কমল তেলের দাম

জ্বালানি তেল হচ্ছে বিশ্বের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ কৌশলগত পণ্য। এর সঙ্গে জড়িত বিশ্বের অর্থনীতির ওঠা-নামা। এমনকি রাজনীতিকেও প্রভাবিত করে তেলের দাম। ফলে এখন তেলের দাম অব্যাহতভাবে কমে যাওয়ায় বিশ্ব অর্থনীতিতে নানাভাবে এর প্রভাব পড়ছে। আন্তর্জাতিক বাজারের সঙ্গে সামঞ্জস্য রেখে দেশের বাজারে জ্বালানি তেলের দাম কমাচ্ছে সরকার। আজ থেকেই কার্যকর হচ্ছে নতুন মূল্য। অকটেন ৯৯ টাকা থেকে কমিয়ে করা হয়েছে ৮৯ টাকা। আর পেট্রোল বিক্রি হবে ৮৬ টাকায়। ডিজেল ও কেরোসিন বিক্রি হবে ৬৫ টাকায়। আন্তর্জাতিক বাজারের বর্তমান দাম (অপরিশোধিত প্রতি ব্যারেল বা ১৫৯ লিটার) অনুযায়ী প্রতি লিটার ফার্নেস অয়েল বিপিসি কিনছে ৩০ টাকায়, অকটেন ৫৫ টাকায় ও পেট্রল ৫০ টাকায়। ডিজেল আর কেরোসিন কিনছে ৩৮ টাকায়। কিন্তু দেশের বাজারে বিপিসি বিক্রি করছে বর্তমানে প্রতি লিটার অকটেন ৯৯, পেট্রোল ৯৬, কেরোসিন ও ডিজেল ৬৮ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। কম দামে কিনে দেশে বেশি দামে বিক্রি করায় গত অর্থবছরে (২০১৪-১৫) বিপিসি ৫ হাজার কোটি টাকা লাভ করেছে। আর চলতি অর্থবছরে (২০১৫-১৬) ৭ হাজার কোটি টাকা লাভের লক্ষ্য নির্ধারণ করেছে। এরমধ্যেই অর্থবছরের প্রথম তিন মাসে মুনাফা হয়েছে প্রায় ২ হাজার কোটি টাকা। দেশে জ্বালানি তেলের চাহিদা প্রায় ৫৫ লাখ মেট্রিক টন। যার প্রায় পুরোটাই আমদানি করা হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *