এই প্রথম সরাসরি হুমকি

আসলে। সরাসরি হুমকি না পাওয়ার আগে এতটা বুঝতে পারিনি যে হুমকি পাওয়ার পর কেমন লাগে নিজের মনে। হ্যাঁ, এটা ঠিক এর আগে অনেক হুমকি পেয়েছি। কিন্তু সে সময় মোবাইলে না হয় ফেসবুকে অথবা মেইলে। কিন্তু এই প্রথম হুমকি পেয়েছি প্রকাশ্যে সরাসরি। তাহলে আসল ঘটনায় আসি। আজ থেকে তিন দিন আগের ঘটনা এটি। অফিস থেকে এ্যাসাইনমেন্ট দিয়েছে অমুক স্কুলে গিয়ে তথ্য সংগ্রহ করে নিয়ে আসতে। আমিও গেলাম। বেশ ভালোই তথ্য সংগ্রহ করছি। হঠাৎ আমার এক বছরের জুনিয়র কিছু ছাত্রলীগ শিবির পোলাপাইন আমাকে ডাক দিলো। আমিও গেলাম। ঐ দলের নেতা সে এক সময় শিবির করত। এখন ছাত্রলীগ করে।
নেতা: ভাইয়া শুনেছি আপনি নাকি কোনো ধর্ম বিশ্বাস করেন না?

আসলে। সরাসরি হুমকি না পাওয়ার আগে এতটা বুঝতে পারিনি যে হুমকি পাওয়ার পর কেমন লাগে নিজের মনে। হ্যাঁ, এটা ঠিক এর আগে অনেক হুমকি পেয়েছি। কিন্তু সে সময় মোবাইলে না হয় ফেসবুকে অথবা মেইলে। কিন্তু এই প্রথম হুমকি পেয়েছি প্রকাশ্যে সরাসরি। তাহলে আসল ঘটনায় আসি। আজ থেকে তিন দিন আগের ঘটনা এটি। অফিস থেকে এ্যাসাইনমেন্ট দিয়েছে অমুক স্কুলে গিয়ে তথ্য সংগ্রহ করে নিয়ে আসতে। আমিও গেলাম। বেশ ভালোই তথ্য সংগ্রহ করছি। হঠাৎ আমার এক বছরের জুনিয়র কিছু ছাত্রলীগ শিবির পোলাপাইন আমাকে ডাক দিলো। আমিও গেলাম। ঐ দলের নেতা সে এক সময় শিবির করত। এখন ছাত্রলীগ করে।
নেতা: ভাইয়া শুনেছি আপনি নাকি কোনো ধর্ম বিশ্বাস করেন না?
আমি: কে বলেছে তোমাদের?
নেতা সহ অন্যরাও: আমরা শুনেছি।
আমি: দেখ এটা যার যার ব্যক্তিগত ব্যাপার।
সবাই: এটা কেমন ব্যক্তিগত ব্যাপার। যে আল্লহ আমাদের সৃষ্টি করেছেন সে আল্লাহ কে আপনি বিশ্বাস করেন না।
আমি: ভাই তোমাদের সাথে আমি জগড়া করবো না। আমার সোজা কথা হচ্ছে, আমার বিশ্বাস হয় না, তাই আমি করি না। আর আমি তোমাদের কোনো ক্ষতিও করছি না। তোমরা পালন কর তোমাদের ধর্ম। আমি করছি আমার বিশ্বাস।
সবাই: এই শালারপুত তুই কি কইছোস? মাদারির ছোদ তোর সাথে এতক্ষণ ভালো করে কথা বলছি এটা তোর সু ভাগ্য।
আমি: দেখ তোমরা গালিগালাছ করিয়ো না।
অন্য একজন: গালালির কি দেখেছিস তুই? এমন মারা মারমু তোর ঘুষ্ঠির নাম ভুলে যাবি।
ওহ হ্যাঁ, এরি মধ্যে আমার চৌদ্দ গৌষ্ঠর নাম নিয়ে ওরা শুরু করেছে ওয়াজ মাহফিল।
এক জন আমার হাত থেকে ক্যামেরা নিয়ে নিলো। আরেক জন্য আমাকে নিয়ে টানা টানি শুরু করে দিলো।
আমি কোনো ভাবে তাদের কে বুঝাতে পারছি না যে আমি কোনো অন্যায় করছি না। আমি আমার বিশ্বাস নিয়ে আছি।
ওরা বলল, তুই একটা মুসলিম পরিবারে জন্ম গ্রহণ করার পরও আল্লাহ বিশ্বাস করস না।
তুই তো জাহান্নামের আগুনে পুড়বি।
আমি বললাম, আমি জাহান্নামে গেলে সাথে কি তোমরা জাবে?
কেন যাব?
তুই একাই যাবি?
তো আমি শুধু একা জাহান্নামে গেলে তোমাদের সমস্যা কোথায় সেটা তো আমি বুঝতে ছিনা। আর আমি তো ফেসবুক বা অন্য কোথাও ধর্মের বিরুদ্ধে লিখছি না। এটা ঠিক আজ থেকে ৬ মাস আগেও ধর্মে বিরুদ্ধে লিখছি কিন্তু এখন নয়।
না তুই ধর্মের বিরুদ্ধে লিখছ না লিখবি সেটা কোনো ব্যাপার নয়, তুই তো মানস না। আল্লারে।
ওহ আল্লাহ আমরা এখন কি করবো? এই কাফেরের বাচ্ছারে কি আমরা জবাই করে দিবো।
আমি তো ভয় পেয়ে গেলাম।
হঠাৎ পেছন থেকে লোক জন আসতে শুরু করলে ওরা সবাই পালিয়ে যায়। আর বলে যায় তুই যদি ইসলাম না মানস ধর্মে বিশ্বাসি না হস তাহলে তোকেও অভিজিৎদের মত শেষ করে দিবে।
এই ঘটনা প্রায় লোকের কানে গিয়ে পৌঁছেছে এতি মধ্যে।
আমিও এখন খুব বিপদে আছি। বন্ধু বান্ধব অনেকে জানতো। এখন সবাই জানে। অনেকে আমার সাথে কথা বলছে না। অনেকে আমার সাথে সম্পর্ক শেষ করে দিয়েছে।
আমার একমাত্র প্রেমিকা সেও আমাকে ওকে আর না কল দিতে বলেছে।
শেষ পর্যন্ত পুলিশের কাছে গেলে ডায়েরি করতে পুলিশ ও দেশ ছেড়ে দিতে বলেছে।
কিন্তু আমি দেশ ছাড়বো কেন? আমি তো অন্যায় কিছু করছি না। শুধু সত্যি কথা বলছি।
আর অনেক দিন ধরে আমি সামাজিক যোগাযোগের মধ্যে লেখালেখিও বন্ধ করে দিয়েছি। দিয়েছি লাইক বা কমেন্ট করা। প্রায় নিজের মনে মনে বিশ্বাস করার মধ্যে নিজেকে নিয়ে এসেছি। শুধু প্রব্লেম না হয়। তবুও সমস্যা হচ্ছে। এদিক দিয়ে আমার গ্রামের বাড়িতেও হুমকি দিচ্ছে।
আর সবচেয়ে বেশি মেরে ফেলার হুমকি দিয়েছে আমার সম্পাদক সাহেব কে। কারণ তিনি এটা জানার পরও আমাকে ওনার পত্রিকায় কাজ করার সুযোগ দিয়েছে। কেন আমাকে বের করে দিচ্ছে না।
আজ দুইদিনে প্রায় ১০টির অধিক কল এসেছে অচেনা নাম্বার থেকে। সে নাম্বারগুলো থেকে ও মন্দ ভাষায় গালাগাল করছে । আর হুমকি তো দিয়ে যাচ্ছেই অনরগল।

১১ thoughts on “এই প্রথম সরাসরি হুমকি

  1. ইউরোপ বা আমেরিকা যাওয়ার কোনো
    ইউরোপ বা আমেরিকা যাওয়ার কোনো সখ নাই আমার। আর ওদেরকে বিশ্বাস করারনোর প্রয়োজন কি আমার। নিজের ভুল বুঝার কথা বলে পরিবারের কাছে গেলেই তো হয়। চাইলে ওরা আমাকে ইউরোপ আমেরিকা পাঠিয়ে দিবে।
    বুঝতে পারছেন আশা করি।

    1. দাদা কি শুধু এই পার্থিব
      দাদা কি শুধু এই পার্থিব দুনিয়াতেই চিরকাল থাকবেন? একদিন না একদিন বিদায় নিতে হবে, যিনি সামান্য একটা শুক্র কনা থেকে আপনাকে সৃষ্টি করে এখানে পাঠালেন, তার বিরুদ্ধেই বিদ্রোহ করে আপনি কি টিকতে পারবেন?

  2. পাপিষ্ঠএজিদের পতন হয়েছে।
    পাপিষ্ঠএজিদের পতন হয়েছে। দুনিয়ার সব শয়তান একে-একে খতম হবে। মহান আল্লাহ মানুষহত্যাকারীপাপিষ্ঠদের ধ্বংস করে দিন। আমীন।
    আপনাকে ধন্যবাদ ও শুভেচ্ছা।

  3. ভাই @আকাশ ইকবাল,
    সাবধানে

    ভাই @আকাশ ইকবাল,
    সাবধানে থাকবেন ভাই। এইখানে একজনের কমেন্ট থেকেও দেখলেন তো এরা কি ধরণের মনোভাব পোষণ করে। এরা যারা ধর্মের অনুসারী, এরা প্রত্যেকেই মগজধোলাই এর শিকার। তাছাড়া মুক্তমনা সহ আরো অনেক সাইট এই এরা যুক্তি তর্কে না পেরে গালাগালির আশ্রয় নেয়; আর সময় সুযোগ মত অস্ত্র হাতে তুলে নেয়, কুপিয়ে শান্তি প্রতিষ্ঠা করে (যেহেতু ইসলাম শান্তির ধর্ম) । আপনি যেহেতু দেশে থাকেন, আমার সাজেশন হল low-profile মেনটেইন করে চলেন আপাতত (অবশ্য আপনি বেশ সাবধানে আছেন, এটা ভাল) । আরেকটা কাজ করেন, নিক পরিবরতন করে ফেলেন, ব্লগ লিখা ছাড়তে বলিনা (কারন, একজন সচেতন/চিন্তাশীল মানুষ এর কাছে পড়াশুনা/লেখালেখি-ই সম্বল… হয়ত কিছুদিন ব্লগ লেখা থেকে সাময়িক বিরতি নিতে পারেন), তবে যেটা করতে পারেন, তা হল প্রক্সি ব্যবহার করে সাইট এ ঢুকবেন । অনেক ধরণের প্রক্সি-ই অনলাইন এ আছে । [যেই মেসেজ আপনার উদ্দেশ্যে দিলাম, সেইগুলা কিন্ত ইসলামের পথের পথিকেরাও পড়তেছে । কাজেই এর বেশী কিছু বলা গেলনা ।]

    ভাল থাকবেন। সাবধানে থাকবেন ।

  4. আপনার কিছু ভুল আমার চোখে
    আপনার কিছু ভুল আমার চোখে পড়েছে।
    ১) ব্লগ পোষ্টের জন্য প্রোফাইল পিকচার কি খুব জরুরী?
    ২) আপনি নিশ্চয় ভালো করে জানেন, আপনি বাংলাদেশেই আছেন সুতরাং আপনার “সোফিষ্ট” ধারনা পাবলিকের প্রতি প্রচারের মাধ্যমে আপনার জনপ্রিয়তা বাড়বে না।
    ৩) আর আপোষ করতেও বলছি, এমন মনে করবেন না, জীবনের প্রতি মায়াশীলতা থেকে নয় শ্রেফ সারথি হয়ে থাকুন এবং এই অধমের একটি অনুরোধ, সেলফোন পাল্টাতে পারেন, বাংলাদেশের সিগনাল টাওয়ার বা বিটিএস সিষ্টেম এখনো ব্লাকবেরী কোম্পানির সেলফোন এর ডাটা রিডিং করতে পারে না। ( এটা আমার রিয়ালাইজেশন)
    আর লিখেই যান—— জয় তারুণ্য।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *