সৃষ্টির উদ্দেশ্য,

মানুষ সৃষ্টি করছে কলম-যার কাজ লেখা। মানুষ সৃষ্টি করেছে যানবাহন-যার কাজ পরিবহন করা। মানুষ সৃষ্টি করেছে টেলিফোন-যার কাজ কথা আদান প্রদান করা এইভাবে আমরা যা দেখি মানুষ যা কিছুই সৃষ্টি করেছে তার কিছু না কিছু উদ্দেশ্য অবশ্যই রয়েছে। এমনকি ঘরে সাজানো কৃত্যিম ফুল দানিটারও একটি উদ্দেশ্য আছে-আর তা হল সৌন্দর্য অবলোকন। বিনা উদ্দেশ্য তৈরি মানুষের কোন সৃষ্টিই নাই। আমরা দেখি হাতি, ঘোড়া, বাঘ, হড়িন, গন্ডার সকল প্রানির মধ্যে একটি গভির সম্পর্ক আছে-যাকে আমরা বাস্ত তন্ত্র বলে থাকি।
যেখানে একটি প্রানি লুপ্ত হলেও অন্য প্রানিরাও সংকটে আপতিত হয়। এইভাবে আমরা লক্ষ করি সমগ্র জীব জগতের অস্তিত্বের পিছনে রয়েছে এক মহত উদ্দেশ্য। এমন কোন জিনিসের অস্তিত্ব খুজেই পাওয়া যাবে না যার অস্তিত্ব বিনা কোন উদ্দেশ্যে। সে একটি ক্ষুদ্র ধান থেকে বৃহত্তর নক্ষত্র পর্যন্ত। একথা চুরান্ত ভাবে বলা যাই যে, প্রত্যেক টা সৃষ্টির পিছনে কিছু না কিছু কারন বিদ্যমান। তাহলে এটা কি সম্ভব মানব জাতির উদ্ভব হয়েছে বিনা উদ্দেশ্যে?? বাস্তবতা লক্ষ করে এটুকু অবশ্যই বলা যাই যে, সৃষ্টির সেরা জীব মানুষের উদ্ভবের কোন মহৎ উদ্দেশ্য অবশ্যই রয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *