প্রেমপত্র-৬৯

এইযে তুমি,
আমার ডাকে আসবে কি তুমি ?যখন পরবে নিল রঙের শাড়ি,
যেন নীলিমার নিল ছুয়ে যায় তোমায়,শাড়ির প্রতিটা ভাজে মিশে থাকবে মেঘের ঘনঘটা,আঁচলটা লম্বা রেখো,মৃদু হাওয়ায় উড়বে আপন মনে,
আসবে কি তুমি ?ঠোঁটে দিও তুমি গোলাপি রঙের ছোঁয়া,যেন সমস্ত গোলাপ আঁকা হয় তোমার ঠোঁটে,তোমার ঠোঁটের স্পর্শে হারাবো আমি,
কামর দিয়োনা যেন,ব্যাথা পাবো গালে।চলে এসো,চলে এসো আমার পাঁশে,
হাতে রেখে রঙ্গিন কাচের চুড়ি,যেন টুং টাং শব্দে ঘুম ভাঙ্গে আমার,
রঙ্গিন সে সব চুড়ি,একে দিবে আমার স্বপ্নের মায়াজাল।চলে এসো তুমি, আমার পানে চলে এস।মনে যদি মেঘ জমে সেই মেঘে যদি বৃষ্টি ঝরে তবে বৃষ্টি হয়ে ঝরে যাক তোমার কষ্ট গুলো সূর্যের উত্তাপ নয় চাঁদের নির্মল আলোয় ভরে যাক তোমার আকাশ তারা রা ভাগাভাগি করে নিক কষ্ট তোমার।আর যদি তা নাই হয় তবে আমি নতুন ভোর হয়ে স্নিগ্ধ আলোয় তোমাকে আলোকিত করবো আমার ভালোবাসার বৃষ্টি দিয়ে ধুয়ে দিব তোমার সব কষ্ট।কারন ভালবাসা বলতে এখনও তোমাকেই বুঝি,
ঘৃণা বলতে এখনও তোমাকেই।সংসার বলতে এখনও তোমাকে বুঝি,
সুখ বলতেও আমি তোমাকেই।স্বপ্ন বলতে সদাই তোমাকেই বুঝি
কষ্ট বলতেও তোমাকেই।হৃদচুম্বনে তোমার লালা থেকে চুষে নিই সংক্রামক ব্যাধি,তোমাকে আরোগ্য করি।তোমাকে শুশ্রূষা করি
তোমাকে নির্মাণ করি আমার বিনাশে।জীবন বলতে এখনও তোমাকে বুঝি
মৃত্যু বলতেও আমি এখনও তোমাকে।
কিন্তু প্রিয়তমার কাছে পৌঁছাতে পারি না একহাজার রাত কি করে যে বুঝাই এই পাগল মায়াবতী মেয়েটির জন্য অপেক্ষারত।কত কথা জমেছে
আরো অনেক কথা বলার আছে। অনেক অনেক কথা ছিল,বুঝলে প্রতিদিন তোমার ছবিতে চোখ বুলাই আর মনে মনে বলি”তুমি যেমন ই হও,পাগলী বা বাস্তববাদী বা প্রচন্ড মায়াবতী বা দরজাল যা খুশি হও তাতে আমার কি।তুমি শুধু আমার।তুমি যদি আমাকে ছেড়ে যেতে চাও খুন করে ফেলবো তোমাকে।তোমার কবরে আগুন ধরিয়ে দেব আমি।
তুমি আমার সাথে থাকবে, আমার বউ হয়ে থাকবে। তুমি শুধু আমার হয়ে থাকবে”।কবে যে সরাসরি এ কথাটা বলতে পারব।উফফ।
শুধু এখন না সারাজীবন বলব আচ্ছা তুমি আমাকে কম ভালোবাসো কেন? আমি তোর জামাই না? ভালোবাসতে কিপটামি করব না খবরদার পাগলী”।
তোমাকে কেমনে বুঝাই,কোন এক ভরাকটালের রাতে সেই শুক্লপক্ষ চাঁদের নিচে ঠায় দাড়িয়ে তুমিও একদিন হঠাৎ জেনে যাবে,তোমারই অপেক্ষায় কে ছিলো পুব আকাশে বিষাদের আদমসুরত,কে ছিলো শেষ রাতের মুখচোরা দু:খী ধ্রুবতারা,কার আরাধনায় আমি সহস্র শতাব্দী নি:সঙ্গ একেলা দাড়িয়ে।কারন ঈশ্বর জানে এই জীবনে শুধু তোমাকেই ভালোবেসেছি,এক জন্ম নয়, শত জন্মান্তরে শুধু তোমাকেই চেয়েছি।
তোমার
পাগলা

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *