চিন্তা করি বলেই আমি Cogito , ergo sum

সত্য কি একটা , নাকি অনেক? ব্লগে যখন আস্তিক ও নাস্তিক এবং ভিন্ন ধর্ম ও গোষ্ঠির মাঝে তর্ক বিতর্ক করতে দেখি , তখন ধান্দায় পড়ে যাই। সকলেইতো দৃঢ়তা ও আস্থার সাথে যার যার বক্তব্যের স্বপক্ষে যুক্তি তুলে ধরেন। কার যুক্তি সঠিক সে বিচার পরে করি। আমার কাছে যেটা আশ্চর্যকর লাগে , সেটা হলো ঈশ্বরের অস্তিত্বের পক্ষ ও বিপক্ষ উভয় দলের সুদৃঢ় বিশ্বাস , সেই সঠিক। মনে হয় না – জেনে শুনে , জান বুঝ করে কেউ মিথ্যা বলছে বা একদল অপরদলকে প্রতারিত করছে। তাহলে সত্য কোনটা? ঈশ্বর আছে ? নাকি নেই? একি সাথে ঈশ্বর আছে এবং নেই , তা তো হতে পারে না।


সত্য কি একটা , নাকি অনেক? ব্লগে যখন আস্তিক ও নাস্তিক এবং ভিন্ন ধর্ম ও গোষ্ঠির মাঝে তর্ক বিতর্ক করতে দেখি , তখন ধান্দায় পড়ে যাই। সকলেইতো দৃঢ়তা ও আস্থার সাথে যার যার বক্তব্যের স্বপক্ষে যুক্তি তুলে ধরেন। কার যুক্তি সঠিক সে বিচার পরে করি। আমার কাছে যেটা আশ্চর্যকর লাগে , সেটা হলো ঈশ্বরের অস্তিত্বের পক্ষ ও বিপক্ষ উভয় দলের সুদৃঢ় বিশ্বাস , সেই সঠিক। মনে হয় না – জেনে শুনে , জান বুঝ করে কেউ মিথ্যা বলছে বা একদল অপরদলকে প্রতারিত করছে। তাহলে সত্য কোনটা? ঈশ্বর আছে ? নাকি নেই? একি সাথে ঈশ্বর আছে এবং নেই , তা তো হতে পারে না।

গ্রীক দার্শনিক ডেসকার্টেস আমার প্রিয় ব্যক্তিত্ব। তার দর্শনের কোন বই আমি পড়িনি। তিনি আমার প্রিয় তার সন্দেহ করার ক্ষমতার কারনে। যে কোন থিওরী বা দর্শনকে না মেনে নেয়ার এবং সন্দেহ করার ক্ষমতার কারনে তিনি বিখ্যাত। অন্য লোকে কিছু বল্লে , সেই বক্তব্যকে তিনি সন্দেহ করতে পারতেন। বিশ্বের যা কিছু তার চোখ তাকে দেখাত , সেটার সত্যতা validity নিয়ে তিনি সন্দেহ করতে পারতেন। তিনি নিজেকে , নিজের চিন্তা , নিজের অনুভূতিকে সন্দেহ করতে পারতেন। এমনকি যে মানবদেহে তার বাস , সেটা নিয়েও তার সন্দেহ ছিল। তিনি যে সন্দেহ করতে পারেন , শুধু এটা নিয়েই তার কোন সন্দেহ ছিল না। ফলে তিনি তার জীবণের এক এবং একমাত্র সত্যে উপনীত হন – ‘তিনি চিন্তা করছিলেন।’ তিনি সচেতন অভিজ্ঞতা অর্জনকারী সত্বা বলেই না তিনি চিন্তা করছিলেন। যেটাকে তিনি ল্যটিনে বর্ণনা করেছেন – Cogito , ergo sum

১ thought on “চিন্তা করি বলেই আমি Cogito , ergo sum

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *