একটি রাজকীয় গনহত্যা ও উলুবনে ছড়ানো মুক্তা…..

এবার হজ্বব্রত পালনকালে ৭১৭ জন হাজী পদদলিত হয়ে মারা গেছেন। টিভি চ্যানেলের খবর অনুযায়ী এর মধ্যে ৫ জন বাংলাদেশী। এই ৭১৭ জনের কেউ “ফাউ” হজ্ব করতে যান নাই। সৌদি সরকারকে নগদ পয়সা দিয়ে হজ্বব্রত পালন করতে গিয়েছিলেন। বাংলাদেশ থেকেই এবার হজ্বব্রত পালন করতে গেছেন ১ লক্ষেরও বেশী ধর্মপ্রান মুসলিম। জনপ্রতি ৩ লক্ষ টাকা করে ধরলে ৩০০০ কোটি টাকা। এর তিন ভাগের এক ভাগও যদি সৌদি সরকার পায় তাহলে অংকটা দাড়ায় ১০০০ কোটি টাকা। এবার সমগ্র বিশ্বের হজ্বব্রত পালনকারী মুসলিমদের ব্যায়িত অর্থ হিসাব করলে সেটা মাথা ঘুরিয়ে দেয়ার মতই একটা টাকার অংকে দাঁড়াবে। তাও সেটা হবে শুধু এই এক বছরের হিসাব। এখন কথা হচ্ছে লক্ষ মানুষের জমায়েতে ২, ৪, ১০, ৫০ জন লোক দূর্ঘটনায় মারা যেতে পারে। যুক্তিতে মেনেও নেয়া যায় হয়তো। কিন্তু ৭১৭ জন মানুষের মারা যাওয়া (ক্রেন দূর্ঘটনার কথা বাদই দিলাম) কোন দূর্ঘটনা না। এটা একটা দায়িত্বে অবহেলা জনিত হত্যাকান্ড। এটা একটা গনহত্যা। তদুপরি পদদলিত হয়ে মৃত্যু কোন নতুন ঘটনা না। বছরের পর বছর, যুগের পর যুগ শতাব্দীর পর শতাব্দী ধরে বিশ্ববাসীর কাছ থেকে লক্ষ-কোটি টাকা নিয়ে তাদের সুযোগ সুবিধা, নিরাপত্তার পর্যাপ্ত ব্যাবস্থা না করা কেবল চায়ের কাপে তর্কের ঝড় তোলা কিংবা কেবল হালকা আহা-উহু করে মৃত ব্যাক্তিদের সহজে বেহেশত লাভের সৌভাগ্য কল্পনা করে চমৎকৃত হওয়া আর আত্নতৃপ্তি লাভের বিষয় না। বরং আমি চাই,

১.      এ হত্যাকান্ডের দায় সৌদি সরকারকে নিতে হবে। এই হত্যাকান্ডের আন্তর্জাতিক আদালতে বিচার হতে হবে এবং

২.      হজ্ব বাবদ প্রাপ্ত টাকার হিসাব সৌদি সরকারকে বিশ্ববাসীর কাছে দিতে হবে। টাকাটা পুরোটাই ধর্মপ্রান মুসলমানদের খেদমতেই ব্যায় হয়, নাকি “কিছু অংশ” রাজপরিবারের “হালাল” হারেমখানার মেঝের শ্বেতপাথর বদলাতে ব্যায় হয় সেটা জানার অধিকার মুসলিম বিশ্বের আছে।

আমি জানি এবং বুঝি, আমার এই দাবী উলু বনে মুক্তা ছড়ানোর মতই অর্থহীন তবুও আমি এই দুটি দাবী জানাচ্ছি। 

কেউ কি আছেন আমার পাশে?

এখন যদি কেউ আমাকে ধর্মজ্ঞান দিতে এসে বলেন যে সবই আল্লাহ্‌র ইচ্ছা, তাহলে সবিনয়ে বলতে হয় সব হত্যাকান্ডই আল্লাহ্‌র ইচ্ছা। খুনী সেতো “উসিলা” মাত্র। সুতরাং ভাইজান এক কাজ করেন, আদালতে গিয়ে সকল হত্যা মামলার বিচার বন্ধ করার ব্যাবস্থা করেন।.

যাজাক আল্লাহ্‌ খায়ের…

১ thought on “একটি রাজকীয় গনহত্যা ও উলুবনে ছড়ানো মুক্তা…..

  1. এখন যদি কেউ আমাকে ধর্মজ্ঞান
    এখন যদি কেউ আমাকে ধর্মজ্ঞান দিতে এসে বলেন যে সবই
    আল্লাহ্র ইচ্ছা, তাহলে সবিনয়ে বলতে হয় সব হত্যাকান্ডই
    আল্লাহ্র ইচ্ছা। খুনী সেতো “উসিলা” মাত্র। সুতরাং
    ভাইজান এক কাজ করেন, আদালতে গিয়ে সকল হত্যা মামলার
    বিচার বন্ধ করার ব্যাবস্থা করেন।..

    হাস্যকর অবস্থা বানিয়ে ফেলেছে।
    এত মানুষ মারা গেল তারপর ও সবাই কেমন যেন চুপ-চাপ

Leave a Reply to সৌখিন সিংহ Cancel reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *