কাঁটাতার

যখন দুটি হৃদয়ের মিল হওয়া সত্ত্বেও-
ধর্মের দোহাই দিয়ে দূরে সরিয়ে দেওয়া হয়, তখন স্পষ্ট হয়ে উঠে ভালোবাসা’কে অস্বীকার করে ধর্ম।
ভালোবাসা’র যেহেতু নেই কোন ধর্ম, নেই কোন কট্টর নিয়মকানুন, নেই হিংস্রতা- তাই বারেবারে মানুষ বেছে নেয় ভালোবাসা।
আর ধর্ম মানুষ’কে ভালোবাস’তে অস্বীকার করায়। যদি স্বীকারই করতো তবে ধর্মের মধ্যে কোন ভেদাভেদ রইতো না।
হিন্দু-মুসলিমের মধ্যে প্রেম হতো স্বীকৃত। বৌদ্ধ-খ্রিষ্টান-হিন্দু-মুসলিম-ইহুদির মাঝে বিভেদের দেয়াল ভেঙে পড়তো অচিরেই।
যেদিন মানুষ বুঝবে ভালোবাসা’কে ভয়ভীতি দেখিয়ে বন্দি করে রাখা সম্ভব নয়; সেদিন ঈমামের সামনেই মসজিদের ভেতরে দাঁড়িয়ে চুম্বন করে জানানো হবে ভালোবাসার কোন সীমানা নেই, নেই কোন কাঁটাতার।
মন্দিরে দাঁড়িয়েই পুরোহিতকে শোনাবো হবে লাগামহীন প্রেমের পদ্য।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *