম, এখন পুরোদস্তুর পশু আমি।
শ্রমিকের খুন শুষে অট্টালিকায় থাকে যারা-
তাদের আমরা টেনে নিয়ে মাথায় তুলি।
ভাতের খিদেয়, বাঁচার আশায় নিত্য যারা দেহ বেঁচে,
তাদের আমরা বেশ্যা বলি, মেয়েটির নাম বেশ্যা বলি।

১৪ thoughts on “মেয়েটির নাম বেশ্যা

  1. আমি লজ্জিত, আমি এই সভ্য
    আমি লজ্জিত, আমি এই সভ্য সমাজের সদস্য-
    :মনখারাপ: :মনখারাপ: :মনখারাপ: আপনার দেওয়া লিঙ্কে ঢুঁকে মন টা খারাপ হয়ে গেল । :মনখারাপ:

    1. আমরা এভাবেই লজ্জিত হই বারবার,
      আমরা এভাবেই লজ্জিত হই বারবার, আজকার প্রাইভেট ভার্সিটি তে পড়ুয়া মেয়েরা এতে জড়িয়ে পড়ছে…শুধু তাগিদ থেকে, টাকার লোভে নয়…ভাতের লোভে 🙁

  2. আমরা কিছুই করতে পারলাম
    আমরা কিছুই করতে পারলাম না।একটা ইভেন্ট খোলা হল,গতকাল দেখলাম হাতে গোনা কয়েকজন এসেছে।অথচ গোয়িং দেয়া ছিল ২০০০০

  3. একটু ভুল হয়েছেঃ এই সমাজটির
    একটু ভুল হয়েছেঃ এই সমাজটির নাম বেশ্যা…
    কোন নারী তার দেহ বিক্রি করলে তাঁকে যদি বেশ্যা বলেন তবে
    যে সমাজ তার নৈতিকতা-আদর্শ-মানবিকতা সবই বিকিয়ে দিল তাকে কি বলবেন?
    আমি এই সমাজকে ঘুণে ধরা অন্তঃসারশূন্য দেওলিয়া সমাজ হিসেবেই দেখি!

    1. আমি এই সমাজকে ঘুণে ধরা

      আমি এই সমাজকে ঘুণে ধরা অন্তঃসারশূন্য দেওলিয়া সমাজ হিসেবেই দেখি!

      সহমত লিঙ্কন ভাই ।

  4. ইদানিং আমার একটা কথা খুব
    ইদানিং আমার একটা কথা খুব সত্যি মনে হয়- ভণ্ডামি এবং কপটতা মানুষের জিনগত বৈশিষ্ট।

  5. তবে তার বুকে এখনও স্বপ্ন

    তবে তার বুকে এখনও স্বপ্ন আছে।তবে,
    ‘স্বপ্নের’ আগে ‘দুঃ’ অনুসর্গ টা লাগিয়ে নিবেন প্লীজ।
    কেউ করেনা মেয়েটির মনের আশ।

  6. ইদানিং মফস্বল শহরের আবাসিক
    ইদানিং মফস্বল শহরের আবাসিক হোটেলেও স্কুল কলেজের ছাত্রীদের দেখা যাচ্ছে একই পেশায় তাদের কি বলবেন?

  7. যার যে যোগ্যতা আছে সে সেটা
    যার যে যোগ্যতা আছে সে সেটা দিয়েই জীবিকা চালাবে। কারো বুদ্ধি আছে, সে বুদ্ধি বিক্রি করছে। কারো শুধু দেহ আছে সে সেটা বিক্রি করছে। তবে তাঁকেই কেন বিশেষ বিশেষণে বিশেষায়িত করা। বিক্রি তো আমরা সবাই করছি।

  8. বেশ্যা বলে কাউকে অপমান করার
    বেশ্যা বলে কাউকে অপমান করার অধিকার আমাদের নাই হয়তো এই বেশ্যাটায় কারো প্রেমিকা অথবা কারো ঘরের ঘরনী ছিলো কারন বেশ্যারাও মানুষ………………

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *