সংখ্যালঘু যুবকের হাতে ৫ বছরের মুসলিম কন্যা শিশু ধর্ষিত

রাজশাহীর মোহনপুর উপজেলার খাড়তা গ্রামে ৫ বছরের এক মুসলিম কন্যা শিশুকে ধর্ষণের অভিযোগ পাওয়া গেছে। আজ শনিবার সকালের এ ঘটনায় জড়িত থাকারঅভিযোগে পুলিশ একই এলাকার ★★[পলান চন্দ্র ওরফে কটুকে (৪২) ]★★★গ্রেপ্তার করেছে।
মামলা সূত্রে জানা গেছে, উপজেলা
খাড়তা গ্রামের পলান চন্দ্র ওরফে কটু’র
বাড়ির পাশে আজ শনিবার বেলা ১১টার
দিকে প্রতিবেশী মুসলিম কন্যা শিশু খেলা করছিল।
এ সময় তাকে গাঁজর দেওয়ার লোভ দেখিয়ে
লম্পট কটু তার বাড়িতে ডেকে নিয়ে যায়।
পরে শিশুটিকে ধর্ষণ করে পালিয়ে যায় কটু।
শিশুটি সেখান থেকে ছাড়া পেয়ে
বাড়িতে গিয়ে তার মাকে বিষয়টি
জানায়। এরপরে শিশুটির অবস্থার অবনতি

রাজশাহীর মোহনপুর উপজেলার খাড়তা গ্রামে ৫ বছরের এক মুসলিম কন্যা শিশুকে ধর্ষণের অভিযোগ পাওয়া গেছে। আজ শনিবার সকালের এ ঘটনায় জড়িত থাকারঅভিযোগে পুলিশ একই এলাকার ★★[পলান চন্দ্র ওরফে কটুকে (৪২) ]★★★গ্রেপ্তার করেছে।
মামলা সূত্রে জানা গেছে, উপজেলা
খাড়তা গ্রামের পলান চন্দ্র ওরফে কটু’র
বাড়ির পাশে আজ শনিবার বেলা ১১টার
দিকে প্রতিবেশী মুসলিম কন্যা শিশু খেলা করছিল।
এ সময় তাকে গাঁজর দেওয়ার লোভ দেখিয়ে
লম্পট কটু তার বাড়িতে ডেকে নিয়ে যায়।
পরে শিশুটিকে ধর্ষণ করে পালিয়ে যায় কটু।
শিশুটি সেখান থেকে ছাড়া পেয়ে
বাড়িতে গিয়ে তার মাকে বিষয়টি
জানায়। এরপরে শিশুটির অবস্থার অবনতি
হতে থাকলে তাকে চিকিৎসার জন্য প্রথমে
মোহনপুর থানা স্বাস্থ্যকেন্দ্রে ভর্তি করা
হয়। সেখান থেকে রামেক হাসপাতালের
ওসিসিতে ভর্তি করা হয়। পরে মোহনপুর
থানা পুলিশ খবর পেয়ে পলানো চন্দ্র কটুকে
গ্রেপ্তার করে।
এখন,কটুর জায়গায় একটা মুসলিম যুবক হলে অনলাইনে গোমূত্র খেকোরা বিরাট সাম্প্রদায়িক উস্কানি ছড়িয়ে দিতো।মিডিয়া ঢোল পেটাতো।
যেহেতু, মেয়েটি মুসলিম এটাই তার অপরাধ।
সে সংখ্যাঘরিষ্ট ধর্মের হলেও তারা বাংলাদেশ নামক দেশটির তৃতীয় শ্রেণীর নাগরিক।
মুসলিম মেয়েদের ইজ্জতে দাম নাই,সব যবনের বাচ্চা

২ thoughts on “সংখ্যালঘু যুবকের হাতে ৫ বছরের মুসলিম কন্যা শিশু ধর্ষিত

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *