জাবি ভর্তি পরীক্ষায় হিজাব নিষেধাজ্ঞা প্রসঙ্গ

আমরা বাঙালী জাতি সর্বদা এক চোখা। জাবিতে পরীক্ষার হলে এক ছাত্রীর হিজাব ও বোরখা খুলে নেয় এক শিক্ষিকা, আমরা সবাই একটি দৃষ্টিতেই বিষয় টি দেখছি যেটা হলো ইসলামিক দৃষ্টি, সেই দৃষ্টিতে এটি অন্যায়।
.
সব কিছুর বিবেচয় কয়েনের এপিঠ আর ওপিঠ দুইটাই বিবেচনা করা উচিত।
.
গত কয়েক বছরের ঘটনা,
হিজাবের নিচে ব্লুটুথ, বার বোরখার নিচে ওয়্যারলেস এর মাধ্যমে বাহির থেকে উত্তর বলা হয়েছে প্রশ্নের, ধরা পড়েছে কয়েকজন, হয়তো এভাবে অনেকজন চান্স ও পেয়ে গেছে, অবহেলিত হচ্ছে আসল মেধাবিরা, এইটাই শিক্ষা?
.

আমরা বাঙালী জাতি সর্বদা এক চোখা। জাবিতে পরীক্ষার হলে এক ছাত্রীর হিজাব ও বোরখা খুলে নেয় এক শিক্ষিকা, আমরা সবাই একটি দৃষ্টিতেই বিষয় টি দেখছি যেটা হলো ইসলামিক দৃষ্টি, সেই দৃষ্টিতে এটি অন্যায়।
.
সব কিছুর বিবেচয় কয়েনের এপিঠ আর ওপিঠ দুইটাই বিবেচনা করা উচিত।
.
গত কয়েক বছরের ঘটনা,
হিজাবের নিচে ব্লুটুথ, বার বোরখার নিচে ওয়্যারলেস এর মাধ্যমে বাহির থেকে উত্তর বলা হয়েছে প্রশ্নের, ধরা পড়েছে কয়েকজন, হয়তো এভাবে অনেকজন চান্স ও পেয়ে গেছে, অবহেলিত হচ্ছে আসল মেধাবিরা, এইটাই শিক্ষা?
.
তাই জাবি কতৃপক্ষ বোরখা এবং হিজাব পড়া র উপর নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে, এইবার আমি প্রশ্ন ছুড়ে দিলাম তাদের কাছে, যারা একে ইসলামের অবমাননা বলছে,,,,

আপনি এর সমাধান কিভাবে করতেন?

১১ thoughts on “জাবি ভর্তি পরীক্ষায় হিজাব নিষেধাজ্ঞা প্রসঙ্গ

  1. বোরকার ও হিজাবের অভ্যন্তরে
    বোরকার ও হিজাবের অভ্যন্তরে চলে চুরি-চামারী। সঙ্গত কারণেই নিষিদ্ধ করা হয়েছে। এটি নিষিদ্ধ করাই উত্তম।

    1. আপনার জন্য তো কাপড়ই নিষিদ্ধ
      আপনার জন্য তো কাপড়ই নিষিদ্ধ করা উচিৎ, কী বলেন? শুধু বোরকা খুললে হবে? যেটুকুন কাপড় পরতে দেয়া হচ্ছে, তাতেও অনেক কিছু লুকানো যেতে পারে।

  2. আপনারা পারেন মশাই। যোগ্য
    আপনারা পারেন মশাই। যোগ্য স্টুডেন্টদের জায়গা করে দিতে মেয়েদের কাপড় খুলতে পারেন পারেন ঠিক, কিন্তু প্রশ্ন ফাঁস ঠেকাতে পারেন না। কারণ, প্রশ্ন ফাঁস ঠেকালে তো আপনারাই বিপদে পড়ে যাবেন। আর অল্প কাপড়ে মেয়েদের খুব সুন্দর দেখায়। সে আর বলতে? মেডিকেলের প্রশ্ন যে আকাশে বাতাসে পাওয়া গেল, সেটা কি মিথ্যে? তখন কোথায় ছিলো আপনাদের এই বোধোদয়?

  3. @আসিফ
    প্রশ্ন পত্র ফাঁস হয় এটা

    @আসিফ
    প্রশ্ন পত্র ফাঁস হয় এটা সত্য,এটা ঠেকানোর জন্যও প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া বাঞ্ছনীয় এবং সে চেষ্টা যে চলছে না তাও বলা সমীচীন নয়….
    সবাই নকল সরবরাহ করতে বোরখা পরে না কিন্তু বোরখার সুবিধা নিয়ে নকল সরবরাহ করা সহজতর, তাই পরীক্ষা ক্ষেত্রে বোরখা ব্যবহারে নিষেধাজ্ঞা অমূলক নয়।।
    প্রশ্ন পত্র ফাঁস ঠেকান যায়না বলে, বোরখা পরে নকল করার সুবিধাও দেয়া লাগবে, এটা তো যুক্তি হতে পারেনা,সর্বাত্মক ভাবে নকল প্রতি রোধের ব্যবস্থা করা জরুরী

  4. স্বয়ং শিক্ষামন্ত্রী,
    স্বয়ং শিক্ষামন্ত্রী, স্বাস্থ্যমন্ত্রী(মেডিকেলে ভর্তির সময়) বলে প্রশ্ন ফাঁস হয় নাই। সব মিডিয়ার সৃষ্টি! তখন যে শুধু বোরখা-হিজাব নিষিদ্ধ করে কি যে ছিড়বে জানা আছে। গোড়ার সমস্যা প্রশ্ন ফাঁস বন্ধ করুন। হিজাব, বোরখা খুলতে হবে না আর।

  5. নকল প্রতিরোধের জন্য বোরকা
    নকল প্রতিরোধের জন্য বোরকা খুলতে হবে, এটা মোটেও যুক্তিযুক্ত নয়। বোরকা-হিজাব পরে যাবে। কান বের করে রাখবে। ব্যাস। নয়তো কাপড় পরাও নিষিদ্ধ করতে হবে। কারণ বোরকার নিচে শয়তান থাকলে অন্তর্বাসের নিচে থাকতে পারবে না, এমন কোনো নিশ্চয়তা নেই।

    1. ঠিক বলছেন আসিফ ভাই। চিন্তা
      ঠিক বলছেন আসিফ ভাই। চিন্তা করুন ওই মেয়েটার কথা সবার সামনে বোরখা-হিজাব খুলতে হয়েছিল!!!

    2. আসিফ ভাতিজা বউরে পর্দা কইরা
      আসিফ ভাতিজা বউরে পর্দা কইরা রাখবে। কাউকে দেখতে দিবে না। ভাতিজা বউ মার হাত নাড়ানোর অভ্যাস থাকলে দোকানে সাবধানে নিয়েন। বোরকাওয়ালীরা দোকানে নাকি হাতের কাজ সারে। পরে মাইর খাইতে হইবেক।

      1. চাচা, চাচীরে পর্দা করায়েন।
        চাচা, চাচীরে পর্দা করায়েন। দেশের অবস্থা এখন ভালো না। রাস্তায় দাঁড়িয়ে থাকা মেয়ের ওড়না টেনেও মেরে ফেলা হচ্ছে। চাচীর সাথে “ওরকম” কিছু হলে আমার খুব খারাপ লাগবে।

  6. ধন্যবাদ সবাইকে মন্তব্য করার
    ধন্যবাদ সবাইকে মন্তব্য করার জন্য, আমার ছোট্ট মাথার খালি গহ্বরে অনেক কিছু ঢুকিয়ে নিলাম

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *