তোমরা এক এক ফোঁটা শূক্রানুর চরম অপচয়

আসলে গতকালের লেখায় কিছু ভুল ছিল।গতকাল শুধু এতটুকু প্রমান করার চেষ্টা ছিল জঙ্গীদের উপর যে হুরপরীগন ক্রাস খায় তারা সেডিষ্ট।কথাটা আংশিক ভুল।এর থেকেও বড় স্যাডিষ্ট আছে।তাহারা আবার তথাকথিত সেলেভ।তারা বলিয়াছেন ভালবাসা দিতে।ভালবাসলে জঙ্গীরা এমন হতো না।তাই তাদের ভালবাসুন।কিছু আবার জঙ্গী সহ সকল প্রানের জন্যে দোয়া চেয়েছেন।তাদের মতে তাহলে সব ঠিক হয়ে যাবে।আর যদি আমি তাদের ধ্বংস চাই বা তাদের ঘৃনা করি তবে আমাদের ক্লাস নাকি নিচু স্থরের।হ ভাই আমাদের টা একটু নিচুই তোমাদের মত মায়েদের ধর্ষন কারী আর জঙ্গীদের উপর ক্রাস খাইতে পারি না বা ভালবাসতে পারি না বলে একটু না হয় নিচু স্থরের হলাম তবে তা নিয়ে আমি গর্বিত।
তোমাদের জন্য এই কবিতাটা যায়
“ধরো গত রাতে তারা তোমার বাবাকে কুপিয়ে ফানা ফানা করেছে
এমন সময় যদি তুমি চিৎকার করে বলো ভালবাসি,তবে কি তোমার বাবা ফেরৎ আসবে?
ধরো সাত মাসের গর্ভবতী মহিলাটি যদি তোমার মা হতো এবং জঙ্গীরা তাকে জবাই করতো,এমন সময় তুম যদি তাদের বলো ভালবাসি
তবে কি সেই গর্ভের ছেলেটা পৃথিবীর আলো দেখতে পাবে?
ধরো নিশ্চিত মৃত্যু চারিদিকে সেটা উপেক্ষা করে তোমার যে ভাই,তাদের
বান্ধবীদের বাঁচাতে গিয়ে জীবন দিল,এমন সময় যদি তুমি তাদের চিৎকার
করে বলো ভালবাসি,তবে কি তোমার সেই ভাই ফেরৎ আসবে?
যে মেয়েটির শোকে তার বাবা পাগল প্রায়,তার হ্যান্ডসাম হত্যাকারীদের জন্য যারা ক্রাস খায় আর তুমি সকল প্রানের কথা বলে তাদেরকে ভালবাসতে বলো,তাতে কি সেই মেয়েটা তার বাবার কাছে ফেরৎ আসবে?
যে মা আপেক্ষা করছে তার অনাগত সন্তানের মুখ দেখবে তার পিতা
সেই বাবাকে যারা মৃত্যু উপহার দিল,তুমি যদি তাদের চিৎকার করে বলো ভালবাসি,ভালবাসি
তবে কি সেই পিতা মৃত্যু থেকে ফেরৎ আসবে তার সন্তানের জন্যে??”
পারলে কিছু উত্তর দিও।হ্যা তোমরা তাদের ভালবাসতেও পারো তাদের জন্য দোয়া করতে পারো ক্রাসও খেতে পারো,কারন যতই তমরা আধুনিক প্রমান করার চেষ্টা করো তোমরা স্যাডিষ্ট।তোমাদের জন্যই দোয়া করতে মন চায়।তোমরা ৭১ এ মা বোনের ধর্ষন কারী আর বাপ ভাইয়ের হত্যাকরীদের জন্যও দোয়া করতে পারো।আমি পারি না আমি মনে প্রানে তাদের ধ্বংস চাই,যন্ত্রনা ময় মৃ্যু চাই,আমি নিচু স্থরের মানুষিকতা নিয়েই থাকতে চাই এবং এর জন্য আমি গর্বিত।তোমাদের জন্য করুনা হয়
তোমাদের ফলোয়ার ৮০০০০/৭০০০০/৬০০০০ বা ২০০০ ই হোক না কেন তোমরা এক এক ফোঁটা শূক্রানুর চরম অপচয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *