মুই কি হনু রে ওরফে হোটেল The WESTIN

হোটেল ওয়েস্টিন ,

আপনি সুন্দরী , আপনি অভিজাত আপনার গা থেকে ভুড়ভুড় করে বিদেশী বাসনা বের হয় । আপনি চৌধুরী সাহেবের মেয়ের চেয়েও আকর্ষণীয় কামনীয় । চৌধুরীর মেয়েকে যেমন দূর থেকে দেখে “ আহা উহু “ করতে হয় তেমনি আপনাকেও দূর থেকে দেখে “ কারবারডা দেখছুইন “ বিলাপ করতে হয় । ঠেলা গাড়ি , রিক্সা চালিয়ে চৌধুরীর মেয়ে হয়তো অর্জন করা যায় কিন্তু আপনাকে ? — “ ভাই থামেন “ !

পাচতারা ওয়ালা ওয়েস্টিন ,

আমরা সবাই জানি আপনি গুলশানে মালদার পার্টিদের থাকা খাওয়ার বেবস্থা করে থাকেন । কিন্তু আপনি যে তেলের বিজনেসে নামছেন সেটা জানতাম না ।


হোটেল ওয়েস্টিন ,

আপনি সুন্দরী , আপনি অভিজাত আপনার গা থেকে ভুড়ভুড় করে বিদেশী বাসনা বের হয় । আপনি চৌধুরী সাহেবের মেয়ের চেয়েও আকর্ষণীয় কামনীয় । চৌধুরীর মেয়েকে যেমন দূর থেকে দেখে “ আহা উহু “ করতে হয় তেমনি আপনাকেও দূর থেকে দেখে “ কারবারডা দেখছুইন “ বিলাপ করতে হয় । ঠেলা গাড়ি , রিক্সা চালিয়ে চৌধুরীর মেয়ে হয়তো অর্জন করা যায় কিন্তু আপনাকে ? — “ ভাই থামেন “ !

পাচতারা ওয়ালা ওয়েস্টিন ,

আমরা সবাই জানি আপনি গুলশানে মালদার পার্টিদের থাকা খাওয়ার বেবস্থা করে থাকেন । কিন্তু আপনি যে তেলের বিজনেসে নামছেন সেটা জানতাম না ।

( পাঠকগণ , এই তেল তাহসান মিথিলার জুঁই নারিকেল তেল নয় , এই তেল নয় মায়ের হাতের সুস্বাদু ইলিশ ভাঁজার সয়াবিন তেল , এই তেল জামালপুর জেলার সরিষা ক্ষেতের সরিষার তেলও নয় , এমন কি এই তেল ফার্মগেটের ‘ ঐ সব ‘ তেলও নয় যা আপনার দণ্ড আরও খাড়া বা মজবুত করবে । ওয়েস্টেনের এই তেলের নাম — “ তোরা আবাল হবি তেল “ )

আমরা জানি আপনার এই তেলের হরেক গুণাবলি বিদ্যমান । এই তেলের কাছে ইরাক সৌদির তেল মাঠা ! এই তেল ব্যাবহার করে সহজেই আয় করা কুটি কুটি টেকা । অথচ নেই মার্কিন ড্রন বিমানের ভয় । কি চমৎকার এই তেল । অনেকেই প্রশ্ন করতে পারেন এই তেল খায় না , মাথায় দেয় না , গোসলের আগে শরীরে ঘষে না , তাইলে এই তেল কি কামে লাগে ?

মাননীয় স্পিকার – এই কুদরতি তেল মানুষের চোখে এবং কানে ঢেলে দেয়া হয় ।
কস্কি মমিনের বউ মমিনা ? ক্যামনে ক্যামনে !!

শুনুন তাহলে এই তেল বাঙ্গালী মানব সন্তানদের কানে উপুত করে ঢেলে দিলে তা সরাসরি মগজে চলে যায় । সেখানে গিয়ে এই তেল ওয়েস্টার্ন মিউজিকের সাথে সূর ধরে বলে — “ তোরা দেখছসনি ভাত খাওয়া ছাওয়ালরা – ঐ ঝিলিকমারা ওয়েস্টিন কতো মহান , কতো দরদী এক্কেবারে হাতেম তাই তাই তাই মামার বাড়ি যাই “
এই তেল চোখের মণিতে আন্দোলিত হয়ে বলে – “ ইস্ট অর ওয়েস্ট – ওয়েস্টেন ইজ দ্যা বেস্ট “

এটেনশন সিকার ওয়েস্টিন ,

আপনাকে অনেক ধন্যবাদ আপনি একজন রেশমাকে নিজের ঘরে তুলে নিয়েছেন । অন্তরের অন্তঃস্থল থেকে অভিনন্দন ।

কিন্তু আপনি কাজটি কখন করেছেন ? যখন দেখলেন একজন রেশমা অলৌকিক ভাবে আমাদের মাঝে ফিরে এসেছেন ঠিক তখনি আপনার মাথায় বিজনেসের ধান্দা ঘোরা শুরু করলো । কারন এক রেশমা আজ আপনার হোটেলকে নিয়ে যাবে আরও অনেক উঁচুতে , সাধারণ বাঙ্গালীদের ক্ষমতার বাইরে !

ওয়েস্টেন , আপনি কি জানেন সাভারে রানা প্লাজায় এই পর্যন্ত কতো জন মানুষ মৃত্যুবরণ করেছেন ? জানেন কি আরও কতজন রেশমা আজ জীবিত অবস্থায় , মৃত্যুর জন্য অপেক্ষা করছেন ? আপনি কি বলতে পারেন আজ কতোজন রেশমার হাত অদৃশ্য হয়ে গেছে , কতোজন রেশমার কেটে ফেলে দিতে হয়েছে পা ?
আপনি একজন মৃত্যুঞ্জয়ী রেশমাকে ৩৫ হাজারের চাকুরী দিয়ে বাংলাদেশসহ বিশ্ব মিডিয়ায় নিজেকে “ মুই কি হনুরে “ জাহির করলেন , কিন্তু নির্মম ভাবে আহত হওয়া আরও হাজার হাজার রেশমা যারা তাদের পরিবার নিয়ে আপনার মতো অভিজাত পাচস্টার ওয়ালের একটুখানি সাহায্যের জন্য অপেক্ষা করে আছে তাদের জন্য কি করেছেন ?

আমাদের পক্ষে সবাইকে সাহায্য করা সম্ভব নয় তাই আমরা একজনকে সাহায্য করেছি ।
খামোশ !

আমরা কেউ ভুলে যায়নি আপনি সাহায্য করেছেন সেই মেয়েটিকে যেই মেয়ে ১৭ দিন রানা প্লাজার ধ্বংসস্তূপের নিচে নিজ জীবনীশক্তি দিয়ে বেচে ছিল । সে একা লড়াই করছে মৃত্যুর সাথে । এই বিস্ময়কন্যা আপনার মতো সুবিধাভোগী তেল বেবসায়িদের জন্য মৃত্যু জয় করে ফিরে আসেনি । সে ফিরে এসেছে বাংলাদেশের গার্মেন্টস দিদিমণিদের প্রতিনিধি হয়ে যারা শত অত্যাচারের পরও বেচে থাকে , আমাদের আপনার হোটেলে প্রবেশের সুযোগ করে দেয় । ( রেশমাকে নিয়ে এই ব্লগে আমার লেখা পোস্ট )

এক মৃত্যুঞ্জয়ী রেশমানে নিয়ে আপনাদের আই মানবতা বিজনেস না করে একটু খানি সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিন সেইসব রেশমাদের প্রতি যাদের এই মুহূর্তে আপনাদের খুব বেশী দরকার । যদি নিজেদের গায়ে মহৎ দরদী তকমা ট্যাগ লাগাতে চান তবে তাদের কিছুটা সাহায্য করুন । আজ মৃত্যুঞ্জয়ী রেশমার জন্য হাজারো বিত্তবান আছেন কিন্তু যারা সাধারণ অঙ্গহানি রেশমা তাদের জন্য কে আছে ? অন্য রেশমাদের জীবিকার নিশ্চয়তা প্রদান করুন । আপনি , আপনারা যারা ফোকাস চান তারা ।

মনে রাখা ভালো প্রতিটা রেশমার বেঁচে থাকবার অধিকার আছে । যেখানে মিডিয়া কাভারেজ পাওয়া যাবে না যেই রেশমা অলৌকিক না , সেই রেশমারাও পরিবার নিয়ে বাঁচতে চায় ।

সকল বিত্তবানদের প্রতি ,

অনেক তো আছে আপনাদের , বিজনেস ধান্দা ত্যাগ করে ওদের একটুখানি সাহায্য করে দেখুন , সত্যিকারের ভালো লাগা অনুভব করবেন ।

২৬ thoughts on “মুই কি হনু রে ওরফে হোটেল The WESTIN

  1. “অনেক তো আছে আপনাদের , বিজনেস

    “অনেক তো আছে আপনাদের , বিজনেস ধান্দা ত্যাগ করে ওদের একটুখানি সাহায্য করে দেখুন , সত্যিকারের ভালো লাগা অনুভব করবেন ।”

    মানবীয় গুণাবলীকে বিপণনের বিপণনযোগ্য পন্য না বানিয়ে মানুষকে মানুষ ভাবতে শিখুন!!

    আপনার লিখনিতে নেশা আছে…

    1. মানবীয় গুণাবলীকে বিপণনের
      মানবীয় গুণাবলীকে বিপণনের বিপণনযোগ্য পন্য না বানিয়ে মানুষকে মানুষ ভাবতে শিখুন!!

      ধন্যবাদ তারিক লিংকন

  2. একজন নয় এরা অনেক রেশমাকেই
    একজন নয় এরা অনেক রেশমাকেই সুন্দর জীবন দিতে পারে। কিন্তু পুঁজিবাদী সমাজ তা করতে দিবে কেন!!!

    1. অনেক অনেক রেশমা হাত পা হারিয়ে
      অনেক অনেক রেশমা হাত পা হারিয়ে আজ পরিবারসহ অসহায় তাদের জন্য ‘ কোথাও কেউ নেই ‘ , কেউ থাকে না

  3. ঠাস করে করে দেওয়া একটা
    ঠাস করে করে দেওয়া একটা থাপ্পড়ের শব্দ পেলাম আপনার লেখায়। ওয়েস্টিনের সেই শব্দ শোনার কান আছে কিনা জানিনা।

    1. আতিক ভাই ,
      পুঁজিবাদীরা

      আতিক ভাই ,
      পুঁজিবাদীরা অলৌকিকতা খুজে !
      যারা লৌকিক তাদের কেউ নাই … তারা মারা যাবে এইটাই স্বাভাবিক । ওয়েস্টিন ৩৫ হাজার বেতন দিয়ে কয়েক কোটি টাকার বিজনেস কিনে নিয়েছে , এতে রেশমাদের লাভ হয় নাই

  4. এত তীব্র ব্যাঙ্গ কি ওয়েস্টিন
    এত তীব্র ব্যাঙ্গ কি ওয়েস্টিন এর কানে পউছাবে। চমৎকার বলেছেন। অবাস্তব স্বপ্নচারী ভাই এর সুরেই বলব ”আপনার লেখায় নেশা আছে । ”

    1. ওয়েস্টিন ৩৫ হাজার বেতন দিয়ে
      ওয়েস্টিন ৩৫ হাজার বেতন দিয়ে কয়েক কোটি টাকার বিজনেস কিনে নিয়েছে , এতে রেশমাদের লাভ হয় নাই

      ধন্যবাদ অচিন্ত্য দূর্বাঘাস

    2. কথাটা অবাস্তব স্বপ্নচারী বলে
      কথাটা অবাস্তব স্বপ্নচারী বলে নি আমি বলেছি!! 🙁

      অসুবিধা নাই ধন্যবাদ… 😉

  5. একটা কথা মনে পড়ে গেলোঃ
    আমরা

    একটা কথা মনে পড়ে গেলোঃ
    আমরা সভ্য হই নাই , হয়েছি ব্যবসায়ী..……ভাল লাগল.…চেতনার জায়গাতে আঘাত দেয়ার মত…

  6. দারুন লিখেছেন ব্রাদার, ডা:
    দারুন লিখেছেন ব্রাদার, ডা: আতিক ভাইয়ের মত আমিও একটা “ঠাস” আওয়াজ শুনলাম মনে হয়!!! :তালিয়া: :থাম্বসআপ:

  7. আজ থেকে হাজার বছর আগে মানুষ
    আজ থেকে হাজার বছর আগে মানুষ আধুনিক ছিল না বটে, তবে ব্যবসায়ীও ছিল না। আর এখন আমরা সেন্টিমেন্ট নিয়ে ব্যবসা করি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *