নতুন সংযুক্ত হওয়া ১৬ ইউনিয়নকে পাল্টে দিতে বিশেষ পরিকল্পনা

ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশন (ডিএনসিসি) ও ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের (ডিএসসিসি) বর্ধিত সীমানায় নতুন সংযুক্ত হওয়া ১৬ ইউনিয়নকে পাল্টে দিতে বিশেষ পরিকল্পনা নিয়েছে সরকার। ঢাকা উত্তর সিটিতে ৮টি এবং দক্ষিণ সিটিতে ৮টি ইউনিয়ন যুক্ত করা হয়। নতুন আয়তন অনুসারে দ্বিগুণ হয়েছে ঢাকা নগরীর আয়তন। এসব ইউনিয়ন যুক্ত হওয়ায় দুই ঢাকা সিটি কর্পোরেশনের এলাকার আয়তন ১২৯ বর্গকিলোমিটার থেকে বেড়ে ২৭০ বর্গকিলোমিটারে দাঁড়িয়েছে। তবে ডিএসসিসির চেয়ে ডিএনসিসির আয়তন বেশি। ১৬টি ইউনিয়ন সিটি কর্পোরেশনের আওতায় আসায় এখানকার কমপক্ষে ১০ লাখেরও বেশি মানুষ এ দুই সিটি কর্পোরেশনের আওতায় এসেছে। ঢাকা উত্তর সিটিতে যুক্ত হওয়া আট ইউনিয়ন হলো বেরাইদ, বাড্ডা, ভাটারা, সাঁতারকুল, হরিরামপুর, উত্তরখান, দক্ষিণখান ও ডুমনি (খিলক্ষেত)। ঢাকা দক্ষিণে যুক্ত হওয়া আট ইউনিয়ন হলো শ্যামপুর, দনিয়া, মাতুয়াইল, সারুলিয়া, ডেমরা, মান্ডা, দক্ষিণগাঁও ও নাসিরাবাদ। নতুন যুক্ত হওয়া ১৬ ইউনিয়নের সার্বিক উন্নতি কল্পে দুই সিটির সহযোগিতায় তৈরি করা হচ্ছে মহাপরিকল্পনা। এর মাধ্যমে দ্বিগুণ আয়তনের সীমানা নিয়ে সাজানো হবে নতুন ঢাকা। নতুন এলাকায় উন্নত পর্যায়ের নানা নাগরিক সুবিধা নিশ্চিত করতে বিদ্যুত, পানি, ড্রেনেজ, গ্যাসলাইন, উন্নত পয়ঃনিষ্কাশন ব্যবস্থা ও রাস্তার জন্য তৈরি করা হচ্ছে মাস্টারপ্ল্যান। ১৬ ইউনিয়নে নতুন ছয়টি আঞ্চলিক অফিস ও ৩৬ ওয়ার্ড তৈরি করার পরিকল্পনা গ্রহন করেছে। খুব শীঘ্রই এসব এলাকার রাস্তায় বৈদ্যুতিক আলো জ্বালানোর ব্যবস্থা করা হচ্ছে। ইউনিয়নগুলোতে নতুন ভবন নির্মাণ অনুমোদন বন্ধ করা হয়েছে। এসব এলাকার ব্যবসায়ীরদের ট্রেড লাইসেন্সের আওতায় আনা হবে। সীমানা নিয়ে সিটি কর্পোরেশনের অন্তর্ভুক্ত হওয়ায় ইউনিয়নগুলো আর ইউনিয়ন পরিষদের অন্তর্গত থাকবে না বিধায় এসব এলাকার নাগরিকগণ পাবেন উন্নত শহরে জীবনের নানান সুবিধা। এসব এলাকার বাসিন্দাদের ইতোমধ্যেই ঢাকা উত্তর ও দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশন কর্তৃপক্ষ সীমিত আকারে সেবার আওতায় নিয়ে এসেছে। যার প্রভাব গত ঈদ-উল-আযহায় লক্ষ্য করা গেছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *