তোমাদের সব কর্ম চলবে, রুদ্ধ হবে শুধু অামার বাক

মানুষ তার মনের কথা বলবে মনের মত স্বপ্ন দেখবে এটাই স্বাভাবিক, কোন মানুষের মনের কথা, যুক্তি, স্বপ্ন দেখা সব যদি নিয়ন্ত্রন করার চেষ্টা করেন তা কখনও মঙ্গলজনক কিছু হবে না।
পৃথিবীতে এমন কোন বিষয় নাই যা নিয়ে কথা বলা যাবে না। তবে অাসলে কি মানুষ সব বিষয় নিয়ে কথা বলতে পারে? উত্তর খুব সহজ না। অামাদের দেশের বিভিন্ন বিষয় পর্যালোচনা করলে দেখা যায় যে এখানে নিজের মত করে সবার ভাবার বা করার সুযোগ নাই। ধর্ম নামক এক পরকালিন সুখের পন্থার ধোঁয়া তুলে যা ইচ্ছা করতে পারে ধর্মান্ধরা সাথে যুক্ত হয় রাস্ট্রযন্ত্রের চালকেরা।

মানুষ তার মনের কথা বলবে মনের মত স্বপ্ন দেখবে এটাই স্বাভাবিক, কোন মানুষের মনের কথা, যুক্তি, স্বপ্ন দেখা সব যদি নিয়ন্ত্রন করার চেষ্টা করেন তা কখনও মঙ্গলজনক কিছু হবে না।
পৃথিবীতে এমন কোন বিষয় নাই যা নিয়ে কথা বলা যাবে না। তবে অাসলে কি মানুষ সব বিষয় নিয়ে কথা বলতে পারে? উত্তর খুব সহজ না। অামাদের দেশের বিভিন্ন বিষয় পর্যালোচনা করলে দেখা যায় যে এখানে নিজের মত করে সবার ভাবার বা করার সুযোগ নাই। ধর্ম নামক এক পরকালিন সুখের পন্থার ধোঁয়া তুলে যা ইচ্ছা করতে পারে ধর্মান্ধরা সাথে যুক্ত হয় রাস্ট্রযন্ত্রের চালকেরা।
বই লিখেছে খারাপ লিখেছে যাচাই বাচাই করেন অাপত্তিকর হলে বইটি নিষিদ্ধ করেন কিন্তু তাই করলেন না। পুলিশ বীররা গিয়ে স্টল সহ বন্ধ করে দিলেন লেখক প্রকাশক সবাইকে গ্রেফতার করলেন। তাদের রিমান্ডে নিয়েছেন। কি জানতে চাইবেন রিমান্ডে? অত্যাচার ছাড়া হয়তো সেখানে অার বিছুই হবে না। মেলা যদি সবার হয় তাহলে সবার মতামত দিয়ে লেখা প্রকাশ করার অধিকারও রয়েছে।
বইয়ের মধ্যে কি অাছে জানে না পুলিশ কিন্তু বাঁশের কেল্লা অাপত্তি দিল তাতে গ্রেপ্তার হল লেখক। গতবার খুন হয়েছে এবার জেলে গেছে সামনে না জানি কি হবে।
বইটি নাকি একুশের চেতনার পরিপন্থী বলছেন ড. জালাল অাহমেদ খুব জানতে ইচ্ছা করছে তার কাছে একুশের চেতনা বলতে কি বুঝেন। অাপনার নিজের চেতনা ঠিক করেন তারপর অাসেন একুশের চেতনার কথা বলতে।
এভাবে সব বন্ধ করে দিয়ে কাদের হাতে দেশ তুলে দিচ্ছে সচেতন কর্তারা তাতে নিশ্চই মধ্যযুগীয় সময়ে ফিরে যাবার অাপ্রাণ চেষ্টা করা হচ্ছে। শেষ বিকালে বলতে হয় তোমাদের সব কুকর্ম চলবে বন্ধ হবে শুধু অামার বাক।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *