ছাত্র ইউনিয়ন: নারী নিপীড়নের শাস্তি এক মাসের বহিস্কারাদেশ(!)

ছাত্র ইউনিয়নের ঢাকা মহানগর কাউন্সিলে হামলা ও নারী নিপীড়নে জড়িত থাকার অভিযোগে একজন কেন্দ্রীয় নেতাসহ ১০ জনকে বিভিন্ন মেয়াদে বহিস্কার করেছে সংগঠনটির সর্বোচ্চ পরিষদ। দুই দিনব্যাপী ছাত্র ইউনিয়নের জাতীয় পরিষদ সভা শেষে সকালে এ সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়।


ছাত্র ইউনিয়নের ঢাকা মহানগর কাউন্সিলে হামলা ও নারী নিপীড়নে জড়িত থাকার অভিযোগে একজন কেন্দ্রীয় নেতাসহ ১০ জনকে বিভিন্ন মেয়াদে বহিস্কার করেছে সংগঠনটির সর্বোচ্চ পরিষদ। দুই দিনব্যাপী ছাত্র ইউনিয়নের জাতীয় পরিষদ সভা শেষে সকালে এ সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়।

বহিস্কৃতদের মধ্যে কেন্দ্রীয় সংসদের সহকারী সাধারণ সম্পাদক অনিক রায়কে ও বিলুপ্ত ঢাকা মহানগর সংসদের সভাপতি বিধান কুমার বিশ্বাস, সহ সভাপতি রবি শংকর সেন, সহকারী সাধারণ সম্পাদক রাকিব উজ জামানকে দুই মাসের জন্য বহিস্কার করা হয়েছে। এছাড়া কবি নজরুল কলেজের সভাপতি দীপক শীল, তেজগাঁও কলেজের সাংগঠনিক সম্পাদক অন্তু চন্দ্র নাথ, বাড্ডা থানার সিএম তারেক, খিলগাঁও থানার রকিবুল হাসানকে এক মাস, ধানমন্ডি থানার সভাপতি এইচ আই হামজাকে সাত দিন ও মিরপুর থানার মাসুদ রহমানকে তিন দিনের জন্য বহিস্কার করা হয়। এদের মধ্যে দীপক শীল নারী নিপীড়নে অভিযুক্ত ছিলেন।

ছাত্র ইউনিয়নের সভাপতি লাকী আক্তারের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত জাতীয় পরিষদ সভায় সুমন সেনগুপ্তকে আহবায়ক করে সংগঠনটির ঢাকা মহানগর সংসদের নতুন কমিটিও ঘোষণা করা হয়।

উল্লেখ্য যে, গত ১৭ জানুয়ারি গভীর রাতে রাজধানীর মুক্তিভবনে ছাত্র ইউনিয়ন ঢাকা মহানগর কাউন্সিলের দু’গ্রুপে সংঘর্ষ হয়। এতে গণপিটুনি ও নারী নিপীড়নের ঘটনাও ঘটে। ওইদিন মাসুদ রহমান, লিজা আক্তার, এরিখসহ ৭ জন গুরুতর আহত হন।আহতদের ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছিল।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *