আমরা এখন আর বাঙ্গালী না, আমরা এখন বাংলাদেশী

আমি দেখিনি বায়ান্নর ভাষা যুদ্ধ
শুনেছি ভাষার শ্রেষ্ঠ ইতিহাস,
আমি দেখিনি একাত্তরের যুদ্ধ
দেখিনি মুক্তির জয় উল্লাস।
আমি শুনেছি রবী-নজরুলের গান
শুনে জাগ্রত হয় বিদ্রুহী প্রান।

আমি বাঙ্গালী, আমি আমার দেশের সার্থের জন্য যে কোনো সময় যে কারো সাথে বিরোধিতা করি, সে হোক ফাকিস্তান, ইন্ডিয়া কিংবা মিয়ানমার, হিন্দু বোদ্ধ মুসলিম খ্রিষ্টান কিংবা নাস্তিক।

শুনেছি ৭১রে ফাকিস্তানীরা অনেক বাঙ্গালী নারীকে ধর্ষন করেছিল, আসলেই তাই, যার দাগ এখনো বিদ্যমান। হত্যা করেছে লক্ষ লক্ষ নিরীহ মানুষ যাদের রক্তে এখনো কালো হয়ে আছে এই দেশ।

আর এই মাদারচুদও সেই পাকিদের ___ তৈরী।

আমি দেখিনি বায়ান্নর ভাষা যুদ্ধ
শুনেছি ভাষার শ্রেষ্ঠ ইতিহাস,
আমি দেখিনি একাত্তরের যুদ্ধ
দেখিনি মুক্তির জয় উল্লাস।
আমি শুনেছি রবী-নজরুলের গান
শুনে জাগ্রত হয় বিদ্রুহী প্রান।

আমি বাঙ্গালী, আমি আমার দেশের সার্থের জন্য যে কোনো সময় যে কারো সাথে বিরোধিতা করি, সে হোক ফাকিস্তান, ইন্ডিয়া কিংবা মিয়ানমার, হিন্দু বোদ্ধ মুসলিম খ্রিষ্টান কিংবা নাস্তিক।

শুনেছি ৭১রে ফাকিস্তানীরা অনেক বাঙ্গালী নারীকে ধর্ষন করেছিল, আসলেই তাই, যার দাগ এখনো বিদ্যমান। হত্যা করেছে লক্ষ লক্ষ নিরীহ মানুষ যাদের রক্তে এখনো কালো হয়ে আছে এই দেশ।

আর এই মাদারচুদও সেই পাকিদের ___ তৈরী।
যার জন্য তাকে গালি দেয়া জায়েজ। যত খুশী কমেন্ট বক্সে লিখে যান, প্রথম কমেন্টে তার আইডি লিংক দিলাম, ইচ্ছে হলে তার প্রোফাইলে গিয়ে দিন। অন্তত দেশের জন্য ২-১ টা কথা বললে মুখ নোংড়া হয়না। যা খুসি বলে জান এই জারজটাকে।

(আমি ব্লগে নতুন তাই পিক আর কিভাবে কি করতে হবে তা জানিনা তাই আমার ফেবুক আইডি লিংক দিলাম সেখানে তার পিকের স্কিনশর্ট সহ তার আইডি লিংক দিয়ে একটা পোষ্ট আছে দেখবেন আমার প্রোফাইল facebook.com/aarohi.hasan.3 )

কিছুদিন আগে যখন ইসরাইলীরা ফিলিস্তিনির উপর হামলা চালাচ্ছে তার নিন্দা জানিয়ে একজন বাংলাদেশী মুসলিম হয়ে তাদের এক পেইজে বাংলাদেশ ও ফিলিস্তিনির প্রতাকা দিয়ে একটা পিক ক্রেডিট করে পাঠিয়েছিলাম। সেই প্রতাকায় এই মাদারচুদেরও লাইক ছিলো তার প্রোফাইল পিক পাকিস্তানের প্রতাকা তা দেখে তার এবাউটে গেলাম। আর মাদারচুদের জন্মের ভুল গুলো দেখে আমি আমার হোষ হারিয়ে ফেললাম। ১৬ডিসেম্বর আমাদের স্বাধীনতা দিবস, আমাদের বিজয় দিবস।
এই মাস বাঙ্গালী জাতির দীর্ঘ নয় মাসের রক্তঝরার ফল। আর এই মাস হচ্ছে কুত্তারবাচ্চাদের পরাজয়ের মাস। তাই শোকাবহ লিখে পাকিস্তানের প্রতাকা প্রোফাইলে দিছে। ছিঃ ছিঃ ছিঃ !!! ভাবতেও লজ্জা লাগে, এর মত কয়েক পিছ এখনো এই দেশের মাটিতে ধুরে বেড়াচ্ছে, এদেশের পবিত্র মাটিকে অপবিত্র করার অপচেষ্টা করছে। এখন সময় এসেছে এদের বিরোদ্ধে রোখে দাড়াবার। সময় এসেছে এদের পাছায় লাথী মেরে ফাকিস্তান পাঠিয়ে দেবার। সময় এসেছে এদেশটাকে কলঙ্ক মুক্ত করার। এখনো কিছু তরুণ আফসোস করে কেন তার জন্ম ৭১ এর আগে হয়নি, কেনো সে যুদ্ধ করতে পারেনি। কেন সে দেশের জন্য জীবন দিতে পারেনি, আর কেন সে উপভোগ করতে পারেনি ১৬ই ডিসেম্বরের সেই বিজয় উল্লাস।

চেতনা উঁকি দেয় শহিদের স্বপ্ন সুখ শান্তি ধারায়। যেতে হবে বহুদূর চলো যাই এগিয়ে নব-সম্ভাবনায়।
তুমি দুঃখ করোনা, ও বাংলা মা শত্রু তোমার বুকে ঠাই পাবে না। জাগো দেশো-বাসী, ভুলে রেশা-রেশি,
বাংলার বুকে ফুটাই হাসি। এসো বাংলাকে ভালবাসি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *