শিল্পায়ন ও শিক্ষা ক্ষেত্রে অপার সম্ভাবনার ক্ষেত্র হাইটেক পার্ক

শিল্পায়ন ও শিক্ষা ক্ষেত্রে হাইটেক পার্ক সম্ভাবনার দুয়ার খুলেছে। ইতোমধ্যে কালিয়াকৈরে ২৩২ একর জমিতে প্রথম হাইটেক পার্ক নির্মাণের কাজ শুরু হয়েছে। পাশাপাশি কাওরান বাজারের জনতা টওয়ার, যশোর, রাজশাহীসহ দেশের ৭টি বিভাগে ১২ জেলায় সফটওয়্যার টেকনোলজি পার্ক স্থাপনের কাজের দৃশ্যমান অগ্রগতি হয়েছে। হাইটেক পার্কে ১০ লাখ আইটি পেশাদার তৈরির মাধ্যমে আগামী পাঁচ বছরের মধ্যে তথ্যপ্রযুক্তি খাতে বছরপ্রতি রপ্তানি আয় ১ বিলিয়ন ডলারে উন্নীত করার লক্ষ্যমাত্রা নিয়ে কাজ করা হচ্ছে। এ পার্কগুলোতে প্রত্যক্ষ এবং পরোক্ষভাবে লাখ লাখ ব্যক্তির কর্মসংস্থান হবে। এর ফলে তথ্যপ্রযুক্তি খাতে বিনিয়োগ বাড়বে এবং দেশে অনেক কর্মসংস্থান তৈরি হবে। এক কথায় অ্যাপল, স্যামসাং, মটোরোলাসহ আন্তর্জাতিক খ্যাতি সম্পন্ন ইলেকট্রনিক্স কোম্পনির শিল্প কারখানা স্থাপনের মত সার্বিক সুযোগ সুবিধা নিয়ে এই পার্কগুলো ডিজাইন করা হয়েছে। এই হাইটেক পার্কগুলো বিদেশি বিনিয়োগকারীদের আস্থা অর্জন করতে পারবে। তারা আমাদের দেশে তাদের ইন্ডাট্রিজ স্থাপন করলে দেশের কর্মসংস্থান বেড়ে যাবে। অপর দিকে হাইটেক পার্কগুলো দেশের যুব সমাজকে প্রশিক্ষণ দিয়ে বিশ্বমানের কোম্পানীতে কাজ করার মত উপযোগী করে তুলবে। এধরনের পরিস্থিতিতে দেশের মধ্যে নতুন নতুন উদ্যোগতাও সৃষ্টি হবে। এছাড়া বাংলাদেশ হাইটেক পার্ক অথরিটি (বিএইচটিপিএ) সফটওয়্যার টেকনোলজি পার্কের আওতায় স্থাপন করছে হচ্ছে ল্যাব ও প্রশিক্ষণ একাডেমি। দেশের স্থানীয় বাজার ও আন্তর্জাতিক বাজারের কথা মাথায় রেখে ল্যাব ও প্রশিক্ষণ কেন্দ্র স্থাপন করা হচ্ছে। ল্যাবগুলোয় গবেষণাসহ ইলেকট্রনিক্স চিপ ডিজাইনের উপর শিক্ষার্থীদের প্রয়োজনীয় প্রশিক্ষণ প্রদান করবে সরকার। ল্যাবে বিভিন্ন ইলেকট্রনিক্স সামগ্রী যেমন- টিভি, এলইডি কন্ট্রোলার, রিমোটসহ যেকোনো ইলেকট্রনিক ডিভাইসের চিপ তৈরি করা হবে। যেগুলো স্থানীয় বাজারে বিক্রি হবে। শুধু চিপ ডিজাইন নয়, এর বাইরে ট্রেনিং ও স্কিল ডেভেলপমেন্টের জন্য কাজ করবে এসব সেন্টার। যুবকরা মেধা দিয়ে এই কাজ করবে। এসবই বাংলাদেশে সফটওয়্যার শিল্পের আরও বিকাশ ঘটাবে। তথ্যপ্রযুক্তির বিপ্লবের এ সময়ে হাইটেক পার্ক দেশের শিল্পায়নে প্রাণ সঞ্চার করবে। পার্কে দেশি-বিদেশি বিনিয়োগ তথ্যপ্রযুক্তিতে বাংলাদেশের অগ্রযাত্রাকে আরও ত্বরান্বিত করবে। বিশ্বের সাথে তাল রেখে এগিয়ে যাবে আমাদের এই সোনার বাংলাদেশ এ প্রত্যাশা সবার।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *