সংস্কারঃ কুসংস্কার

কবিরাজ।
উল্লেখ্যঃ
ইনি সাত দিন পানির নিচে ছিলেন!
(কথিত আছে)
জেনে ধরা ভুতে ধরা রুগী তার একটু “ফু”তেই সুস্থ্য!!(কথিত আছে)
গ্রামের মহিলা মহলে তার মুখের কথা বেদবাক্যের ন্যায় মান্য করা হয়।

গ্রামঞ্চলে মানুষের ভুতে বিশ্বাস প্রবল।
আর তাইতো তাদের ব্যাখার অতীত সমস্ত ঘটনাই ভুত বলে পরিগনত হয়।

হয়তো কেউ রাতে বাচ্চার মত কান্না শুনেছে।
তাদের আসরে কথাটা উঠলো।
ব্যাখ্যা হবে ভুত,জেন, পরি।
বাচ্চার রুপ ধরে কাদছিল!

হয়তো কেউ পূর্ণচন্দ্র রাতে গাছের নিচে সাদা কাপর পড়া কিছু দেখলো তাদের ব্যাখ্যা হবে, ভুত, জেন, পড়ি।
বুড়ির রুপ ধরে তরে নিয়ে যাইতে চাইছিল।

সবচেয়ে যেটা মারাত্মক!!!

কবিরাজ।
উল্লেখ্যঃ
ইনি সাত দিন পানির নিচে ছিলেন!
(কথিত আছে)
জেনে ধরা ভুতে ধরা রুগী তার একটু “ফু”তেই সুস্থ্য!!(কথিত আছে)
গ্রামের মহিলা মহলে তার মুখের কথা বেদবাক্যের ন্যায় মান্য করা হয়।

গ্রামঞ্চলে মানুষের ভুতে বিশ্বাস প্রবল।
আর তাইতো তাদের ব্যাখার অতীত সমস্ত ঘটনাই ভুত বলে পরিগনত হয়।

হয়তো কেউ রাতে বাচ্চার মত কান্না শুনেছে।
তাদের আসরে কথাটা উঠলো।
ব্যাখ্যা হবে ভুত,জেন, পরি।
বাচ্চার রুপ ধরে কাদছিল!

হয়তো কেউ পূর্ণচন্দ্র রাতে গাছের নিচে সাদা কাপর পড়া কিছু দেখলো তাদের ব্যাখ্যা হবে, ভুত, জেন, পড়ি।
বুড়ির রুপ ধরে তরে নিয়ে যাইতে চাইছিল।

সবচেয়ে যেটা মারাত্মক!!!
১২ কিম্বা ১৩ বছর বয়সি বিয়ে হওয়া কোন মেয়ে কোন (শারিরিক অথবা মানুষিক) কারণে শ্বামীর সাথে না থাকে তার ব্যাখ্যা দ্বার করানো হয় জেনে ধরা কিম্বা তাবিজ করা!
আর তার পর থেকে শুরু হয় তার উপর তেল পরা পানি পরার অত্যাচার।

কোন বৈজ্ঞানিক ব্যাখ্যা তাদের কাছে গৃহিত না!
ব্যাখা একটাই…. জেন… ভুত…. প্রেত….পড়ি… দেও….. দেত্য… দানব….!

তার ব্যাখ্যার কিছু ভুল ধরলেই একটাই কথা,
” যেইদিন ফাঁদে পড়বি, সেই দিন বুজবি।”
মহিলারা সব সমস্বরে,”হু হু… সেই দিন বুঝবি”

সাইকোলজিক্যাল ডিজিজ সম্পর্কে তারা অজ্ঞ।
হেলুসিনেসন তাদের কাছে ভুত!
হিস্টিরিয়া তাদের কাছে জিন!
ডিপ্রেশন তাদের কাছে পড়ি !

আর মজার ব্যাপার হচ্ছে কিছু আই এ, বি এ পাশ ব্যাক্তি চরম ভাবে বিশ্বাস করে।
তাবিজ কবজের প্রতি তাদের অগাধ বিশ্বাস!
শত্যি ভয়ংকর।

কবিরাজ আজ অসুস্থ।।
বয়স হয়েছে ১০৫ বছর (প্রায়)
মারা যাবে!
ভাবছেন তার সাথে সাথে এ কুসংস্কার গুলো কবরে যাবে?
যাবে না!
তার হাতে তৈরি হয়েছে অনেক ওহি( তার নাম)!
উল্লেখ্য’
তার নিতনি ঘাড়ে আজমির শরিফের জেন আছে
সেই জেন কার কি অসুখ সব বলে দিতে পারে।!
বাংলার হাজার গ্রাম কি প্রাগৈতিহাসিকের পাচির মত পচাঁ ঘাঁ (কুসংস্কার) বয়ে বেরাবে যুগ যুগান্তরে!?
নাকি অবতার আসবে!
করবে দুষ্টের দমন শিষ্টের পালন!

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *