আমার ভাইয়ের রক্তে রাঙানো একুশে ফেব্রুয়ারি, আমি কি ভুলিতে পারি ???

হা, অবশ্যই ভুলিতে পারি ।

হা, অবশ্যই ভুলিতে পারি ।
শুথু মাত্র গানের কথা গুলো ছাড়া এর চেতনা কে আমরা আচ্ছাকুড়ে নিক্ষেপ করেছি বহু অাগেই । তা না হলে বাঙালী সংস্কৃতিতে ভালবাসা দিবস আসলো কি ভাবে ? কি ভাবে বাংলা ভাষা চর্চা কেন্দ্র না হয়ে বাংলা একাডেমী নাম হলো ? বাঙালীরা তাদের মা,বাবা ভাই বোন, স্ত্রী, সন্তানদের ভালবাসবে বছর জুড়ে, কোন একটি নিদিষ্ট দিনে কেন ? ভালবাসা দিবস নামে ১৪ই ফেব্রয়ারীতে টিএসসি আর বনানী গুলশানের ক্লাব গুলিতে যে বেহায়াপনা হয় তা কি বাঙালী সংস্কৃতির সাথে যায় ? আজ যারা বসন্তের শুভেচ্ছা দিয়ে ফেবু আর ব্লগের পাতা ভরে ফেলছে, তাদের অধিকাংশই আগামীকাল লোক দেখানো ভালবাসার অভিনয় করবে । অার পরশু থেকে শুরু হবে একুশের চেতনার মায়া কান্না ।
আমার মা দিবসের প্রয়োজন নাই, কারন আমি আমার মা‘কে বৃদ্ধাশ্রমে রেখে আসিনি, যে বছরের একটি নিদিষ্ট দিনে দিবস করে তাকে দেখতে হবে, ভালবাসতে হবে ।
আমি বাঙালী তাই আমার ভালবাসা প্রতিদিন থাকে আমার মা বাবা ভাই বোন স্ত্রী সন্তানদের প্রতি । আমার কোন রাক্ষেল নাই, যাকে একটি নিদিষ্ট দিনে প্রকাশ্যে চুমু দিয়ে আমার অসভ্যতা প্রকাশ করবো । আমি বাঙালী, তাই আমি জানি, লজ্জা নারীর ভূষন । আর এতেই তারা সম্মানীত হন ।
আমার ভাইয়ের রক্তে রাঙানো একুশে ফেব্রুয়ারি, আমি কি ভুলিতে পারি……এই কথা গুলো মুখে নয়, বুকে লালন করতে হবে । তাহলেই বাঙালী সংস্কৃতি থেকে দুর হবে বিজাতীয় বেশভূষা আর অশ্লীলতায় ভরফুর দিবস গুলি ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *