ছুটির দিন গুনছি

টুপ টুপ বৃষ্টির জলফোটার শব্দ শুনছি,
আজও কি কাতর হয়ে ছুটবে!
সেদিন শ্রাবনসন্ধ্যায় যেমন ছুটেছিলে!
ভেজা হাওয়ার ঝাপটায় শ্রাবন আবার তুমিময়।
টুপ টুপ বৃষ্টির জলফোটার শব্দ শুনছি,
আজও কি বারান্দায় গুনগুন করে রবীন্দ্রচর্চা হবে!
নাকি ওপারের ব্যাস্ততায় ভুলে গেছ,
কাচের চুড়ি আর হাত দুখানি শেষ ভিজিয়েছ সেই কবে।
মধ্যরাতের ভেজা শ্রাবন আবার তুমিময়।
আমি এখনো রোজ সোডিয়াম সন্ধ্যার আসরে বসি,
কামিনীতলার কাকেরা আজও অর্ধেক রুটিতেই খুশী।
নির্বাক চাউনির কাছে অস্তিত্বের প্রশ্ন তুলে,
জোনাকিরা হারিয়ে গেছে বহু আগে,
শাহবাগের ডাস্টবিনটা আজও উপচে পড়ে ফুলে ফুলে।
কদম্ববৃক্ষ আর শ্রাবন, ওরাও হারিয়ে যাবে।
শুধু তোমাতেই বেচে রইবে শুন্য আকাশ, আমাকে ভুলে।
আজকাল তারার গায়ে নুপুরের রিনঝিন শুনছি,
কষ্টেও হাসছি আর নরকের দিনগুলোও গুনছি,
ব্যাস্ততা শেষে ছুটির দিন এসে গেছে,
বাইরে টুপ টুপ বৃষ্টির জলফোটার শব্দ শুনছি।

৩ thoughts on “ছুটির দিন গুনছি

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *