একীভূত হচ্ছে বিনিয়োগ বোর্ড ও প্রাইভেটাইজেশন কমিশন

বিনিয়োগ বোর্ড ও প্রাইভেটাইজেশন কমিশনকে একীভূত করে তৈরি হচ্ছে বিনিয়োগ কর্তৃপক্ষ। বাংলাদেশ বিনিয়োগ উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান হবে প্রধানমন্ত্রী, ভাইস চেয়ারম্যান হিসেবে অর্থমন্ত্রীর সমন্বয়ে সংস্থাটির ১৭ সদস্যের একটি পরিচালনা পরিষদ থাকবে ।এ লক্ষ্যে ‘বাংলাদেশ বিনিয়োগ উন্নয়ন কর্তপক্ষ আইন-২০১৫-এর খসড়ার চূড়ান্ত অনুমোদন দেওয়া হয়েছে।এতে বিনিয়োগ বোর্ড ও প্রাইভেটাইজেশন কমিশন দুটিই বিলুপ্ত হয়ে ‘বাংলাদেশ বিনিয়োগ উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ (বিগ)’ প্রতিষ্ঠিত হবে। এই নতুন সংস্থা দেশে বিনিয়োগ বৃদ্ধি এবং সরকারী খাতের শিল্প-কারখানার অব্যবহৃত জমি দক্ষতার সঙ্গে কাজে লাগাতে সহায়তা করবে। বিনিয়োগ বোর্ড ও প্রাইভেটাইজেশন কমিশনে কর্মরত সকল কর্মকর্তা-কর্মচারী নবগঠিত সংস্থায় বদলি করা হবে। এ ছাড়া বিলুপ্ত সংস্থা দুটির সব সম্পদ ও দায়দেনা বিনিয়োগ উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের মালিকানাভুক্ত হবে। সংস্থাটি দেশে বিনিয়োগের জন্য বেসরকারী খাতে শিল্প স্থাপন ও বিদেশী বাণিজ্য লিয়াজোঁ শাখা কার্যালয়ের নিবন্ধন পরিচালনা করবে। আমদানি বন্দোবস্ত ও এনওসি ইস্যু নিষ্পত্তি এবং গেজেট নোটিফিকেশনের মাধ্যমে নির্ধারিত কোন এলাকা শিল্পাঞ্চল হিসেবে ঘোষণা ও সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে জমি অধিগ্রহণে সহায়তা করবে। সংস্থাটি জমির যথাযথ ব্যবহার নিশ্চিত করতে অব্যবহৃত জমি ও কাঠামোর তালিকা করে এর ব্যবহারের নীতিমালা তৈরি, প্লট বরাদ্দ ও হস্তান্তরের গাইডলাইন প্রণয়ন এবং ওয়ানস্টপ সার্ভিস ব্যবস্থা আরও কার্যকর করতে ওয়ানস্টপ সার্ভিস ইনস্যুরিং কমিটি গঠন করা হবে। এতে দেশের অর্থনীতির চাকা আরও গতিশীল হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *