আসুন নিজেকে সাধু করে তুলি

অমুক স্থানে অমুক মেয়ে ধর্ষিত হয়েছে। -কাসেম
টিভি।

ব্লগ, ফেসবুকে ঝর উঠে গেছে।সবার বক্তব্য একটা
“ধর্ষণকারীর ফাসি চাই”
এখন কথা হইল
ধর্ষন দুই প্রকার …..
1 – সম্মতিক্রমে ধর্ষণ
2 – জোরপূর্বক ধর্ষণ



অমুক স্থানে অমুক মেয়ে ধর্ষিত হয়েছে। -কাসেম
টিভি।

ব্লগ, ফেসবুকে ঝর উঠে গেছে।সবার বক্তব্য একটা
“ধর্ষণকারীর ফাসি চাই”
এখন কথা হইল
ধর্ষন দুই প্রকার …..
1 – সম্মতিক্রমে ধর্ষণ
2 – জোরপূর্বক ধর্ষণ

সম্মতিক্রমে ধর্ষণের খবর আমরা কেউ রাখিনা।
অর্থাৎ এইগুলা হইল গার্লফ্রেন্ড বয়ফ্রেন্ডের
ব্যাপার :/
কেউ জানলেও বলে – “Life is enjoyable”

আর জোরপূর্বক ধর্ষিত হলে আমাদের টনক নঢ়ে।শুরু
হয়ে যায় আমাদের চুশিলতা :/
কোথায় থাকে আমাদের এই শুশিলতা? :/
কোথায় থাকে আমাদের বিবেকবোধ? :/
আমরা নিজেরাই নিরবে ধংস করে দেই একটা মেয়ের
জীবন 🙁
ভালবাসা কোন পাপ কাজ না !
তবে এইটা পবিত্র
না হইলে সেইটা ভালবাসা নয়…..:@
সেইটা হইল জাইনা শুইনা একটা মেয়ের জীবন নস্ট
করা.
একটা কথা বলি –
“যতদিন পর্যন্ত আপনি আপনার
বিবেকটাকে মানুষে রূপান্তর করতে না পারবেন
ততদিনে আপনি ততদিনে একজন পূর্নাঙ্গ মানুষ
হতে পারবেন না “

১২ thoughts on “আসুন নিজেকে সাধু করে তুলি

  1. “যতদিন পর্যন্ত আপনি

    “যতদিন পর্যন্ত আপনি আপনার
    বিবেকটাকে মানুষে রূপান্তর করতে না পারবেন
    ততদিনে আপনি ততদিনে একজন পূর্নাঙ্গ মানুষ
    হতে পারবেন না “

    সহমত

  2. সম্মতিক্রমে ধর্ষণের খবর আমরা

    সম্মতিক্রমে ধর্ষণের খবর আমরা কেউ রাখিনা।
    অর্থাৎ এইগুলা হইল গার্লফ্রেন্ড বয়ফ্রেন্ডের
    ব্যাপার :/
    কেউ জানলেও বলে – “Life is enjoyable”

    এইটা কেন ধর্ষণ?
    ঊঃ কারণ আপনি সহ পুরুষতন্ত্রের হর্তা কর্তারা ভাবছে তাদের জাতীয় পতাকা সতী পর্দা তারা প্রেমের মিলনেও হারাতে পারে! আর এই ধারনা থেকেই একে আপনারা ধর্ষণ বলছেন!!
    আচ্ছা বলেন তো ঐ প্রেমিক যে কিনা মেয়েটার সাথে প্রেম করল! তার কি হারাইল?
    আর আপনি ধর্ষণের সংজ্ঞায় জানেন না! সম্মতিক্রমে ধর্ষণ বলে কিছু নাই…
    থাকলে তা আধুনিক বা সমসাময়িক মানব সভ্যতায় নাই হয়ত মধ্যযুগীয় কোন ধ্যান-ধারনায় থাকতে পারে……

    1. একমত। সম্মতিক্রমে ধর্ষণ বলে
      একমত। সম্মতিক্রমে ধর্ষণ বলে কিছু নেই। বিয়ের পরও যদি সম্মতি ছাড়া শারীরিক সম্পর্ক হয়, সেটাও ধর্ষণ। :এখানেআয়:

  3. সম্মতি ক্রমে যৌন সম্পর্ক করা
    সম্মতি ক্রমে যৌন সম্পর্ক করা কে ধর্ষন বলে আপনি জোর পুর্বক যৌন নির্যান অর্থাত ধর্ষন কে লঘু অপরাধ হিসেবে দেখানোর মত একটা জঘন্য কাজ করসেন। আপনি কি বলতে চান বিয়াটা কি ধর্ষন বৈধ করার নিয়ম ? তবু ধর্ষন ছাড়তে চান না।

  4. সম্মতিক্রমে যৌন সম্পর্ক ধর্ষণ
    সম্মতিক্রমে যৌন সম্পর্ক ধর্ষণ নয়। জাতিসংঘের সংজ্ঞা অনুযায়ী, ১৬ বছরের নিচে স্বেচ্ছায় হোক আর অনিচ্ছায় হোক যৌন সম্পর্ক ধর্ষণ হবে। ১৬ বছরের উপরে অনিচ্ছাকৃত যৌন সম্পর্কই ধর্ষণ।
    কিন্তু আপনার লেখা বুঝাচ্ছে সকল যৌন সম্পর্কই ধর্ষণ। তাহলে কি বিয়ের পর স্ত্রীর ইচ্ছে না থাকলেও যৌন সম্পর্ক করলে সেটা ধর্ষণ হবে না?

  5. কে গো ভচ আপনি যা দিলেন
    কে গো ভচ আপনি যা দিলেন না,চুশীলরা দেখলে হইছে আপনার ডুগডুগি বাজাইয়্যা দিবে।অনেক দিন পর এসে এমন একটা লেখা দেখে মন ভরে গেল।

Leave a Reply to নুর নবী দুলাল Cancel reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *