গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশের সংবিধান: আমার গবেষনা ও সুপারিশ-২ রাষ্টধর্ম অনুচ্ছেদ:২ক

অনুচ্ছেদ:২ক অনুসারে প্রজাতন্ত্রের রাষ্ট ধর্ম ইসলাম। ধর্ম তো মানুষের বা মানুষ পালন করে, সেখানে প্রজাতন্ত্রের কিভাবে ধর্ম হয়? যেখানে বাংলাদেশে বিভিন্ন ধর্মের মানুষ বসবাস করে সেখানে কিভাবে প্রজাতন্ত্রের রাষ্ট ধর্ম শুধু মাত্র ইসলাম হতে পারে? ২ক: অনুচ্ছেদে আরো উল্লেখ আছে “তবে হিন্দু, বৌদ্ধ, খ্রীষ্টানসহ অন্যান্য সকল ধর্ম পালনে রাষ্ট সমমর্যাদা ও সমাধিকার নিচ্শিত করিবেন। কিন্তু রাষ্ট ধর্ম ইসলাম করে প্রমাণ করেছে রাষ্ট সমমর্যাদা ও সমাধিকার নিচ্শিত করে না। রাষ্ট ইসলাম ছাড়া শুধুমাত্র হিন্দু, বৌদ্ধ, খ্রীষ্টানসহ অন্যান্য সকল ধর্ম পালনে রাষ্ট সমমর্যাদা ও সমাধিকার নিচ্শিত করিবেন। কিন্তু রাষ্ট এখনে ইসলাম ধর্মকে প্রধান্য দিয়েছে। আর এটা বুঝা যায় নির্দিষ্ট একটি ধর্ম ইসলাম ধর্মকে প্রজাতন্ত্রের রাষ্টধর্ম হিসেবে ঘোষানা করার মাধ্যমে। এই ভাবে একটি ধর্মকে প্রাধান্য দেওয়ার মাধ্যমে সংবিধান রাষ্ট পরিচালনার মূলনীতি আবারও উপেক্ষিত করেছে। যা সংবিধানকে আবার পরস্পর বিরোধী করে তুলেছে। অর্থাত্‍ সংবিধান একবার প্রকাশ করে ধর্ম নিরপেক্ষতা আবার কখনোও প্রকাশ পায় ধর্মের পক্ষপাতিত্ব। আমার সুপারিশ: প্রজাতন্ত্রের রাষ্টধর্ম বলে কিছু থাকবে না। ২ক:অনুচ্ছেদে থাকা উচিত “যে কোনো ধর্ম পালনে রাষ্ট সমমর্যাদা, সমঅধিকার ও সমনিরপত্তা নিচ্শিত করিবেন।”

৭ thoughts on “গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশের সংবিধান: আমার গবেষনা ও সুপারিশ-২ রাষ্টধর্ম অনুচ্ছেদ:২ক

  1. যারা ধর্মের বৈজ্ঞানিক
    যারা ধর্মের বৈজ্ঞানিক ব্যাখ্যা দেয়, তারা ধার্মিকও নয়, বিজ্ঞানীও নয়। শুরুতেই স্বর্গ থেকে যাকে বিতারিত করা হয়েছিলো, তারা তার বংশধর।
    হুমায়ুন আজাদ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *