গুরু লালন সাইজির দৃষ্টিতে মুহাম্মদ পর্ব-১

একটু ব্যতিক্রম ভাবে গুরু লালন এর কিছু কবিতা বা গান এর লাইনের ব্যাখ্যা করব আজ। আসলে লালনের কাব্য গুলো কে বাংলা ভাষার কুরান বলা যেতে পারে।। তার গান গুলা কুরান এর আয়াত এর মতই বিভিন্নভাবে ব্যাখ্যা করা যায়। আমার গবেষণায় লালন কে প্রথমে সূফিতাত্ত্বিক মহাপুরুষ মনে হলেও মূলত তিনি ছিলেন একজন সু-চতুর ঠান্ডা মাথার নাস্তিক।। ইসলাম,আল্লাহ এমনকি কৌশলে নবিকেও তিনি কটুউক্তি করতে ছাড়েননি। বাজারে যেসব বই পাওয়া যায় লালন সাইকে নিয়ে তা মূলত এককেন্দ্রিক ভাবে সূফি ব্যাখ্যার দিকে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। সর্বমতে গ্রহনযোগ্য যে লালন এর গুরু ছিলেন সিরাজ সাই। কিন্তু,সিরাজ সাই ছারাও তিনি আরও অনেক গুরুর সান্নিধ্যে জ্ঞান লাভ করেন। তবে অফিসিয়ালি তিনি সিরাজ সাইজি কেই হাইলাইট করে গেছেন। আর জীবনের শেষের দিকে এসে তিনি বুঝতে পারেন যে সব অরগানাইজড রিলিজন-ই ভূয়া। তাইতো তিনি অবশেষে বলেছেন,

“মানুষ ভজলে, সোনার মানুষ হবি”

প্রতিটা মানুষ জন্মগত ভাবে নাস্তিক হলেও পরিবেশ তাকে এসব ফালতু যুক্তিহীন ধর্মে বিলিভ করতে বাধ্য করে। পরবর্তীতে মানুষ ধাপে ধাপে আত্মউপলব্ধির মাধ্যমে বুঝতে পারে প্রকৃত সত্য। লালন এর ক্ষেত্রেও তাই হয়েছিল বিভিন্ন ধর্মের রস আহরণ করতে করতে বুঝে ছিলেন সব ধর্মের ভণ্ডামি। ইসলামের নবিকে খোচা মেরে অনেক গান তিনি গেয়েছেন। কিন্তু,তা অনেক ক্ষেত্রেই সূফি ব্যাখ্যার দিকে নিয়ে যাওয়া হয়েছে।
নিচে সাইজির কিছু গানের লাইনের ব্যাখ্যা দেওয়া হলঃ

“কী আইন যে আনলেন নবি সক্কলের শেষে!
রেজাবন্দির সালাত-জাকাত,
পূর্ব হতেই জাহের আছে!!
টীকাঃ সক্কল=সকলের বা সবার। রেজাবন্দি=স্রষ্টার জন্য বন্দনা বিশেষ। সালাত=আপন রবের সাথে সংযোগের মাধ্যম।
জাকাত=দান করা। জাহের=জারি করা।

ব্যাখ্যাঃ সুফিমতে এসব কথার ব্যাখ্যা অন্যরকম। কিন্ত,এসব উক্তির মাধ্যমে মূলত সাইজি নবি মুহাম্মদের ভণ্ডামি প্রকাশ করেছেন। তিনি প্রশ্ন করেছেন

“হে মুহাম্মদ তুমি যে এতো জ্ঞানী, উত্তম আল্লাহর বন্ধু তুমি মানবজাতির জন্য নতুন কি এনেছ যা আগে ছিল না”
কারণ,এসব সালাত-যাকাত পূর্ব হতেই ছিল। নবি যে চরম একজন নকলবাজ তারই ইংগিত করেছেন সাইজি এখানে। এখন মডারেটরা বলে উঠতে পারেন নবি তো নতুন কিছু আনবেন না শুধুমাত্র আগের জিনিস গুলাকে রি-ফর্ম করতে এসেছেন। সকল জাতিকে সংঘবদ্ধ করতে এসেছেন। তাহলে কোরানে ইহুদীদের প্রকাশ্য শত্রু কেন বলা হল?আসলে মুহাম্মদ চুরি বিদ্যায় চরম এক্সপার্ট ছিলেন। যার জন্যই কুরানে বাইবেলের প্রভাব সবচেয়ে বেশি বাকি ১০২ কিতাবের তুলনায়। সোজাকথা মুহাম্মদ জাস্ট পুরাতন মাল নতুন মোড়কে গাধা সাহাবীদের সামনে তুলে ধরেছিলেন।। যার ফলে আবু লাহাব,আবু জেহেল ইত্যাদি জ্ঞানীদের কাছে তিনি পাগল,উম্মাদ ছিলেন।

চলবে…..

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *