স্বপ্নের আলোছায়া মুক্ত চিন্তক অভিজিৎ রায়

মুক্তচিন্তার স্বপ্নদৃষ্টা অভিজিৎ রায়ের মৃত্যুতে আজও শোকাহত প্রগতিশীল , যুক্তিবাদী ও মুক্তচিন্তার মানুষেরা।এক বছর আগে ঢাকা বিশ্ববিদ্যলয়ের পাশে মৌলবাদী ইসলামী হায়েনাদের চাপাতির আঘাতে কেড়ে নিয়েছে অভিজিতের প্রাণ,কিন্তু তিনি আজও মৃত্যুহীন ।মুক্তচিন্তার এই কিংবদন্তি মিশে আছেন সকল সুনাগরিক ও মুক্তচিন্তা লেখকদের লোহিত কণিকার স্ফুলিঙ্গে।তার কথা,চিন্তাধারায় আজও স্মরিত হয় অনেক শ্রদ্ধায়।যুক্তিবাদী,বিজ্ঞানমনস্ক ও মুক্তমনার এই লেখকের মৃত্যু মানে বাংলাদেশের বিজ্ঞান চর্চার এক অপুরণীয় ক্ষতি।অথচ,সরকার এখনো তার খুনিদের গ্রেপ্তার করার তেমন কোনো প্রয়াস চালায়নি।শুধু আশ্বাসের বার্তা ছাড়া কিছুই পাওয়া যায়নি।এ কথা সত্য যে সরকার তার খুনিদের বাচানোর জন্য চেষ্টা করেছেন।কারণ, সরকার যদি আন্তরিক হতো তাহলে তার খুনিদের গ্রেপ্তার করে এতোদিনে দৃষ্টান্তমুলক শাস্তি প্রদান করতে পারতো।কিন্তু ,সরকারের কাছে এখনো প্রশ্ন থেকে যায়।অভিজিতের স্বপ্নের চেতনার আলোকে তিনি মুক্তচিন্তা,বিজ্ঞানমনস্ক ও যুক্তিবাদী জাতি প্রতিষ্টা হওয়ার সংগ্রামে স্বপ্ন দেখেছেন। অভিজিৎ রায়কে হত্যা করার মধ্য দিয়ে মুক্তচিন্তার ধারাকে হত্যার চেষ্টা করা হয়েছে;কিন্তু তিনি আজ প্রতিটি মানুষের মাঝে বেঁচে আছেন।অভিজিৎের শিক্ষা ও চিন্তা প্রতিটি লেখক,পাঠক ও মুক্তচিন্তকদের রক্তের ধমনীতে বহমান। তার চিন্তাকে বৃথা হতে দেবো না। এই দেশকে গণতান্ত্রিক,অসাম্প্রদায়িক,শোষণমুক্ত , মুক্তচিন্তার অধিকার ও সুষ্ঠরাষ্ট্র প্রতিষ্টা জরুরি।অভিজিৎ স্বাধীন মতপ্রকাশ,বিজ্ঞানমনস্ক সমাজ প্রতিষ্ঠার স্বপ্ন দেখেছিলেন। আগামি দিনে তার স্বপ্ন বাস্তবায়িত হোক ও দেশের স্বাধীন মত প্রকাশের অধিকার প্রতিষ্টার করা হোক-এটি সবার প্রত্যাশা। আগামিতে মুক্তচিন্তার মধ্য দিয়ে সুষ্ট সমাজ ও দেশ প্রতিষ্ঠা হবে—-এটাই হোক আজকে শপথ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *