বেকারবৃত্তান্ত—-!

-বেকারদের কোন আকার থাকেনা অনেকটা জলের মত।জল যেমন যে পাত্রে রাখা হয় সেই আকার ধারন করে তেমনি বেকাররা ও নিজেদেরকে নিজস্ব কাজ এবং অন্যদের কাজে সমভাবে ব্যবহার করতে পারে।তাদের কোন পিছুটান থাকেনা।তাদের প্রধান কাজ হল চোখের সামনে যা পায় তা নিয়া ব্যাস্ত হয়ে পরা।

-বেকারদের প্রেয়সী হয় খুব ধনী পরিবারের।চিন্তার বেশিরভাগ জায়গা দখল করে নেয় ধনী-রমনী।

-বেকারদের সপ্ন দেখা মহাপাপ। কারন সপ্ন পুরন করার মত সম্বল খুব কম।

-বেকাররা বেশিরভাগ সময় উদাসমনে আকাশপানে থাকিয়ে থাকে,আর ভাবে পিছনে ফেলে আসা সোনালী অতীতের কথা।

-দিনের শুরু হয় একরাশ ধূসর ধোয়া ছড়িয়ে আর দিনের শেষে ক্লান্ত শ্রান্ত নিরব নগরীতে তাদের সঙ্গী হয় জ্বলন্ত সিগারেটের ধোয়া।

-রাতের আকাশে হাজারো তারার নিজের অবস্তান খুঁজে বেড়ায় তারা।
চারপাশের ধোঁয়াটে পরিবেশ আর নিজের জীবনের অনিশ্চিত হিসাব মিলানোর চেস্টায় অনুভূতিহীন হয়ে পড়ে তারা।

৮ thoughts on “বেকারবৃত্তান্ত—-!

  1. আপনি আবারও ইস্টিশনবিধি-৫
    আপনি আবারও ইস্টিশনবিধি-৫ লঙ্ঘন করে প্রথম পাতায় দুইয়ের অধিক পোস্ট দিয়েছেন। এই নিয়ে আপনাকে দ্বিতীয় বারের মতন সতর্ক করা হলো। ভবিষ্যতে ইস্টিশনবিধি মেনে ব্লগিং করার জন্য অনুরোধ করা হচ্ছে।

  2. যায় হোক ভাই আপনি মনে হচ্ছে
    :কনফিউজড: :কনফিউজড: :কনফিউজড: যায় হোক ভাই আপনি মনে হচ্ছে ইস্টিশন বিধি ৫ বুঝতে পারছেন না ?আমি নিজেও একবার এই ভুল করেছিলাম । শিডিউল এর ১ম পাতায় এত পোস্ট দেন কেন? কম কম করে পোস্ট দেন , বেশি বেশি ব্লগ পড়ুন । আপনার লেখার মান আরো ভাল হবে । শুভেচ্ছা রইল 🙂

  3. ইস্টিশন বিধি লংঘন করলেও পোস্ট
    ইস্টিশন বিধি লংঘন করলেও পোস্ট খুব ভাল হয়েছে। আমার পরাশর্শ পোস্ট লিখে সংরক্ষণ করুন। আর নিয়ম মেনে ধীরে ধীরে পোস্ট করতে থাকুন। আমরা তো আছিই এত তাড়া কিসের ?

  4. বেকার না হলেও(স্টুডেন্ট) দুই
    বেকার না হলেও(স্টুডেন্ট) দুই নাম্বার ছাড়া বেকারদের সাথে ভালই মিল আছে আমার…

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *