গাড়ি চলেনা ও শাহ্‌ আব্দুল করিম

গত কিছু দিন যাবৎ বাংলা গান খুব বেশী বেশী শোনা হচ্ছে। এর পর হঠাৎ মনে হল বাউল গান গুলো কে কেমন গায়? ইউটিউবে খুঁজে খুঁজে গান গুলো শোনা হচ্ছিলো বার বার। এর পর ক্লোজ আপ ওয়ান এর একটা গান নজরে এল, যেটাতে, প্রতিযোগীকে উপস্থাপিকা বলছেনঃ

দলছুটের একটি জনপ্রিয় গান গাড়ি চলেনা…

বাক্যটা শুনে মনে খুব ব্যাথা লাগল।

এরপর অন্য একটা বিখ্যাত দলের মিউজিক ভিডিওতে দেখলাম, টারা খুব আনন্দ করে গানটি পরিবেশন করছেন। এসব দেখে মেজাজ খারাপ হয়ে গেল। পরের দোষ ধরতে আমরা খুব ভালোই জানি। আমিও এর বাইরে নই। যদিও আমি এই গানটি প্রথম শুনেছি দলছুটের বাপ্পা দা’র কণ্ঠে। সঞ্জীব চৌধুরীর কণ্ঠে এই গানটি আসলেই খুব জনপ্রিয়। কিন্তু তাই বলে কী গানটিকে তারা own করে? আমি জানি না ওই দিনের বিচারকদের থেকে কেউ প্রতিবাদ করেছে কিনা? অথবা, বাপ্পা বা দলছুটের পক্ষথেকে ভুলটি সংশোধন করে দিয়েছিলো কি-না?

কসম সেই মহাজনের যিনি গাড়িতে যত্ন করে টেঙ্কি ভরে পেট্রল দিলো । এই গানটি বাপ্পা মজুমদার বা দলছুটের গান নয়। এটা সেই শাহ আব্দুল করিমের লেখা গান, যাকে তার গ্রামবাসীরা নাস্তিক বলে গ্রাম থেকে বের করে দিয়েছিলো। কিন্তু তোমাদের মধ্যে যারা অজ্ঞতাবশত Close Up one এর গবেষকদের মত মহান আব্দুল করিমের লেখা গানকে অন্যের গান বলে প্রচার করেছ। তোমরা জেনে রেখ, ৩৮ কোটি বাঙ্গালী জানে এ গানের গীতিকার ও সুরকার একমাত্র ও কেবল একমাত্র শাহ আব্দুল করিম।
দেহতত্ত্বের এ গানটি সেই ব্যাক্তির জন্য তৈরি যার দেহের পার্টসগুলা ইতোমধ্যেই ক্ষয় হয়েছে, দেহ পরি চালনাকারী ইঞ্জিনে ময়লা জমেছে এবং
ডায়নমা বিকল হয়ে যাওয়ায় লাইটগুলা ঠিক মতো জ্বলে না মানে চোখের আলো ফুরিয়ে গেছে। এবং সেই মৃত্যু পথযাত্রীর জন্য যার ইঞ্জিনের কন্ডিশনও ভালো নয়, আর তার মৃত্যু যে কোন সময় অনিবার্য। অতপর তোমরা যারা মৃত্যু অনিবার্য জেনেও গানটি গাওয়ার সময়, শোক দিবসের র্যায়লীতে ছাত্রলীগ কর্মীদের মতো দাঁত কেলিয়ে গাও, তোমরা সকলেই ঘৃণ্য। ঘৃণ্য সেই নারীর মত, যে সারা জীবন কেন্দে কেন্দে লালন দর্শন কে প্রকাশ করেও, আব্দুল করিমের মতো মরমী সাধককে মিডিয়ার সমনে নাস্তিক বলে উপস্থাপন করে। জেনে রাখো, হে মানব সকল, তোমরা যারা গান গাও এবং শ্রবণ কর, উভয়েই গানের প্রকৃত অর্থ উপলব্ধি কর মন দিয়ে।
আর তোমাদের উভয়কেই আমাদের পক্ষ থেকে জানানো হচ্ছে, গানের শব্দ আসে কন্ঠ থেকে, কিন্তু সুর আসে মন থেকে। নিশ্চয়ই, গায়ক হওয়া সহজ, কিন্তু শিল্পী হওয়া সহজ নয়। শিল্পকে মনে ধারন না করলে গানে সুর আসবেনা।

শাহ আব্দুল করিমের কণ্ঠে মূল গান

সঞ্জীব চৌধুরীর কন্ঠে
বাপ্পা মজুমদেরের কন্ঠে

ক্লোজ আপ ওয়ান এ সালমার কণ্ঠে গান। ও উপস্থাপকদের ভুল উপস্থাপনা (_এই গান কবে আবার দলছুটের ছিল????????)

শোক দিবসের র্যা লীতে সেণ্ট্রাল ছাত্রলীগের হাসিহাসি মুখগুলো

দোহারের এই মিউজিক ভিডিওটিতে শিল্পী ও কলা কূশলিদের দেখে আমার খাবার উল্টো পথে বেড়ীয়ে যাওয়ার উদ্রেক ঘটেছে

https://www.facebook.com/shah.abdul.korim/videos/4589780137365/

গানটির মূল লিরিকঃ বিভিন্ন গায়কের গাওয়া গানের কথায়ও বিশেষ পার্থক্য পাওয়া গেছে।

গাড়ি চলেনা, চলেনা
চলেনা রে গাড়ি চলেনা
চরিয়া মানব-গাড়ি
যাইতেছিলাম বন্ধুর বাড়ি
মধ্যপথে ঠেকল গাড়ি উপায়-বুদ্ধি মিলে না
গাড়ি চলেনা, চলেনা
চলেনা রে গাড়ি চলেনা
মহাজনে যত্ন করে
পেট্রল দিলো টেঙ্কি ভরে
গাড়ি চালায় মন-ড্রাইভারে ভাল-মন্দ বুঝে না
গাড়ি চলেনা, চলেনা
চলেনা রে গাড়ি চলেনা
গাড়িতে পেসেঞ্জারে
অযথা গণ্ডগোল করে
হ্যান্ডল-ম্যান, কন্ট্রাক্টারে কেউর কথা কেউ শুনে না
গাড়ি চলেনা, চলেনা
চলেনা রে গাড়ি চলেনা
পার্টসগুলা ক্ষয় হয়েছে
ইঞ্জিনে ময়লা জমেছে
ডায়নমা বিকল হয়েছে লাইটগুলা ঠিক জ্বলে না
গাড়ি চলেনা, চলেনা
চলেনা রে গাড়ি চলেনা
ইঞ্জিনে ব্যতিক্রম করে
কন্ডিশনও ভালো নয় রে
কখন জানি ব্রেকফেল করে ঘটায় কোন দুর্ঘটনা
গাড়ি চলেনা, চলেনা
চলেনা রে গাড়ি চলেনা
আব্দুল করিম ভাবছে এবার
কন্ডেম গাড়ি কি করব আর
সামনে বিষম অন্ধকার করতেছি তাই ভাবনা
গাড়ি চলেনা, চলেনা
চলেনা রে গাড়ি চলেনা
গাড়ি চলেনা, চলেনা
চলেনা রে গাড়ি চলেনা

২ thoughts on “গাড়ি চলেনা ও শাহ্‌ আব্দুল করিম

    1. না, দাদা। এটা কিন্তু ঠিক বলেন
      না, দাদা। এটা কিন্তু ঠিক বলেন নাই। নকলবাজ গুলো লাইম লাইটে এসে যাচ্ছে। কারন নকল বাজেরা নিজেরাই নিজেদের ঢোল পিটায়

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *