কাশ্মীর ও কিছু কথা

আমাদের দেশের অনেকেই সহিহ মুসলীম সাজে পাকিস্তানের পক্ষ নিয়ে ভারতীয় পেজগুলোয় ভারতীয়দের গালিগালাজ করতে গিয়ে উল্টা বাংলাদেশের সন্মান নষ্ট করতেছে। ভারতীয়রা ঠিকই বলছে আমাদের কোন আত্মসন্মানবোধ নেই। পৃথিবীতে আমরাই একমাত্র জাতি যারা নিজেদের প্রধানমন্ত্রীকে গালি দিয়ে নিজেদেরকেই হেয় করি। নিজের দেশের মানুষের কথা না ভেবে অন্যের দালালি করে বেড়াই। সত্যি আমরা এখনও মানুষ হই নি। আমাদের দেশের ৭০% মানুষ গরিব,পত্রিকা খুললেই প্রতিদিন খুন ধর্ষণের খবর দেখি, আর সর্বস্তরে দূর্নীতি তো আছেই। এমন একটা জাতির উচিৎ হয়নি আরেকটা জাতিকে গালিগালাজ করতে।আমরা ভারতকে গালিগালাজ করতেছি অথচ ভারতের দেওয়া ভিক্ষায় আমাদের জীবন চলে। আমাদের নিজেদের দেশ নিয়ে ভাবা উচিৎ। জাম্মু কাশ্মীর নিয়ে আমাদের কষ্ট লাগে অথচ আজাদ কাশ্মীরের মানুষ না খেয়ে মরে সে খবর আমরা রাখি না। এতক্ষণ যা বললাম সব ভারতীয়দের অশ্রাব্য গালি থেকে কয়েকটা মেইন টপিকস ছিল।

এবার আমি নিজেই কিছু বলি। আপনারা চাচ্ছেন ভারত-পাকিস্তান যুদ্ধ। আপনাদের সামনে চলমান কিছু উদাহরন আছে। আপনি হয়ত সেগুলো এখন মনে করতে চাচ্ছেন না। সিরিয়ায় বোমা হামলায় মারা যাওয়ার আগে একটি শিশু কি বলেছিল? মনে আছে আপনাদের? শিশুটি বলেছিল,” তোমরা যা করছ আমি সব আল্লাহকে বলে দিব “। যাক আপনি হয়ত সেটা ভুলে গেছেন।আয়লান কুর্দির কথা মনে আছে? কিংবা সিরিয়ার ধ্বংসস্তুপ থেকে উদ্ধার হওয়া সেই শিশুটির কথা? আপনি কি ভুলে গেছেন আজ সিরিয়া, ইরাকে কতগুলো মানুষ যুদ্ধে মারা গেছে,আর কতগুলো শিশু মার পিতা-মাতা স্বজন হারিয়ে এতিম হয়েছে? আফগানিস্তানের মানুষের দূর্দশার কথা কতটুকু ভেবেছেন? আপনারা যুদ্ধ চান,আজ ভুলে গেছেন নিজের মুক্তিযুদ্ধের বলিদান। একবার ভাবুনতো যুদ্ধে কাশ্মিরের মানুষগুলোর কি হবে?আমি জানি ভারতের কাশ্মির নীতি ঠিক না। একজন মানুষ হিসেবে আমিও চাই কাশ্মিরের মানুষগুলো একটু সুখের দেখা পাক। কাশ্মির সমস্যা সমাধানের উপায় একটাই জম্মু ও আজাদ কাশ্মীরকে একত্রে করে স্বাধীনতা দিতে হবে। আপনার কি মনে হয় পাকিস্তান আজাদ কাশ্মীর ত্যাগ করবে?আর কাশ্মীর নিয়ে যদি যুদ্ধ হয় তবে নিশ্চিত থাকুন কাশ্মীরের মানুষ স্বাধীনতা তো দুরে থাক আইএসের মত সন্ত্রাসী রাষ্ট্রের জন্ম দেবে। সেই বিষে হয়ত আপনিও নীল হয়ে যাবেন কিন্তু করার কিছুই থাকবে না সেদিন।

যুদ্ধ নয় মানুষের অধিকার চাই।সেটা অবশ্যই শান্তিপূর্ণ হতে হবে।জাতিসংঘের মাধ্যমে হোক তবু যুদ্ধ চাই না।

১ thought on “কাশ্মীর ও কিছু কথা

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *