দৃশ্যমান উন্নয়ন প্রকল্প

পদ্মা সেতুর নির্মাণে দীর্ঘ টানাপড়েনের এক পর্যায়ে বিশ্বব্যাংককে ‘না’ বলার পর অনেকেই ভেবেছিলেন, পদ্মা সেতু আরও কয়েক বছর স্বপ্নই থেকে যাবে। কিছুদিন পর সবাই দেখলেন, পদ্মাপাড়ে কর্মযজ্ঞ শুরু হয়ে গেছে। আর গত মাসে শুরু হয়েছে মূল সেতুর কাজ। বর্তমান সরকারের আমলে অব্যাহতভাবে বিদ্যুৎ উৎপাদন বাড়ছে। মানব উন্নয়নে বর্তমান সরকারের সাফল্য প্রশংসাযোগ্য। সরকারের বিভিন্ন পদক্ষেপে শিক্ষা ও স্বাস্থ্যে ব্যাপক উন্নতি হয়েছে। বাংলাদেশ এখন জাতিসংঘের মানব উন্নয়ন সূচকে নিম্ন-মধ্যম ক্যাটাগরিতে উঠেছে। পাকিস্তান এখনও নিম্ন পর্যায়ে রয়ে গেছে। মাথাপিছু আয় বৃদ্ধির কারণে বাংলাদেশ বিশ্বব্যাংকের নিম্ন-মধ্যম আয়ের দেশের তালিকায় উন্নীত হয়েছে। বাংলাদেশ এখন পৃথিবীর দ্রুত বর্ধনশীল দেশের তালিকায় পঞ্চম। পদ্মা সেতুসহ ৮টি প্রকল্প এর আওতায়। অন্য প্রকল্পের মধ্যে রামপালে ১৩২০ মেগাওয়াট বিদ্যুৎকেন্দ্রের কাজ শুরু হয়েছে। ঢাকায় মেট্রোরেল নির্মাণের প্রাথমিক কাজ চলছে। রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎকেন্দ্রের কাজ সরকারের বর্তমান মেয়াদে শেষ হবে বলে প্রত্যাশা করা হচ্ছে। পায়রা সমুদ্রবন্দর নির্মাণকে সামনে রেখে এর অবকাঠামো উন্নয়নে একটি প্রকল্প বাস্তবায়ন চলছে। কর্ণফুলী নদীর তলদেশে টানেল নির্মাণ, মগবাজার-মৌচাক ফ্লাইওভার, মাতারবাড়িতে জাইকার সহায়তায় কয়লাভিত্তিক বড় বিদ্যুৎকেন্দ্র নির্মাণে অগ্রগতি হয়েছে। ঢাকা-চট্টগ্রাম চার লেন প্রকল্প বাস্তবায়নে এখন পুরোদমে কাজ চলছে। এ প্রকল্প খুব তাড়াতাড়ি শেষ হবে। এরকম অনেকগুলো প্রকল্প এগিয়ে চলেছে, যার পুরোটা বাস্তবায়িত হলে দেশের চিত্রই বদলে যাবে।

১ thought on “দৃশ্যমান উন্নয়ন প্রকল্প

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *