গুরু তোমায় সালাম

আজকে সারাটা দিন কিভাবে জানি কেটে গেল! কত কথা চারপাশে! অতীত হয়তবা এভাবেই হারিয়ে যায়।
******************
২০১১সালের ০৫জুন। যথারীতি সারা বিশ্বের মত বাংলাদেশেও পালিত হচ্ছিল বিশ্ব পরিবেশ দিবস। কিন্তু এদেশের সঙ্গীতের গোটা পরিবেশে যেন বিরাজ করছিলো এক থমথমে অবস্থা।করবেই না বা কেন? সকাল১০টা ২০মিনিটেই তো অসংখ্য ভক্তদের কাঁদিয়ে না ফেরার দেশে পাড়ি দিয়েছেন, এদেশের পপ মিউজিকে কাণ্ডারি ও বীর মুক্তিযোদ্ধা আজম খান। দুরারোগ্য ক্যান্সারে নিভে যায় পপগুরুর জীবন প্রদীপ। দিনটা ছিল রবিবার। সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালের বাতাসও যেন কেঁদে ফিরছিলো এই পপগুরুর মৃত্যুতে।
~~~~~~~~~~~~~~~~


আজকে সারাটা দিন কিভাবে জানি কেটে গেল! কত কথা চারপাশে! অতীত হয়তবা এভাবেই হারিয়ে যায়।
******************
২০১১সালের ০৫জুন। যথারীতি সারা বিশ্বের মত বাংলাদেশেও পালিত হচ্ছিল বিশ্ব পরিবেশ দিবস। কিন্তু এদেশের সঙ্গীতের গোটা পরিবেশে যেন বিরাজ করছিলো এক থমথমে অবস্থা।করবেই না বা কেন? সকাল১০টা ২০মিনিটেই তো অসংখ্য ভক্তদের কাঁদিয়ে না ফেরার দেশে পাড়ি দিয়েছেন, এদেশের পপ মিউজিকে কাণ্ডারি ও বীর মুক্তিযোদ্ধা আজম খান। দুরারোগ্য ক্যান্সারে নিভে যায় পপগুরুর জীবন প্রদীপ। দিনটা ছিল রবিবার। সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালের বাতাসও যেন কেঁদে ফিরছিলো এই পপগুরুর মৃত্যুতে।
~~~~~~~~~~~~~~~~

পপ সম্রাট আজম খান।আসল নাম মোহাম্মদ মাহবুবুল হক খান। জন্মেছিলেন ২৮ফেব্রুয়ারি, ১৯ ৫০, আজিমপুরে। বাবা-মার আদরের সন্তান। ছোটবেলা থেকেই সংগীতানুরাগী ছেলেটি যখন SSCপাস করলেন, তার কিছুদিন পরেই উত্তাল হলো সমস্ত পূর্ব পাকিস্তান।
১৯৬৯সালের গণ অভ্যুত্থান। এই ছেলেটি তখন ক্রান্তি শিল্পী গোষ্ঠির সক্রিয় সদস্য। পাকিস্তানী শাসক গোষ্ঠির বিরুদ্ধে প্রচার করলেন গণসঙ্গীত। কেঁপে উঠলো পাকিস্তানীদের আরশ। গুরু এভাবেই করলেন শুরু. . . . . .
সালটা ১৯৭১। মানবতা বিপন্ন হওয়ারই যেন আরেক নাম। গুরুর বয়স তখন ২১। পায়ে হেঁটে আগরতলা পৌঁছালেন তিনি এবং তার ২বন্ধু। মূলত, উদ্দেশ্য ছিল ২নং সেক্টরের কমান্ডার মেজর খালেদ মোশাররফের অধীনে যুদ্ধ করার এবং গান গেয়ে মুক্তিযোদ্ধাদের অনুপ্রাণিত করা। কিন্তু,মেঘালয় থেকে ট্রেনিং নিয়ে তিনি পুরোদস্তুর সশস্ত্র মুক্তিযোদ্ধা হয়ে যান এবং তার চরম বীরত্ব ও সাহসিকতা দেখান কুমিল্লার সালদায়। বাংলা মায়ের এই দামালছেলেগুলো সম্মুখ সমরে মোকাবিলা করেছিল শক্তিশালী পাকিস্তান সেনাবাহিনী। কুমিল্লার সম্মুখ সমরের পর আজম খান আগরতলায় ফিরে যান এবং পরবর্তীতে আজম খানকে ২নং সেক্টরের একটা সেকশনের ইনচার্জ করে ঢাকায় পাঠানো হয় একটা স্পেশাল গেরিলা অপারেশনের জন্য।
“অপারেশন তিতাস”নামের এই অপারেশনটি ছিল ঢাকার বড় বড় আন্তর্জাতিক হোটেলগুলোর গ্যাস সাপ্লাইকে বিঘ্ন করার যাতে সেখানে অবস্থানরত বিদেশি সাংবাদিকরা গেরিলাদের ক্ষমতা বুঝতে পারে।এ অপারেশনটি করতে গিয়ে তিনি আঘাত পান,যা পরবর্তীতে তার শ্রবণ শক্তিকে ক্ষতিগ্রস্থ করে। এ অপারেশন ছাড়াও,সেকশান ইনচার্জ হিসেবেতিনি ঢাকার বেশ কয়েকটি গেরিলা অপারেশনের নেতৃত্বও দেন। ১৯৭১এর ডিসেম্বরে তিনি তার সঙ্গীদের নিয়ে পরিপূর্ণভাবে ঢাকায় প্রবেশের আগে মাদারটেকের কাছে ত্রিমোহনীতে সংগঠিত যুদ্ধে চরমভাবে পরাজিত করেন পাকসেনাদের।
==============
গুরু তোমায় সালাম ।। বিনম্র শ্রদ্ধান্জলি এই বীর মুক্তিযোদ্ধা ও সঙ্গীতের কান্ডারির প্রতি। আজ তার ২য় মৃত্যুবার্ষিকী। আসুন,আমরা তার বিদেহী আত্মার মাগফেরাত কামনা করি ।।

১২ thoughts on “গুরু তোমায় সালাম

  1. বাংলা সঙ্গীত আজ যে আধুনিকতার
    বাংলা সঙ্গীত আজ যে আধুনিকতার উপর দাঁড়িয়ে আছে, পপ সম্রাট আজম খানের অবদান অনস্বীকার্য!

  2. “গুরু তোমায় সালাম ।। বিনম্র
    “গুরু তোমায় সালাম ।। বিনম্র শ্রদ্ধান্জলি এই বীর মুক্তিযোদ্ধা ও সঙ্গীতের কান্ডারির প্রতি।”
    ধন্যবাদ শত ব্যস্ততার মাঝে তাঁকে শ্রদ্ধা দেখানোর সুযোগ করে দেয়ার জন্যে…
    গুরু তোমাই সালাম… :salute: :salute: :salute: :salute: :salute: :salute: :salute: :salute: :salute: :salute: :salute: :salute: :salute:

  3. তা তো বটেই। আর তিনি যে
    তা তো বটেই। আর তিনি যে আধুনিকতার সৃষ্টি করেছিলেন ওটাই বর্তমান বাংলা গানের ভিত্তি। @নূর নবী দুলাল।

  4. “গুরু তোমায় সালাম” আসলেই যে
    “গুরু তোমায় সালাম” আসলেই যে কথাটা যাকে মানাই তাকেই বলা হয়েছে ……………আবারো আর একবার ” গুরু তোমায় সালাম” :salute:

  5. লাল সালাম একজন বীর
    লাল সালাম একজন বীর মুক্তিযোদ্ধা, সঙ্গীতজ্ঞ আজম খান কে । এমন নিপাত সহজ, সরল, অমায়িক মানুষ কী করে অস্ত্র ধরে আমাদের মহান মুক্তিযুদ্ধে সম্মুখ সমরে লিপ্ত হয়েছিলেন তা ভেবে আমি অবাক বনে যাই । আমার অন্তরের গভীর শ্রদ্ধা আপনার জন্য । আপনি বেঁচে থাকবেন বাঙালির হৃদয়ের মাঝে । :salute: :salute: :salute:

  6. মন্তব্যের জন্য
    মন্তব্যের জন্য ধন্যবাদ।
    *******************
    স্বপ্নগুলি এই ফাগুনে কৃষ্ণচূড়া হয়ে ফুটুক।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *