দুর্নীতি যখন খেলার মাঠে

একটা সময় ভারতের অন্ধ সমর্থক ছিলাম। তখন মনে হতো ক্রিকেট বলতে ভারত, আর ভারত বলতেই শচীন। আর এখন প্রকৃতই ক্রিকেট বলতে ভারত হয়ে গেছে।
ভারতীয় ক্রিকেট ইতিহাসের সোনালি যুগটা আজ পিতলে পরিণত হয়েছে। রং মেখে কেবল সোনালী দেখানোর চেষ্টা চলছে।

ক্রিকেট খেলা থেকে থার্ড আম্পায়ার পদ্ধতিটা বাতিল করা উচিত আইসিসির। মাঠের দুইজন আম্পায়ার যেকোন বিষয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত গ্রহণ করবে (অনেকটা পাড়ার খেলার মত)। তাতে দর্শকদের মধ্যেও কোন প্রতিক্রিয়ার সৃষ্টি হবে না। বিজ্ঞানের কল্যাণময় অবদানকে অস্বীকার করে যখন বিতর্কিত কোনো সিদ্ধান্ত প্রদান করা হয় তখন স্বাভাবিকভাবেই দর্শকদের মধ্যে প্রচণ্ড ক্ষোভের সৃষ্টি হয়। থার্ড আম্পয়ার না থাকলে এসব বিষয়ে কোন বিতর্কের সৃষ্টি হবে না। ইচ্ছা মতো যত্রতত্র পাড়ার মাঠের মত যে কোন সিদ্ধান্ত দিতে পারবে।

বর্তমানে আমাদের দৈনন্দিন জীবনের প্রায় প্রতিটি ধারায় দুর্নীতি ছেয়ে গেছে। সারাদিন নানা কাজের পর, কিংবা কাজের ফাঁকে সিংহভাগ দর্শকই খেলা দেখে কেবলমাত্র মানসিক তৃপ্তির জন্য( কিছু জুয়ারো ছাড়া)। এই সাধারণ দর্শকদের কাছে খেলা একটি বিনোদন কিংবা আত্মতৃপ্তির বিষয়। তারা খেলাকে কেন্দ্র করে কোন অর্থনৈতিক চিন্তা করে না। সেই সাধারণ দর্শকদের জন্য হলেও খেলাকে খেলার মত স্বাধীনতায় রাখা উচিত।
ক্রিকেট ভদ্রলোকের খেলা। কথাটা এখনো খুব প্রচলিত, তবে বর্তমান সময়ে তার ভেতর ভদ্রতা ঠিক মত দেখা যায়না। অভদ্র আচরণ থেকে শুরু করে জুয়া সবকিছুই যেন বর্তমানে ক্রিকেটকে ঘিরে রেখেছে।
আমরা এর প্রতিকার চাই। খেলা হোক সার্বজনীন, খেলা হোক সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ। যে দল জিতবে, তারা তাদের নিজেদের যোগ্যতা দিয়েই জিতবে। তা হলে কোন দর্শকই আর হতাশ হবে না। খেলায় হার জিত ছিল, থাকবে। তবে আমরা দেখতে চাই যোগ্যতার খেলা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *