নীলফামারীতে সাংবাদিকতার নামে চাঁদাবাজি ৷

সাংবাদিকতার নাম ভাঙ্গিয়ে মিথ্যা সংবাদ প্রকাশের হুমকি দিয়ে চাঁদাবাজি, মাদক ব্যবসার সহযোগীতা করা ও সাধারণ মানুষের সাথে প্রতারণা সহ নানাবিধ অপকর্ম চালিয়ে যাওয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে নীলফামারী জেলার গুটি কয়েক সাংবাদিকদের বিরুদ্ধে ৷
তাদের কর্মকান্ডে সরকারী বে সরকারী কর্মকর্তা কর্মচারী সহ সাধারণ মানুষ অতিষ্ট হয়ে পড়েছে। সেই সাথে ভাবমুর্তি ক্ষুন্ন হচ্ছে এলাকার প্রকৃত সংবাদকর্মীদের। তাদের এই অনৈতিক কর্মকান্ডের জন্য তাদেরকে স্থানীয় প্রেসক্লাব গুলো বহিষ্কার করে ৷ ফলে তারা নিজেরাই নীলফামারী জেলার ডিমলা,ডোমার,জলঢাকা,কিশোরগঞ্জ,সৈয়দপুর ও নীলফামারি সদর উপজেলায় একাধিক প্রেসক্লাব গঠন করেছে ৷

সাংবাদিকতার নাম ভাঙ্গিয়ে মিথ্যা সংবাদ প্রকাশের হুমকি দিয়ে চাঁদাবাজি, মাদক ব্যবসার সহযোগীতা করা ও সাধারণ মানুষের সাথে প্রতারণা সহ নানাবিধ অপকর্ম চালিয়ে যাওয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে নীলফামারী জেলার গুটি কয়েক সাংবাদিকদের বিরুদ্ধে ৷
তাদের কর্মকান্ডে সরকারী বে সরকারী কর্মকর্তা কর্মচারী সহ সাধারণ মানুষ অতিষ্ট হয়ে পড়েছে। সেই সাথে ভাবমুর্তি ক্ষুন্ন হচ্ছে এলাকার প্রকৃত সংবাদকর্মীদের। তাদের এই অনৈতিক কর্মকান্ডের জন্য তাদেরকে স্থানীয় প্রেসক্লাব গুলো বহিষ্কার করে ৷ ফলে তারা নিজেরাই নীলফামারী জেলার ডিমলা,ডোমার,জলঢাকা,কিশোরগঞ্জ,সৈয়দপুর ও নীলফামারি সদর উপজেলায় একাধিক প্রেসক্লাব গঠন করেছে ৷
অভিযোগে জানা যায, তারা নিজেকে সাংবাদিক পরিচয় দিয়ে বিভিন্ন সরকারী বে সরকারী অফিস সহ সাধারণ মানুষের কাছে চাদাবাজি শুরু করে। মিথ্যা সংবাদ প্রকাশের নামে অনেক সম্মানী ব্যক্তির কাছে থেকে হাজার হাজার টাকা আদায় করে তারা। শুধু তাই না মাদক ব্যবসায়ীদের সাথে জড়িয়ে পড়ে তারা ৷ সাংবাদিক পরিচয়ে বিভিন্ন সময় বিভিন্ন মাদক দ্রব্য নিরাপদে গন্তব্যস্থানে পৌচ্ছে দিতে সক্রিয় সহযোগীতা করার পাশাপাশি প্রশাসনের বিভিন্ন পর্যায়ে তাদের হয়ে দেন দরবার করে এই হলুদ সাংবাদিকরা। এ নিয়ে স্থানীয় পুলিশ প্রশাসনও তাদের উপর ক্ষুব্ধ।এদিকে বিভিন্ন সরকারী বে সরকারী কর্মকর্তা সহ প্রতিষ্ঠান প্রধানদের কাছে বিভিন্ন অজুহাতে চাদাবাজি করা সহ হুমকি ধামকি অব্যাহত রাখায় ক্ষোভ বিরাজ করছে তাদের মাঝে। এ বিষয়ে প্রতিবাদ করতে গেলে মিথ্যা মামলা সহ নানা ভাবে হয়রানি করা হয় সংশি ষ্টদের।
এসব ঘটনার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছেন প্রকৃত সাংবাদিকরা।
তারা সাংবাদিক নামধারী চাদাবাজদের সকল অপকর্ম রুখে দিয়ে আইন শৃংখলা বাহিনীর কাছে তাদের সকল অপকর্মের কথা প্রকাশ করার জন্য সকলের প্রতি অনুরোধ জানিয়েছেন এবং এ বিষয়ে কাউকে বিভ্রান্ত না হওয়ারও অনুরোধ জানানো হয়েছে।
.
মো.ইমানুর রহমান ৷
নিজস্ব প্রতিবেদক ,নীলফামারী ৷
মোবাইল : ০১৭৭৪৬৯৪২৬৫ ৷

২ thoughts on “নীলফামারীতে সাংবাদিকতার নামে চাঁদাবাজি ৷

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *