ইনশাল্লাহ(আল্লাহর ইচ্ছায়), আমরা জিতি নাই, তাহলে হারার জন্যে খেলোয়াড়দেরকে গালাগালি কেন ? এটা কি মুনাফেকি নয় ?

সবকিছুই আল্লাহর ইচ্ছা। আল্লাহর ইচ্ছাতেই আমরা গতকাল মুশরেক ভারতের সাথে টি ২০ এশিয়া কাপে জিততে পারি নাই। কিছু লোক দেখলাম , তারা খেলোয়াড়দেরকে গালাগালি করছে। ভাবটা যেন তারা ইচ্ছা করেই জেতে নি।

আল্লাহর ইশারা ছাড়া গাছের পাতাটিও নড়ে না। বিশ্বের সব কিছু সৃষ্টিরও পঞ্চাশ হাজার বছর আগে , আল্লাহ সব কিছুই লিখে লাওহে মাহফুজে সংরক্ষন করে রেখেছে। মুমিন মাত্রেই একথা বিশ্বাস করে। যে বিশ্বাস করে না সে কাফির , মুশরিক , মোনাফেক।


সবকিছুই আল্লাহর ইচ্ছা। আল্লাহর ইচ্ছাতেই আমরা গতকাল মুশরেক ভারতের সাথে টি ২০ এশিয়া কাপে জিততে পারি নাই। কিছু লোক দেখলাম , তারা খেলোয়াড়দেরকে গালাগালি করছে। ভাবটা যেন তারা ইচ্ছা করেই জেতে নি।

আল্লাহর ইশারা ছাড়া গাছের পাতাটিও নড়ে না। বিশ্বের সব কিছু সৃষ্টিরও পঞ্চাশ হাজার বছর আগে , আল্লাহ সব কিছুই লিখে লাওহে মাহফুজে সংরক্ষন করে রেখেছে। মুমিন মাত্রেই একথা বিশ্বাস করে। যে বিশ্বাস করে না সে কাফির , মুশরিক , মোনাফেক।

আমাদের জাতীয় ক্রিকেট দলের দুই একজন হিন্দু খেলোয়াড় ছাড়া বাকী সবাই মুসলমান আর বলাই বাহুল্য তারা খুব পরহেজগার মুসলমান। কোন খেলার আগে তাদের সাক্ষাতকার যখন নেয়া হয়, তারা বার বার বলে – ইনশাল্লাহ আমরা জিতবই। অর্থাৎ আল্লাহর ইচ্ছায় আমাদের দেশ জিতবেই। তারা তাদের বক্তব্যে যে শব্দটা বেশী ব্যবহার করে , সেটা হলো ‘ইনশাল্লাহ’।’ ইনশাল্লাহ’ বলতে বলতে এক প্রকার মুখে ফেনা তুলে ফেলে। যার অর্থ হলো , তাদের নিজেদের কোন ইচ্ছা নাই , সব ইচ্ছাই আল্লাহর। আল্লাহ চাইলে জেতা যাবে , না চাইলে জেতা যাবে না। খেলোয়াড়রা সবাই কিন্তু মনে প্রানেই সেটা বিশ্বাস করে যেহেতু তারা পরহেজগার মুসলমান। সুতরাং আল্লাহ চায় নি , তাই বাংলাদেশ জেতে নি।

যারা খেলোয়াড়দেরকে হারার জন্যে গালাগালি করছে , তারা নিজেরাই কিন্তু পরহেজগার মুসলমান। তারাও খেলায় হারজিতের ব্যাপারে জিজ্ঞেস করলে খেলোয়াড়দের মতই বার বার বলবে , ইনশাল্লাহ আমরা জিতবই। অর্থাৎ তারাও বিশ্বাস করে , আল্লাহ ইচ্ছা করলেই কেবল জেতা যাবে। অন্যথায় নয়। কিন্তু মুস্কিল হলো , যেই খেলায় বাংলাদেশ দল হেরে গেল , অমনি সব দোষ খেলোয়াড়দের ওপর দিতে কিছু মানুষ বিন্দু মাত্র বিলম্ব করল না , তখন তাদের আল্লাহর ইচ্ছার ওপর আর কোন আস্থা থাকল না। অর্থাৎ তখন তারা নিজেদেরকে মুসলমান দাবী করলেও আল্লাহর ওপর তারা আস্থা হারিয়ে ফেলল যার সোজা অর্থ তারা মুনাফেকে পরিনত হয়ে গেল। বিষয়টা কি সেরকমই নয় ?

২ thoughts on “ইনশাল্লাহ(আল্লাহর ইচ্ছায়), আমরা জিতি নাই, তাহলে হারার জন্যে খেলোয়াড়দেরকে গালাগালি কেন ? এটা কি মুনাফেকি নয় ?

  1. আমাদের জাতীয় ক্রিকেট দলের দুই

    আমাদের জাতীয় ক্রিকেট দলের দুই একজন হিন্দু খেলোয়াড় ছাড়া

    আল্লাহ বলেছেন কখন মোশরেক কাফেরদের সাথে বন্ধুত্ব করতে যেওনা সুতরাং ঐ দুইজনের জন্যই আল্লাহ আমাদেরকে হারিয়ে দিল। আস্তাগফিরুল্লাহ !

  2. আল্লাহ মনোনিত খেলা ক্রিকেট
    আল্লাহ মনোনিত খেলা ক্রিকেট নয়।ঘোড়দৌড় আর তীরধনুক চালনা ছাড়া কোন খেলার অনুমোদন দেয়া হয়নি কুরানে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *