ভিক্টোরিয়ায় বাংলাদেশি কমুউনিটির বসন্ত বরন

নন্দিনী রহমান

ঢাকা থেকে প্রশান্ত মহাসাগর পাড়ি দিয়ে ভিক্টোরিয়ায় এলে দূরত্ব দাঁড়াবে ১১,৩০০ কিলোমিটার। ভ্যাঙ্কুভার আইল্যান্ডে অবস্থিত ভিক্টোরিয়া শহরটি ব্রিটিশ কলম্বিয়ার রাজধানী। সাত সমুদ্দুর পাড়ের এই দ্বীপ দেশে সব মিলিয়ে শ’খানেক বাংলাদেশির বাস। উৎসব- পার্বণে লাল সবুজের এক টুকরো বাংলাদেশকে বুকে ধারন করে তারা মিলিত হয় ধান শালিকের কাকলি নিয়ে, আনন্দে-উজ্জীবনে বা রাঙা মাটির দিগন্তগামী পথের বিচ্ছেদ, বেদনা বিধুরতাকে ভাগাভাগি করে নেওয়ার জন্য।


নন্দিনী রহমান

ঢাকা থেকে প্রশান্ত মহাসাগর পাড়ি দিয়ে ভিক্টোরিয়ায় এলে দূরত্ব দাঁড়াবে ১১,৩০০ কিলোমিটার। ভ্যাঙ্কুভার আইল্যান্ডে অবস্থিত ভিক্টোরিয়া শহরটি ব্রিটিশ কলম্বিয়ার রাজধানী। সাত সমুদ্দুর পাড়ের এই দ্বীপ দেশে সব মিলিয়ে শ’খানেক বাংলাদেশির বাস। উৎসব- পার্বণে লাল সবুজের এক টুকরো বাংলাদেশকে বুকে ধারন করে তারা মিলিত হয় ধান শালিকের কাকলি নিয়ে, আনন্দে-উজ্জীবনে বা রাঙা মাটির দিগন্তগামী পথের বিচ্ছেদ, বেদনা বিধুরতাকে ভাগাভাগি করে নেওয়ার জন্য।

রয়্যাল রোডস ইউনিভার্সিটিতে পড়াশোনার উদ্দেশ্যে আমি এই শহরে এসেছি সাত মাস হল। দেশের মানুষদের সাথে পরিচিত হতে সময় লেগেছে অনেকটা। গত ১৩ই মার্চ ভিক্টোরিয়ার বাংলাদেশি কমুউনিটি বসন্ত বরন ও পিঠা উৎসবের আয়োজন করেছিল স্থানীয় একটি রিক্রিয়েশন সেন্টারে। এই আনন্দঘন মিলন মেলায় উপস্থিত হয়েছিল প্রায় আশি জন। সে আয়োজনে যোগ দেওয়ার সুযোগ হয়েছিল আমারও। অনুষ্ঠানে পরিচিতি পর্বের পাশাপাশি শিশুদের জন্য ছিল আলাদা আয়োজন। তারা এই সুদূর প্রবাসে তাদের অর্জিত অভিজ্ঞতার খণ্ডিত চিত্রের আটপৌরে বর্ণনায় সবাইকে মুগ্ধ করে রাখে। সাপ্তাহিক এই ছুটির দিনটি যেন সবার জন্য হয়ে উঠেছিল বাংলাদেশকে ফিরে পাবার দিন। ছিল নানা ধরনের পিঠা, চটপটি… বাঙালি খাবার। বাংলাদেশ থেকে সহস্র যোজন দুরত্বে এই উত্তর জনপদে বেড়ে উঠা নতুন প্রজন্মের কাছে বাঙালির ঐতিহ্য, খাদ্য এবং উৎসবের চিরায়ত ধরনকে পরিচিত করে তোলাও ছিল আয়োজকদের অন্যতম লক্ষ্য। জলাঙ্গির ঢেউয়ে ভেজা বাংলার সবুজ শস্য ক্ষেতের নিবিড় অনুরণন যেন এক করে ফেলেছিল উপস্থিত সবগুলো পরিবারকে। ভিক্টোরিয়ায় বারবার ফিরে আসুক এই পিঠা উৎসব, বসন্ত অবগাহন, জীবনানন্দের বাসমতী ধানক্ষেত…।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *