ডিগবাজী

স্কুল লাইফের ভয়ানক অহংকারি এক বন্ধু ছিল । অতিমাত্রায় মানুষরে হেয় করত দেইখা কেউ তার সাথে মিশত না । বোলিংএর সময় মাঠের অইপার থেকা শোয়েব আখতারের মত দৌড়ায় আইসা অনিল কুম্বেলের মত বল কইরা এমন ভাব নিত , যে ২০০কিমি/আওয়ার বল করছে । বিচিত্র কারনে তার সাথে বন্ধুত্ব হয় । আমি ক্লাস করতামনা আর মাঝে মাঝে কিছু সিনিয়র পোলাপানের সাথে ইদিক-অদিক আড্ডা দিতাম আর তামাকু খায়তাম । সম্ভবত সেফটির জন্য সে আমার সাথে বন্ধুত্ব করেছিল ।কিছুদিনের মধ্যেই বাকের ভাইগিরি ছাইড়া আমি গোবেচারা হয়া গেলাম;আগেও গোবেচারা ছিলাম ,একটু উলটা-পালটা দেইখা হুদাই ডরাইতো ।


স্কুল লাইফের ভয়ানক অহংকারি এক বন্ধু ছিল । অতিমাত্রায় মানুষরে হেয় করত দেইখা কেউ তার সাথে মিশত না । বোলিংএর সময় মাঠের অইপার থেকা শোয়েব আখতারের মত দৌড়ায় আইসা অনিল কুম্বেলের মত বল কইরা এমন ভাব নিত , যে ২০০কিমি/আওয়ার বল করছে । বিচিত্র কারনে তার সাথে বন্ধুত্ব হয় । আমি ক্লাস করতামনা আর মাঝে মাঝে কিছু সিনিয়র পোলাপানের সাথে ইদিক-অদিক আড্ডা দিতাম আর তামাকু খায়তাম । সম্ভবত সেফটির জন্য সে আমার সাথে বন্ধুত্ব করেছিল ।কিছুদিনের মধ্যেই বাকের ভাইগিরি ছাইড়া আমি গোবেচারা হয়া গেলাম;আগেও গোবেচারা ছিলাম ,একটু উলটা-পালটা দেইখা হুদাই ডরাইতো ।

সেই বন্ধু তার অহংকারের জোড়ে অনেকদূর গেল । শ্রেষ্ঠ বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রথম দশজনের একজন । মেয়েদের কাঙ্ক্ষিত পাত্র । রিলেশনও হইল ,সেই খুব সাধারণ মেয়েটা তারে একটা কিছুদিনের মধ্যেই ডলা দিল । ব্রেকাপের সময় সে যখন বলল , তুমি জানো আমার ফিউচার কেমন,ক্যারিয়ার কেমন? মেয়েটি বলল , তুই তর ক্যারিয়ার আরেকজনের সাথে যাইয়া চোদা । শালা ভোকচোদ।

হিরার খনি তুচ্ছ করা এমন মেয়ে এখনো আছে? টাশকি খায়লাম ! লেখাটি যারা পড়ছেন, মনে হবে এই ঘটনা জানলাম কেম্নে ? আরে উই নিজে আয়া কয়লো ।সাধারণত যে কোন কুপরামর্শের দরকার পড়লে সে আমার বাসায় জোর কইরা ঢুকে ।আমি কহিলাম,তুই চৌধুরী বংশের একমাত্র পোলা এই ডাইলক দিলি ক্যান ?নাইলে ডিগবাজী লইতো? তরে আগেও কইসিলাম সিক্স প্যাক এবস আর মাসল না বানায়া আমার মত ভুড়ি বানা । হুনলিনা ,এখন যা,মারা খা ।সে বলিলো আমারে দিয়া এর শোধ নিতে চায় । আমি তো শুইনাই প্রেমে পড়ছি ; এইটা কাটাইতেই এক হপ্তা মাল খাওয়া লাগব আর দেখলে তো …শোধ লওয়া তো দূরে থাক লাইফে অরে একটা পোক পর্যন্ত দিমু না ।যেই পিশাচিনি ; খালকাইট্টা এনাকন্ডা ছাপ আননের দরকার নাই । বহু পুরান একটা ডাইলক দেই – ”মায়া ক্যাচালে আমি নাই ।”

এ মালিকে জাহান
আমি বড় অছহায় !

১৫ thoughts on “ডিগবাজী

    1. আপনার দামি এবং সঠিক মন্তব্যের
      আপনার দামি এবং সঠিক মন্তব্যের জন্য ধন্যবাদ । আমি অবান্তর ”অর্থহীন লেখায়” নোবেল পাইতে চাই ।

  1. অর্থহীন পোস্ট দেওয়া থেকে বিরত
    অর্থহীন পোস্ট দেওয়া থেকে বিরত থাকুন । পোস্ট লেখার আগে বেশি বেশি ব্লগ পোস্ট পড়ুন ।

    1. ”বুদ্ধিবৃত্তির প্রায়োগিক
      ”বুদ্ধিবৃত্তির প্রায়োগিক প্রগাঢ়তা আমাদের জীবনকে অধিক মাত্রায় জটিল করে ফেলে ।”
      যা আপনার ক্ষেত্রে ঘটছে । অর্থযুক্ত জটিল কমেন্ট করা হতে বিরত থাকুন অথবা অর্থহীন লেখায় কমেন্ট করা হতে বিরত থাকুন। কমেন্ট করার আগে সাবান দিয়া হাত ধুইয়া কমেন্ট করুন ।

    2. এইটাকে উনি যদি উনার
      এইটাকে উনি যদি উনার অধিকারভেবে নেয় তবে কিছুই করার নাই আসলে…
      আমাদের বেশীরভাগই জীবনের উদ্দেশ্য না বুঝতেই জীবন যাপন করা শুরু করি!!

  2. আপনি আক্রমণাত্মক কমেন্ট
    আপনি আক্রমণাত্মক কমেন্ট করতেছেন । এটা ব্লগিং এর রীতিবিরুদ্ধ । :-B আপনার পোস্ট এর সমালোচনা যদি পছন্দ না হয় , তাহলে পোস্ট দেওয়ার অধিকার আপনার নাই..

    1. আমি আপনার কমেন্টের সমালোচনা
      আমি আপনার কমেন্টের সমালোচনা করতাছি । আপনার কমেন্টের সমালচনা যদি আপনার পছন্দ না হয় , তাহলে কমেন্ট দেওয়ার অধিকার আপনার নাই.. ব্লগিং রীতিবিরুদ্ধ নামক বড় কথা কইয়া (ইস্টিশনবিধি ৬ ‘ইস্টিশন’-এ যাত্রী হিসাবে একে অপরের প্রতি দলবদ্ধ আক্রমণের মত ) আপনি এই মুহূর্তে সাঙ্গোপাঙ্গসহ ‘ইস্টিশন’-এ যাত্রী হিসাবে একে অপরের প্রতি দলবদ্ধ আক্রমণ করতে আসছেন ।

      1. আমার কমেন্ট টা এক লাইন এর
        আমার কমেন্ট টা এক লাইন এর ।

        অর্থহীন পোস্ট দেওয়া থেকে বিরত থাকুন । পোস্ট লেখার আগে বেশি বেশি ব্লগ পোস্ট পড়ুন ।

        এটা আপনার পোস্ট এর পরিপ্রেক্ষিতে । আর এই কমেন্ট এর কি সমালোচনা করবেন আপনি?

        1. আমিও আপনার কমেন্টের
          আমিও আপনার কমেন্টের পরিপ্রেক্ষিতেই বলছি । আর এই পোস্টের এর কি সমালোচনা করবেন আপনি যখন আমি প্রথম কমেনটেই জানায় দিসি এটি অবান্তর লেখা । হিউমার বুঝার এবিলিটি নাই ; হুদাই ত্যানাইতাছেন ।

  3. বানানের শ্রী দেখে তো মনে হয়
    বানানের শ্রী দেখে তো মনে হয় না বাংলায় জীবনে পাস করছেন। আবার সমানে ঝাড়ি দিতেছেন সবাইরে।

    1. বানান বিষয়ে আপনার মূল্যবান
      বানান বিষয়ে আপনার মূল্যবান তথ্য আমি মানলাম । বানান শিখার জন্য বানানরীতি বিষয়ে আমি দুইটা প্রশ্ন করমু ।। উত্তরের সময় দিমু এক মিনিট ,কারন গুগোলে সার্চ দিয়া চিটিং যাতে না হয়। রাজি থাকলে কমেন্টে জানান এবং যে মুহূর্তে কমেন্ট করবেন তার পরি প্রশ্ন করমু ।

      1. ভাই ঝাড়ি কম লন। আমি গোবেচারা
        ভাই ঝাড়ি কম লন। আমি গোবেচারা মানুষ। আপনই শিক্ষিত। আপনই যা লিখবেন তাই ঠিক। বাকী সব ভুল।

        1. ”আপনই” শিক্ষিত ? ”আপনই ?”
          ”আপনই” শিক্ষিত ? ”আপনই ?” যে এইটুক বানানেই প্যাঁচ লাগাইছে তারে আমি কি ঝারি লমু ? একটু আগে কইলেন আপনার মনে হয়না আমি বাংলায় জীবনে পাস করছি কিনা ; আবার এখন বললেন আমি-ই শিক্ষিত ।আমি কুণ্ডা মানমু ? ব্যাপারটা স্বঘোষিত নাস্তিক হয়া ফরহাদ মজহার চাচ্চুর হেফাজতের মজলিসে যাওয়ার মত দুইমুখি নীতি হইলোনা ?

  4. এখানে অনেকগুলি বিভাগ আছে ;
    এখানে অনেকগুলি বিভাগ আছে ; যেমন রাজনীতি , কবিতা , ব্যক্তিগত কথাকাব্য এবং একটিও না । তবু কারো কাছে যদি পোস্টটি কোন সমস্যার কারন হয় ; কাইন্ডলি রিপোর্ট করুন । এটি যদি ব্লগে পেজগি লাগায় রিমুভ করবে; কাহিনী শেষ ! ত্যানা প্যাচাইয়া ত্যানা ছিড়া ফেলাইলে আর প্যাচাইতে পারবেন না … :হাহাপগে: :হাহাপগে: :হাসি: :হাসি:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *