আত্মহত্যা একটি শিল্প

যে কবি বন্ধুটি বলেছিল
“কবিদের বিশ্বাস করবেন না”
এখন মৃত
আমরা তাকে মিউজিয়ামে রেখে দিয়েছি
ঝুলিয়ে দিয়েছি অবিকল যেমনটা আমরা তাকে পেয়েছিলাম
নাতবৌটি যাতে ভাল কোরে দেখতে পায়
বারযাখে কবিরা কোন ভাষায় কথা বলে,
পাশে শুয়ে দিয়েছি ঈশ্বর ও শয়তানের আরো দুটো লাশ-
কেননা মিউজিয়ামটি অনেক উচু ছিল,
নাতবৌটি ছিল কবির প্রেমিকা
যেহেতু মিউজিয়ামটি যথেষ্ট বড় ছিল না,
এবং কবির প্রিয় রঙ ছিল নীল
আবৃতি শেষে আমরা পকেটে কোরে এনেছিলাম প্রত্যেকটি কবিতা,
রেখে দিয়েছিলাম প্রিয় শার্টের ভাঁজে
নীল শার্ট পরা তোমাদের জন্য যারা
এখনো দ্বিধাগ্রস্ত “আত্মহত্যা মহা পাপ কিনা”
তবে জেনো,
“ঈশ্বরদের ভবিষ্যৎ বোলে কিছু ছিলো না”

তোমরা, বিসর্জনকে এখনো যারা পরাজয় ভাবছো,
বের করো পছন্দের কবিতা
এবং আবৃত করো,
জেনে নাও বেঁচে থাকার মধ্যে কোনো কৃতিত্ব নেই,
অথচ আত্মহত্যা একটি শিল্প যেমন হস্তমৈথুন,
এবং একটি স্বপ্ন যা শুধু সৌখিন মানুষরাই দ্যাখে।

আসলে গু চেপে রাখতে সকলে সমান পারদর্শী নয়,
এবং সবার প্রিয় নয় নভেম্বর রেইন গান।

তোমরা যারা সৌখিন মানুষ,
বিশ্বাস কর আত্মহত্যা অন্যায় কিছু নয়,
এবং কোরতে চাও স্বাধীনতার সর্বোত্তম ব্যবহার,
জেনো-
“সবার প্রিয় নয় ভোরের প্রথম পেশাবের গন্ধ”
আর যারা অবিশ্বাসী,
ভাবো আত্মহত্যা একটি কলঙ্ক,
তোমরা লোভি,
নয়তো ভীরু
অথবা তাদের আত্নীয়
প্রেকিকারা এখনো যাদের ছেড়ে যায়নি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *