সব পুরুষ ই ধর্ষক নয়তবা দর্শক

পুরুষ তান্ত্রিক এই সমাজে মেয়ে হয়ে জন্ম নেয়া কতটা কষ্টের তা আমরা পুরুষ রা বুঝি না। পুরুষের কাছে নারী ভোগ্য পণ্য, নারীরা খেলনা। যেমন ইচ্ছে খেলে ডাস্টবিনে ফেলে দিবো।
দিন দিন সমাজ ব্যবস্থা এমন দিকে যাচ্ছে যে নিজ ঘরের ভিতর ও নারী সুরক্ষিত নয়। কিছু পাষন্ড পিতা নিজ মেয়ে কে ও রক্ষা দিছে না, রক্ষা পাচ্ছে মাত্র জন্ম নেয়া মেয়ে শিশুটি ও। তারপর বলতে হয় আমরা পুরুষ, কাপুরুষ নই।
পুরুষের লালসা পথে ঘাটে কামছে খাচ্ছে মাংস পিন্ড.. নারীর মাংস পিন্ড। নারীদের জন্ম পুরুষদের মনোরঞ্জন করার জন্য, পুরুষদের লৌহ দন্ড ঠান্ডা করার জন্য। নারীরা মানুষ না এদের মন নেই, নেই স্বাধীনতা। নারীর কথা বলার অধিকার নেই।

পুরুষ তান্ত্রিক এই সমাজে মেয়ে হয়ে জন্ম নেয়া কতটা কষ্টের তা আমরা পুরুষ রা বুঝি না। পুরুষের কাছে নারী ভোগ্য পণ্য, নারীরা খেলনা। যেমন ইচ্ছে খেলে ডাস্টবিনে ফেলে দিবো।
দিন দিন সমাজ ব্যবস্থা এমন দিকে যাচ্ছে যে নিজ ঘরের ভিতর ও নারী সুরক্ষিত নয়। কিছু পাষন্ড পিতা নিজ মেয়ে কে ও রক্ষা দিছে না, রক্ষা পাচ্ছে মাত্র জন্ম নেয়া মেয়ে শিশুটি ও। তারপর বলতে হয় আমরা পুরুষ, কাপুরুষ নই।
পুরুষের লালসা পথে ঘাটে কামছে খাচ্ছে মাংস পিন্ড.. নারীর মাংস পিন্ড। নারীদের জন্ম পুরুষদের মনোরঞ্জন করার জন্য, পুরুষদের লৌহ দন্ড ঠান্ডা করার জন্য। নারীরা মানুষ না এদের মন নেই, নেই স্বাধীনতা। নারীর কথা বলার অধিকার নেই।
কোন ধর্ম ও দেয় নি নারীর বেঁচে থাকার সঠিক অধিকার। যেখানে স্বয়ং ঈশ্বর নর্তকী নৃত্যে আনন্দ লাভ করেন, সেখান পুরুষরাই বা কি করবে??
পুরুষরা তো ঝাঁপিয়ে পড়বে বীরপুরুষের মতো কতটা মধু লোটে খাওয়া যায় সেই আশায়। কিন্তু নিজের মা বোনের কথা ভাববে না। সব পরুষ ই নষ্ট মেয়েদের দেখলে দাঁড়িয়ে যায় ঈমান দন্ড।
আসুন সবাই একবার নারী হয়ে জন্ম নেই, তারপর বুঝি পুরুষ তান্ত্রিক সমাজে বেঁচে থাকা কতটা কষ্টের। পুরুষ হয়ে জন্ম নেয়ার অপরাধে ক্ষমা করো হে নারী…

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *