আমি ই তপু

তপু!! খুব সাধারণ একটি নাম। প্রাইভেট বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র। বুক ভরা ভালোবাসা আর চোখ ভরা স্বপ্ন নিয়ে অনার্স শেষ করার আগেই বিয়ে করেছে ভালোবাসার মানুষটিকে। তার চার মাস বয়সী একটা বাচ্চাও আছে। সেই সুবাদেই পড়া লেখার পাশাপাশি তাকে চাকরী করতে হয়। গত ২২শে ফেব্রুয়ারি তপু রেডিসন হোটেল থেকে Oppo mobile এর একটা নতুন ফোন Lounching এর অনুষ্ঠান থেকে বেলা ৪ টার দিকে মোটর সাইকেল যোগে বাসায় ফিরছিল।
বনানী কবরস্থান এর কাছে আসতেই পুলিশের একটি বাস রাস্তার উল্টা পাশ দিয়ে এসে তপুকে পিষ্ঠ করে চলে যায়। ঘটনা স্থলেই তপু মারা যায়। শেষ হয়ে যায় সবকিছু। কি দোষ ছিল তার বলতে পারবেন? কি পেল ছেলেটা জীবনে?

তপু!! খুব সাধারণ একটি নাম। প্রাইভেট বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র। বুক ভরা ভালোবাসা আর চোখ ভরা স্বপ্ন নিয়ে অনার্স শেষ করার আগেই বিয়ে করেছে ভালোবাসার মানুষটিকে। তার চার মাস বয়সী একটা বাচ্চাও আছে। সেই সুবাদেই পড়া লেখার পাশাপাশি তাকে চাকরী করতে হয়। গত ২২শে ফেব্রুয়ারি তপু রেডিসন হোটেল থেকে Oppo mobile এর একটা নতুন ফোন Lounching এর অনুষ্ঠান থেকে বেলা ৪ টার দিকে মোটর সাইকেল যোগে বাসায় ফিরছিল।
বনানী কবরস্থান এর কাছে আসতেই পুলিশের একটি বাস রাস্তার উল্টা পাশ দিয়ে এসে তপুকে পিষ্ঠ করে চলে যায়। ঘটনা স্থলেই তপু মারা যায়। শেষ হয়ে যায় সবকিছু। কি দোষ ছিল তার বলতে পারবেন? কি পেল ছেলেটা জীবনে?
এইটা খুন। পুলিশের এমন বেপরোয়া চলা ফেরায় আমাদের মত স্বাভাবিক সাধারন মানুষ আজ বিপর্যয়ের সম্মুখীন। বিচার চাই আমরা তপু হত্যার। বিচার কি পাবো? জানিনা। তবে বিচারের দাবী ছাড়ব না কারন তপু আমাদের ভাই। আর আমি ও একজন তপু। আমি ই তপু।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *