আপনি কি ছ্যাকা খেয়ে, বাকা হয়ে আছেন ???

প্রেমে ব্যার্থ, সুইসাইড করবেন ???
করে ফেলুন!
.
ফাসি দিয়ে করলে আমার মনে হয় ব্যাটার হবে বা ট্রেনের নিচেঝাপ দিয়ে
শরীরটা দুই খন্ড হয়ে যাবে।
তবুও ভালো একবার মরতে তো পারবেন। ভালোবাসা জিনিসটার কোন মুল্য নাই।
.
আচ্ছা মরে যাবেন ভালোকথা।
একটা মেয়ের ভালোবাসার কাছে আপনার বাবা-মায়ের ভালোবাসার কি কোনমুল্য নেই।
আপনাদের মধ্যবিত্ত পরিবারযা উচ্চবিত্ত ও নিম্নবিত্তের নিচে পরে স্যান্ডুইচের মতো হয়ে গেছে। ২৪ঘন্টার অর্ধেকের ও বেশী সময় আপনার বাবা আপনাদের জন্য ভাবে। বাস্তবতা ফেসবুক নয়, বড়ই কঠিন বাস্তবতা।
বাবার পরিশ্রম মাখা তৈলাক্ত মুখ দেখেও সুইসাইড করতে মন চাইবে।

প্রেমে ব্যার্থ, সুইসাইড করবেন ???
করে ফেলুন!
.
ফাসি দিয়ে করলে আমার মনে হয় ব্যাটার হবে বা ট্রেনের নিচেঝাপ দিয়ে
শরীরটা দুই খন্ড হয়ে যাবে।
তবুও ভালো একবার মরতে তো পারবেন। ভালোবাসা জিনিসটার কোন মুল্য নাই।
.
আচ্ছা মরে যাবেন ভালোকথা।
একটা মেয়ের ভালোবাসার কাছে আপনার বাবা-মায়ের ভালোবাসার কি কোনমুল্য নেই।
আপনাদের মধ্যবিত্ত পরিবারযা উচ্চবিত্ত ও নিম্নবিত্তের নিচে পরে স্যান্ডুইচের মতো হয়ে গেছে। ২৪ঘন্টার অর্ধেকের ও বেশী সময় আপনার বাবা আপনাদের জন্য ভাবে। বাস্তবতা ফেসবুক নয়, বড়ই কঠিন বাস্তবতা।
বাবার পরিশ্রম মাখা তৈলাক্ত মুখ দেখেও সুইসাইড করতে মন চাইবে।
যে বাবা না চাইতে তার পরিশ্রমের টাকা আপনার হাতে তুলে দেয়।
বাবা আমার এটা লাগবে ওটা লাগবে ধার-দেনা করে হলেও আপনার চাহিদা পুরন করে তারা। ধরুন আপনি মরে গেলেন কিন্তু আপনার মা অপেক্ষা করবে খাওয়ার টেবিলে, আপনি কখন আসবেন কখন আপনাকে খেতে দিবে।
চাদর জরিয়ে আপনার বাবা আপনার মায়ের কাছে আসবে আর বলবে তুমি কার জন্য খাবার নিয়ে বসে আছ, সে আর আসবেনা। তখন দুইজনে কেদে দিবে।
.
যখনআপনি ছোট ছিলেন আপনার বাবা আপনাকে কোলে তুলে নিতো, ছোটবেলায় তখন আপনি আপনার বাবার উপর ভরসা করতেন।
কিন্তু একদিন দায়িত্ব আপনি পাবেন তখন কিসুন্দরি ললনার জন্য বাবা মাকে ভুলে যাবেন।
.
আপনি ভুলে গেলেও আমি শিওর ওনারা আপনাকে ভুলবেনা। আপনার জন্য পথ চেয়ে থাকবে। যেখানে থাকেন না কেন আপনার ভালো চাইবে।
.
বাস্তবতা বড় কঠিন তবুও বেচে আছি। শুধু মাত্র মধ্যবিত্তরা বাস্তবতার আসল রুপ দেখে।
.
.
তবুও কি বলবেন যে, একটা মেয়ের জন্য আপনার জিবন নস্ট করে ফেলবেন?…….

১ thought on “আপনি কি ছ্যাকা খেয়ে, বাকা হয়ে আছেন ???

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *