Rape & Violence

২০১১ সালের এক পরিসংখ্যান অনুযায়ী আমেরিকা যুক্তরাষ্ট্রে প্রতি পাঁচজনের একজন নারী ধর্ষিত । প্রতি দুই মিনিটে একজন ধর্ষিত হয় । অনেক মুমিন বান্দা থেকে শুরু করে ছাগু হাগু চুশীল চুমাপো এইটা নিয়া লাফালাফি করে । নারী স্বাধীনতা বলতে উহারা কি বুঝে জানি না , তবে নারী পুরুষ সমঅধিকার শুনলেই এরা ঘেউ ঘেউ শুরু করে এবং উপরের তথ্যগুলো নিয়া লাফা লাফি করে ।
বোরখা বস্তার পক্ষে এই হল তাদের যুক্তি যে , নারীরা ঘর থেকে বের না হলে অথবা হলেও সম্পূর্ণ বাক্সবন্দী হয়ে বেরুলে ধর্ষণ কমে যাবে । এটার জবাব কেউ দেয় নাই আগে , যদিও প্রয়োজন ছিলো ।

২০১১ সালের এক পরিসংখ্যান অনুযায়ী আমেরিকা যুক্তরাষ্ট্রে প্রতি পাঁচজনের একজন নারী ধর্ষিত । প্রতি দুই মিনিটে একজন ধর্ষিত হয় । অনেক মুমিন বান্দা থেকে শুরু করে ছাগু হাগু চুশীল চুমাপো এইটা নিয়া লাফালাফি করে । নারী স্বাধীনতা বলতে উহারা কি বুঝে জানি না , তবে নারী পুরুষ সমঅধিকার শুনলেই এরা ঘেউ ঘেউ শুরু করে এবং উপরের তথ্যগুলো নিয়া লাফা লাফি করে ।
বোরখা বস্তার পক্ষে এই হল তাদের যুক্তি যে , নারীরা ঘর থেকে বের না হলে অথবা হলেও সম্পূর্ণ বাক্সবন্দী হয়ে বেরুলে ধর্ষণ কমে যাবে । এটার জবাব কেউ দেয় নাই আগে , যদিও প্রয়োজন ছিলো ।

আদর্শ হিসেবে অনুভূতিবাজ পাবলিকেরা বারবার পাকিস্তান আফগানিস্তান ইরানের কথা বলে । এদের মধ্যে ইরান পৃথিবী বিচ্ছিন্ন । তুলনামূলক ভালো অবস্থানে থাকা পাকিস্থানের কিছু তথ্য দেখা যাক ।

২০১১ সালে পাকিস্থানে কোনো ধর্ষণ হয় নাই ! তবে জোড় করে সেক্স করা হয়েছে অনেক নারীর সাথে । জোড় করে সেক্স করাকে আবার ধর্ষণ বলা হয় না মুসলিম দেশগুলোতে , যদি দেনমোহর নামক খাজনা দিয়ে মেয়েটাকে কিনে নেওয়া হয় ।

বছর : ২০১১
পাকিস্থানের জনসংখ্যার ৪৯ শতাংশ নারী । অর্থাত্‍ মোট জনসংখ্যা ১৭৬৭৪৫৩৬৪ জনের মধ্যে ৮৬৬০৫২২৪ জন নারী । এই নারী জনসংখ্যার ৮৫ % অর্থাত্‍ প্রায় ৭৩৬১৪৪৪৫ জন স্বীকার করেছে যে তাদের বিয়েতে তাদের সম্মতি ছিলো না । তবে এদের ৭৭ শতাংশই পরিবারের মান সম্মানের কথা ভেবে বিয়ের পরে স্বামীর সংসার করছে । আইনত বৈধ এই স্বামীরুপী ধর্ষকদের দ্বারা ধর্ষিত তারা । ভাগ্যকে মেনে নেওয়া অথবা মৃত্যুবরণ করা । ( সূত্র : http://jantrust.org/news/167-forced-marriage-report-launch )

২০১১ সালে পাকিস্তানে প্রেমের সম্পর্ক থাকার জন্যে হত্যা করা হয়েছে ৫৯৫ জনকে । অনার কিলিং এর কারণে মারা গেছে ৯৪৩ জন নারী । সেক্সুয়াল ভায়োলেন্স এর অভিযোগ এসেছে ৮৫৩৯ টি । সেই সাথে মনে রাখতে হবে , এই অভিযোগ মাত্র ৬ % নারীর । প্রাণ আর মানের ভয়ে ৭৭% চুপ ।

পাকিস্তানের আয়তন ৭৯৬০৯৫ বর্গ কিমি । সব ধরণের অত্যাচার হিসেবে ধরলে পাকিস্তানে যৌন হয়রানী ও ধর্ষনের শিকার নারী সংখ্যা প্রায় ৭৩৬২৪৫২২ জন ।

সুতরাং পাকিস্তানে প্রতি বর্গ কিলোমিটারে যেকোনোভাবে অত্যাচারের শিকার নারী সংখ্যা প্রায় ৯২ জন । –(i)

[তথ্য সূত্র : ১। http://m.theweek.com/article.php?id=225998
২। http://www.thenews.com.pk/Todays-News-2-120862-8539-women-became-victims-of-violence-in-2011-report ]
__

২০১১ সালে আমেরিকা যুক্তরাষ্ট্রে সেক্সুয়ালি হ্যারেসমেন্ট এবং ডোভেস্টিক ভায়োলেন্সের ফলে আক্রান্ত ভিক্টিভের সংখ্যা ২০৭৭৫৪ জন । প্রায় ৩১১৫৯১৯১৭ জনসংখ্যার দেশে আমেরিকায় ঐ বছর ধর্ষিত হয়েছে প্রায় তিন কোটি বারো লক্ষ নারী । এর মধ্যে ৩৮ শতাংশ নারী ধর্ষিত হয়েছে তাদের বন্ধু বা আত্মীয়দের দ্বারা ।
অর্থাত্‍ মুমিনদের ভাষ্য অনুযায়ী উগ্র এবং খোলামেলা পোশাকের জন্য রেপ করা হয় প্রায় ২২৪৩৪৬১৮ জন মেয়েকে ।

আমেরিকা যুক্তরাষ্ট্রের আয়তন ৯৮২৬৬৩০ বর্গ কিলোমিটার । নারীর উপরে সব ধরণের সহিংসতাকে আমলে নিলে অত্যাচারীত নারীর সংখ্যা প্রায় ২২৬৪২৩৭২ জনের মতো ।

সুতরাং যুক্তরাষ্ট্র নামক দেশ , যেখানে মেয়েরা হাফ প্যান্ট পইরা ঘুরে , সেখানে ২০১১ সালে প্রতি বর্গ কিমিতে যেকোনো ভাবে অত্যাচারের শিকার নারীর সংখ্যা ২৩ জনের চেয়ে একটু বেশি ।

[ যুক্তরাষ্ট্র পাকিস্থানের চেয়ে সাড়ে বারো গুণ বড় একটা দেশ । তাছাড়া আমেরিকার সকল হিসাব যেভাবে পাই টু পাই পাওয়া যায় পাকিস্তানের ক্ষেত্রে তা পাওয়া যায় না । যতটুকু পাওয়া গেছে তাতেই এই ভয়ানক পার্থক্য ]

ধর্ষকের কোনো দেশ নেই ।
ধর্ষকের কোনো ধর্ম নেই ।
তবুও কিছু দেশ আর কিছু ধর্ম
ধর্ষকদের উত্‍সাহিত করে ।
আমার দেশের মাটিতে এদের জায়গা হবে না কখনোই ।
বাংলার মায়েদের , মেয়েদের চির উন্নত মম শির ।

জয় বাংলা ।
জয় নারীত্ব ।

৪ thoughts on “Rape & Violence

  1. চমৎকার…
    আর তথ্যগুলো জানার

    চমৎকার…
    আর তথ্যগুলো জানার মত, ধন্যবাদ!!!
    দেখেন ভাই পশ্চিমা বিশ্বের সংজ্ঞায় গেলে আমাদের দেশের ১০০% বিবাহিত নারীই নিজ স্বামীর হাতে অন্তত সপ্তাহে একবার করে ধর্ষিত হয়…
    আর অবিবাহিত মেয়েদের বঞ্চনা আর লাঞ্চনার কথায় নাইবা গেলাম!!

  2. আমাদের দেশেও জোড় করে বিয়ে
    আমাদের দেশেও জোড় করে বিয়ে দেয়া হয় । এখানেও মেয়েরা ইচ্ছার বিরুদ্ধে স্বামীর সাথে থাকে । কিন্তু এই সংখ্যাটা প্রায় শূণ্য যেখানে এই পারিবারিক সিদ্ধান্ত অমান্য করার জন্য মেয়েদের হত্যা করা হয় ।

  3. কিছু ছাগ নেতা তো এইটাই
    কিছু ছাগ নেতা তো এইটাই চাইতাছে, বিয়ার নাম নিয়া ইচ্ছা মতো এই দেশে তারা ধর্ষণের স্বাধ নিতে চায়

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *