প্রসঙ্গ – বন্ধুত্ব


আজ ফেসবুকে এক বন্ধুর ওয়ালে “বন্ধুত্ব” নিয়ে পোস্ট দেখলাম। ছেলে এবং মেয়ের বন্ধুত্ব নিয়ে বলা হয়েছে- “শতকরা নিরানব্বই ভাগ ক্ষেত্রেই সম্পর্কটা শুধুমাত্র বন্ধুত্বে সীমাবদ্ধ না । কেউ একজনএকটুখানি এগিয়ে এসে ক্রাশ খাবেই (বেশিরভাগ ক্ষেত্র ছেলেরাই এ ভূলটা করে থাকে) !”
আমি এই ব্যাপারটা নিয়ে কিছু আলোকপাত করতে চাই।

ছেলে এবং মেয়েকে যদি এক করে দেখা যায়, তবে আমার প্রশ্ন – “কেন বন্ধুত্ব নয়?”
ছেলেটি মেয়েটির উপর ক্রাশ খাব…ে কিনা এটি কিছু জিনিসের উপর নির্ভর করে,
– যদি ছেলেটি সিঙ্গেল থাকে।


আজ ফেসবুকে এক বন্ধুর ওয়ালে “বন্ধুত্ব” নিয়ে পোস্ট দেখলাম। ছেলে এবং মেয়ের বন্ধুত্ব নিয়ে বলা হয়েছে- “শতকরা নিরানব্বই ভাগ ক্ষেত্রেই সম্পর্কটা শুধুমাত্র বন্ধুত্বে সীমাবদ্ধ না । কেউ একজনএকটুখানি এগিয়ে এসে ক্রাশ খাবেই (বেশিরভাগ ক্ষেত্র ছেলেরাই এ ভূলটা করে থাকে) !”
আমি এই ব্যাপারটা নিয়ে কিছু আলোকপাত করতে চাই।

ছেলে এবং মেয়েকে যদি এক করে দেখা যায়, তবে আমার প্রশ্ন – “কেন বন্ধুত্ব নয়?”
ছেলেটি মেয়েটির উপর ক্রাশ খাব…ে কিনা এটি কিছু জিনিসের উপর নির্ভর করে,
– যদি ছেলেটি সিঙ্গেল থাকে।
– ছেলেটির প্রতি মেয়েটির যদি ভাই/বন্ধুত্বের গাঢ় সম্পর্ক থাকে এবং ছেলেটি তার অর্থ বুঝতে ভুল করে।
– ছেলেটি ঐ উদ্দেশ্য নিয়েই যদি আগায়।
কিন্ত এগুলো শর্ত থাকা সত্বেও ছেলের যদি মনোবল থাকে, আর সাধারনভাবে নেবার যোগ্যতা থাকে কোন বিষয়কে, তবে সে বন্ধু হিসেবে অবশ্যই থাকতে পারবে।

এবার আশা যাক আরেকটি ব্যাপারে, অনেক ছেলে আছে যারা ইচ্ছে করেই ফাজলেমি করে মেয়েদের সাথে। আমি পারসোনালি একটা জিনিস শেয়ার করছি- আমার ভার্সিটিতে আমার মেয়ে-বান্ধবীর সংখ্যাই বেশি এবং এদের সাথে আমি সস্তা ফ্লারটিং মার্কা ফাজলেমিও করি। অনেক ছেলে এবং মেয়ে আছেন এরকম। আগে কোন কোন মেয়ে একে সিরিয়াস ভেবে আমাকে সরিয়ে দিত। কিন্ত তারা আসল রহস্য বোঝার পর আবার ফিরে এসেছে। কিন্ত এই আচরণ দেখে, যদি কেউ ভাবে কেউ ক্রাশ খেয়েছে তবে সে ভুল। আমি একাই নই। মন-খোলা ফাজলেমি অনেকেই করে এবং তাকে অনেক ছেলে বা মেয়েই ক্রাশ ভেবে ভুল করে। এ জন্যেই অনেক বন্ধুত্ব নষ্ট হয়।

আপনি আগে একজন মানুষের সাথে একদিন না, অন্তত এক সপ্তাহ চলুন, তাকে বুঝুন, তাকে বোঝার যোগ্যতা অর্জন করতে পারলে সেও বুঝবে আপনি কেমন। সুতরাং, বন্ধুত্বের মত ব্যাপারে “ঠাস” করে কিছু না করে ধীরে ধীরে আগাতে শিখুন। কারণ একটি বন্ধুত্বের সম্পর্ক যেমন অসামান্য সুখ দেয়, তেমনি তা ভাঙলে যে দুঃখ পাওয়া যায়, তার সাথে কিছুই তুলনা করা যায় না।

২ thoughts on “প্রসঙ্গ – বন্ধুত্ব

  1. হুম । বন্ধুত্ব !!!! খুব সত্যি
    হুম । বন্ধুত্ব !!!! খুব সত্যি কিছু কথা উপস্থাপন করেছেন ।

  2. মন-খোলা ফাজলেমি অনেকেই করে

    মন-খোলা ফাজলেমি অনেকেই করে এবং তাকে অনেক ছেলে বা মেয়েই ক্রাশ ভেবে ভুল করে। এ জন্যেই অনেক বন্ধুত্ব নষ্ট হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *